নিউজ

LG-র সাথে হাত মেলালো Apple, প্রযুক্তি দুনিয়া বড় পরিবর্তনের অপেক্ষায়, জানুন কি আসতে চলেছে

টেক দুনিয়ায় এখন বহুল আলোচিত বিষয়ের মধ্যে অন্যতম হল Apple Watch-এ ওএলইডি (OLED) প্যানেলের পরিবর্তে মাইক্রোএলইডি (microLED) ডিসপ্লের ব্যবহার। সম্প্রতি প্রকাশিত একটি রিপোর্টে এই জল্পনা উস্কে দেওয়া হয়েছে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এর আগে ব্লুমবার্গের মার্ক গুরমেন দাবি করেছিলেন যে, কার্পেটিনো ভিত্তিক টেক কোম্পানিটি ওএলইডি প্যানেলের পরিবর্তে মাইক্রোএলইডি ডিসপ্লে তৈরি করার পরিকল্পনা করছে, যা iPhone 12 এবং তার পরবর্তী মডেলগুলির সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ হবে। শুধু তাই নয়, ২০২৪ বা ২০২৫ সালে Apple Watch-এ এই ডিসপ্লে দেখা যাবে বলে অনুমান করা হচ্ছে, এবং পরবর্তীতে iPhone-এর মতো বড়ো ডিভাইসেও এর দেখা মিলতে পারে। আরো জানা গিয়েছে যে, স্যামসাং বা এলজির মত থার্ড-পার্টি সাপ্লায়ারদের ওপর নির্ভরতা কমাতে Apple হালফিলে তাদের নিজস্ব প্রযুক্তির ওপর ভিত্তি করে ইন হাউস স্ক্রিন তৈরি করার পরিকল্পনা করছে। তবে আজ ডিসপ্লে ইন্ডাস্ট্রি বিশ্লেষক Ross Young বলেছেন, মাইক্রোএলইডি ডিসপ্লের জন্য Apple সম্প্রতি LG-র সাথে হাত মিলিয়েছে।

রস ইয়ং বলেছেন যে, LG Display ইতিমধ্যেই মাইক্রোএলইডি ডিসপ্লের যন্ত্রাংশ উৎপাদনের প্রস্তুতি শুরু করেছে, যা অ্যাপল তাদের অ্যাপল ওয়াচ মডেলগুলিতে ব্যবহৃত ওএলইডি স্ক্রিনের পরিবর্তে ব্যবহার করবে। এর পাশাপাশি অ্যাপল তাদের নিজস্ব মাইক্রোএলইডি সেটআপ তৈরির করার পরিকল্পনাও করছে। তবে এই মুহূর্তে থার্ড-পার্টি সাপ্লায়ারদের হাত ছেড়ে দেওয়া সংস্থাটির পক্ষে কার্যত অসম্ভব ব্যাপার বললেই চলে। কিন্তু এটি নিঃসন্দেহে বলা যায়, যেভাবেই হোক অ্যাপলের ক্ষেত্রে এই মাইক্রোএলইডি টেকনোলজিতে রূপান্তর টেক জগতে এক বড়সড় আলোড়ন ফেলবে। এর ফলে মূলত প্রিমিয়াম অ্যাপল ওয়াচের ডিসপ্লেতে কালার, কন্ট্রাস্ট এবং ব্রাইটনেস আরো উন্নত হবে। ফলে ইউজারদের বাইরে এই ওয়াচটি ব্যবহারে কোনোপ্রকার অসুবিধাই থাকবে না।

যদিও এখনো পর্যন্ত স্পষ্ট করে বলা যাচ্ছে না Apple Watch এর কোন মডেলে নয়া ডিসপ্লে থাকবে। তবে আশা করা যায় পরবর্তী প্রজন্মের অ্যাপল ওয়াচ আল্ট্রা (Apple Watch Ultra)-তে টার্গেট মার্কিনি টেক কোম্পানি সর্বপ্রথম এই পদক্ষেপ নিতে পারে। কিন্তু এখানে জানিয়ে রাখি, অ্যাপলই একমাত্র সংস্থা নয়, যারা ওয়্যারেবলে মাইক্রোএলইডি প্রযুক্তি আনতে চলেছে। কারণ সাম্প্রতিক একটি রিপোর্ট থেকে জানা গেছে, স্যামসাং তাদের ওয়্যারেবলগুলিতে এই নতুন প্রযুক্তি আনার জন্য সচেষ্ট হচ্ছে।

তবে বলাই বাহুল্য, ওয়্যারেবলের ক্ষেত্রে ওএলইডি থেকে মাইক্রোএলইডি টেকনোলজিতে সুইচ করা টেক দুনিয়ায় একটি উল্লেখযোগ্য ঘটনা এবং এর জন্য প্রথমের দিকে এলজি ডিসপ্লের মত কোম্পানিগুলির সাহায্যে প্রয়োজন পড়বে। যাইহোক, সারা বিশ্ব জুড়ে আধুনিক টেকনোলজি যেভাবে এগিয়ে চলেছে, সেখানে টেকজায়ান্ট Apple কখন এবং কিভাবে তার নিজস্ব প্রোডাক্টে মাইক্রো এলইডির প্রয়োগ করে তাই এখন দেখার।

Back to top button