Homeনিউজসাবধান! Reliance Jio গ্রাহকরা ভুলেও এই কাজ করবেন না, SMS পাঠিয়ে সতর্ক করল সংস্থা

সাবধান! Reliance Jio গ্রাহকরা ভুলেও এই কাজ করবেন না, SMS পাঠিয়ে সতর্ক করল সংস্থা

সাইবার জালিয়াতির হাত থেকে ব্যবহারকারীদেরকে সুরক্ষিত রাখতে নয়া পদক্ষেপ নিল Reliance Jio

গোটা বিশ্বের পাশাপাশি ভারতেও ক্রমেই বাড়ছে সাইবার জালিয়াতি। নিত্যনতুন ফন্দিফিকিরকে হাতিয়ার করে একাধিক অনলাইন কারসাজির দৌলতে মানুষের সর্বস্ব হাতিয়ে নিচ্ছে হ্যাকাররা। সারা বিশ্বে উত্তরোত্তর বেড়ে চলা নানাবিধ হ্যাকিংয়ের কর্মকান্ডকে সফলভাবে সুসম্পন্ন করতে স্ক্যামারদের মূল অস্ত্র হল এসএমএস বা ভুয়ো ফোন কল। তাই এবার দুর্বৃত্তদের হাত থেকে সাধারণ মানুষকে রক্ষা করতে এক জোরদার পদক্ষেপ নিল Reliance Jio। গ্রাহকরা যাতে কোনোভাবেই হ্যাকারদের পাতা ফাঁদে পা না দেন, সে ব্যাপারে সতর্ক করে ইউজারদেরকে চলতি সময়ে মেসেজ পাঠাচ্ছে সংস্থাটি।

সাইবার জালিয়াতির হাত থেকে ব্যবহারকারীদেরকে সুরক্ষিত রাখতে নয়া পদক্ষেপ নিল Reliance Jio

সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, ইউজারদেরকে ফ্রি ডেটা দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে তাদেরকে সাইবার জালিয়াতির ফাঁদে ফেলার চেষ্টা করছে হ্যাকাররা। এমনিতেই ফ্রিতে যে-কোনো জিনিস পেলেই খুব ভালোলাগে, তার ওপর বর্তমান ডিজিটাল যুগে যদি কোনোভাবে ফ্রিতে ডেটা পাওয়া যায়, তাহলে তো আর কথাই নেই! এবং সেই কারণে এটির মাধ্যমেই ইউজারদেরকে প্রতারিত করার নতুন উপায় ঠাওরেছে স্ক্যামাররা। তাই কোনোভাবেই গ্রাহকরা যাতে বিনামূল্যে মোবাইল ডেটা পাওয়ার ফাঁদে পা না দেন, সে বিষয়ে ইউজারদেরকে এসএমএস মারফত সতর্ক করেছে রিলায়েন্স জিও। কোম্পানির পাঠানো এসএমএসে ফ্রি ডেটার পরিপ্রেক্ষিতে ব্যবহারকারীদেরকে যে-কোনো লিঙ্কে ক্লিক করতে নিষেধ করা হয়েছে। এর পাশাপাশি পিন, পাসওয়ার্ড, ওটিপি, লগইন আইডি, ডেবিট/ক্রেডিট কার্ড ডিটেইলসের মতো গুরুত্বপূর্ণ তথ্য যাতে ইউজাররা কারোর সাথে শেয়ার না করেন, সে বিষয়েও জিও-র পক্ষ থেকে তাদেরকে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে।

ইউজারদেরকে পাঠানো Reliance Jio-র মেসেজটিতে বলা হয়েছে যে

“অতিরিক্ত মোবাইল ডেটা পেতে হলে কোনো-একটি লিঙ্কে ক্লিক করতে হবে – এরকম মেসেজ যদি আপনার কাছে এসে থাকে তাহলে অবশ্যই সাবধান হোন। ইমেইল বা এসএমএসের মাধ্যমে প্রাপ্ত কোনো সন্দেহজনক লিঙ্কে কোনোমতেই ক্লিক করবেন না। এই ধরনের ম্যালিশিয়াস লিঙ্ক মারফত দুর্বৃত্তরা ওটিপি কিংবা অন্য কোনো গুরুত্বপূর্ণ গোপন আর্থিক তথ্য চুরি করার জন্য আপনার ডিভাইসটিকে “মিরর” করতে পারে। তাই দয়া করে কারোর সাথে কোনো পিন, পাসওয়ার্ড, ওটিপি, লগইন আইডি, ডেবিট/ক্রেডিট কার্ড নম্বর, সিভিভি, কোনো ডকুমেন্টসের মেয়াদ শেষ হওয়ার তারিখ, ইত্যাদি শেয়ার করবেন না। সতর্ক থাকুন, নিরাপদে থাকুন’।

এই প্রসঙ্গে বলে রাখি, শুধু ফ্রিতে মোবাইল ডেটাই নয়, মোটা টাকা পুরস্কারের প্রলোভন দেখিয়ে কিংবা কোনো ধামাকাদার লটারির কথা বলেও প্রতারকরা সহজসরল ইউজারদেরকে এরকম ভুয়ো এসএমএস পাঠিয়ে থাকে। সাম্প্রতিক সময়ে এই জাতীয় ঘটনাগুলির সংখ্যা উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। তাই হামেশাই এই সমস্ত বিষয়কে কেন্দ্র করে গ্রাহকদের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন সংস্থার তরফে একাধিক সতর্কবার্তা জারি করা হয়। আর চলতি সময়ে হ্যাকারদের হাত থেকে নিস্তার পেতে হলে ইউজারদের এই নির্দেশিকাগুলি মেনে চলা একান্ত আবশ্যক।

সাইবার জালিয়াতির হাত থেকে বাঁচতে হলে সর্বদা চোখকান খোলা রাখুন

আপনাদেরকে জানিয়ে রাখি, ইউজারদেরকে পাঠানো ভুয়ো এসএমএসে হ্যাকাররা সর্বদাই একটি লিঙ্কের উল্লেখ করে। গ্রাহকরা ভুলবশত এই লিঙ্কটিতে ক্লিক করে ফেললেই তাদের ফোনের সম্পূর্ণ অ্যাক্সেস চলে যায় স্ক্যামারদের কাছে, যার ফলে ইউজারদের নানাবিধ গোপন তথ্য এবং ব্যাংক ডিটেইলস হ্যাকাররা নিজেদের হাতের মুঠোয় পেয়ে যায়। আর এর ফলটা যে কী হয়, সেটা নিশ্চয়ই আর কাউকে আলাদা করে বলে দেওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই। তাই যে-কোনো ধরনের অজানা লিঙ্কে ক্লিক করা থেকে সর্বদা বিরত থাকুন। এছাড়া, নিজের ব্যক্তিগত ডিটেইলস কখনো কারোর সাথে শেয়ার করবেন না। সবসময় মনে রাখবেন, চলতি সময়ে হ্যাকারদেরকে আটকানোর যেহেতু কোনো পথ নেই, তাই সুরক্ষিত এবং নিরাপদে থাকতে হলে নিজেদেরকেই যথাযথ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। তাই অহেতুক সাইবার জলিয়াতির শিকার হতে না চাইলে সর্বদা চোখকান খোলা রেখে চলাই শ্রেয়।

আরও পড়ুন