ভারতে প্রথম ট্যাব লঞ্চ করতে চলেছে TCL, দাম কত হতে পারে জেনে নিন

চাইনিজ ইলেকট্রনিক্স ব্র‍্যান্ড TCL নির্মিত ট্যাবলেটগুলি বিশ্বব্যাপী বেশ জনপ্রিয় হলেও, দুঃখের বিষয় হচ্ছে ভারতের বাজারে এগুলি পাওয়া যায় না। সংস্থাটি এদেশে একের পর এক টিভি লঞ্চ করে গেলেও, ট্যাবের প্রতি কোনো রকম বাড়তি আগ্ৰহ দেখায়নি। কিন্তু, এখন শোনা যাচ্ছে ভারতীয় বাজারে ট্যাবের অত্যাধিক চাহিদার কথা মাথায় রেখে টিসিএল এই মাসেই ভারতে তাদের ট্যাব লঞ্চ কর‍তে চলেছে। প্রসঙ্গত, টিসিএল এই বছরের শুরুতেই বিশ্বব্যাপী দু’টি ট্যাব লঞ্চ করেছিল- TCL Tab 10S এবং TCL Nxtpaper। এছাড়া, ২০২০ সালে তারা TCL 10 Tab Max এবং TCL 10 Tab Mid নামের দু’টি ট্যাবের ওপর থেকে পর্দা সরিয়েছিল। এতদিন পর্যন্ত এতগুলো ট্যাবের মধ্যে একটিও ভারতে পাওয়া যেত না। এবার সম্ভবত সেই আক্ষেপ মিটতে চলেছে। তবে, আমরা এখনও জানি না যে, উপরোক্ত ট্যাবগুলির মধ্যে কোন ট্যাবটি ভারতে লঞ্চ করতে চলেছে টিসিএল। এছাড়া, লঞ্চের সঠিক সময়ও আমাদের কাছে অজানাই রয়েছে। তবে আশা করা যায় শীঘ্রই আমরা ট্যাবগুলির আগমনের তারিখ জানতে পারবো। আসুন বিশ্বব্যাপী উপলব্ধ টিসিএল ট্যাবগুলির দাম এবং সংক্ষিপ্ত স্পেসিফিকেশন জেনে নিই।

TCL Tab 10S ট্যাবলেটের দাম এবং স্পেসিফিকেশন

টিসিএল ১০ এস ট্যাবলেটির ওয়াই-ফাই মডেলটির দাম ১৯৯ ইউরো, যা ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ১৭,৭০০ টাকা এবং ৪জি মডেলটির দাম ২৪৯ ইউরো (প্রায় ২২,২০০ টাকা)।

TCL Tab 10S ট্যাবলেটটি অ্যান্ড্রয়েড ১০ অপারেটিং সিস্টেম দ্বারা চালিত। ট্যাবলেটটির পেছনে আছে ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা এবং সামনে আছে ৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। এটি ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ একটি ৮০০০ এমএএইচ ব্যাটারির সাথে এসেছে।

TCL NXTPAPER ট্যাবলেটের দাম এবং স্পেসিফিকেশন

টিসিএল নেক্সটপেপার ট্যাবলেটটির মূল বৈশিষ্ট্য হল, এটিতে এলসিডি (LCD) স্ক্রিনের বদলে এনসিভিএম (NCVM) কম্পোজিট শিট ব্যবহার করা হয়েছে যা একেবারে পেপারের মত পাতলা। ফলে ব্যবহারের সময় এটি আপনাকে একটি দুর্দান্ত অভিজ্ঞতা প্রদান করবে। এছাড়া ৮.৮৮ ইঞ্চির ডিসপ্লেটি ১,৪০০×১,০৮০ পিক্সেল রেজোলিউশন বিশিষ্ট। পাশাপাশি, ট্যাবটিতে আছে মিডিয়াটেক MT8768E প্রসেসর, ৪ জিবি র‍্যাম এবং ৬৪ জিবি স্টোরেজ অপশন।

ক্যামেরার ক্ষেত্রে, পিছনে আছে ৮ মেগাপিক্সেল এবং সামনে আছে ৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। এটি ১৮ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ ৫,৫০০ এমএএইচ ব্যাটারির সাথে এসেছে।

এই ট্যাবলেটটির দাম ৩৪৯ ইউরো, যা ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৩১,১০০ টাকা।

TCL 10 Tab Max ট্যাবলেটের দাম এবং স্পেসিফিকেশন

টিসিএল ১০ ট্যাব ম্যাক্স ট্যাবলেটটি দু’টি ভ্যারিয়েন্টে উপলব্ধ, একটি ৪জি এবং অপরটি ওয়াই-ফাই মডেল। ৪জি মডেলটির দাম ২৯৯ ইউরো (ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ২৫,৯০০ টাকা) এবং ওয়াই-ফাই মডেলটির দাম ২৪৯ ইউরো (ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ২১,৬০০ টাকা)।

ট্যাবটিতে আছে স্টাইলাস সাপোর্ট সহ ১০.৩৬ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (HD+) ডিসপ্লে। পাশাপাশি, স্টাইলাসটি আল্ট্রা-লো ল্যাটেন্সি মোড অফার করে। ট্যাবটিতে হাই-ডেফিনেশন ভিডিও কলের জন্য, ডুয়াল স্পিকারসহ ডুয়াল মাইক্রোফোন সিস্টেম আছে। ক্যামেরার ক্ষেত্রে, পিছনে রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেল এবং সামনে আছে ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা।

টিসিএল ১০ ট্যাব ম্যাক্স ট্যাবলেটটিতে পাওয়া যাবে ৮,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি, ৪ জিবি র‍্যাম, ৬৪ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ।

TCL Tab 10 Mid ট্যাবলেটের দাম এবং স্পেসিফিকেশন

টিসিএল ট্যাব ১০ মিড ট্যাবলেটটিতে আছে ৮ ইঞ্চির ফুল এইচডি আইপিএস (IPS) ডিসপ্লে। এটিতে ব্যবহার করা হয়েছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬৬৫ প্রসেসর এবং এতে রয়েছে ৩ জিবি র‍্যাম এবং ৩২ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। পাশাপাশি, ট্যাবলেটটির পেছনে একটি ৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা এবং সামনে একটি ৫ মেগাপিক্সেলের সেল্ফি শুটার ক্যামেরা উপ।

ট্যাবলেটটি একটি ৫,৫০০ এমএএইচ ব্যাটারির সাথে এসেছে। কানেক্টিভিটির জন্য রয়েছে ইউএসবি টাইপ-সি পোর্ট, ৪জি এলটিই, ওয়াই-ফাই ৮০২.১১ এসি, ব্লুটুথ ভার্সন৫, জিপিএস এবং আরও অনেক কিছু।

ট্যাবলেটটির দাম ২২৯ ইউরো (ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ১৯,৭০০ টাকা)।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন