HomeনিউজRedmi Note 11T থেকে iPhone 13, চলতি মাসের টপ ট্রেন্ডিং স্মার্টফোন দেখে নিন

Redmi Note 11T থেকে iPhone 13, চলতি মাসের টপ ট্রেন্ডিং স্মার্টফোন দেখে নিন

চলতি মাসের টপ ট্রেন্ডিং স্মার্টফোনের তালিকায় আছে Samsung Galaxy A52s 5G, Poco X3 Pro, Apple iPhone 13 সিরিজে এবং Redmi Note 11T 5G

চলতি বছরের তৃতীয় ও চতুর্থ কোয়ার্টারে স্মার্টফোন নির্মাতা ব্র্যান্ডগুলি একাধিক হ্যান্ডসেট লঞ্চ করেছে। ফলে সেপ্টেম্বর থেকে এযাবৎ একগুচ্ছ নতুন স্মার্টফোনকে আমরা প্রবেশ করতে দেখেছি ভারতের বাজারে। যার মধ্যে, Samsung Galaxy A52s 5G, Poco X3 Pro, Apple iPhone 13 সিরিজে এবং সদ্য বাজারে পা রাখা Redmi Note 11T 5G স্মার্টফোনটি বিশেষ ভাবে আমাদের নজর কেড়েছে। উল্লেখিত প্রতিটি হ্যান্ডসেট ক্রেতাদের থেকে প্রসংশিত হওয়ার দরুন বর্তমানে ‘ট্রেডিং লিস্ট’ -এ নিজেদের জায়গা বানিয়ে নিয়েছে। আজ আমরা তাই এই প্রতিবেদনে উক্ত স্মার্টফোনগুলি নিয়ে আলোচনা করবো। আসুন তাহলে ২০২১ সালের লেটেস্ট ও ট্রেন্ডিং তকমা প্রাপ্ত এই স্মার্টফোনগুলির দাম ও ফিচার সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

২০২১ সালের লেটেস্ট ও ট্রেন্ডিং স্মার্টফোনের তালিকা

Redmi Note 11T 5G : ডুয়েল সিমের রেডমি নোট ১১টি ৫জি ফোনে, কর্নিং গরিলা গ্লাস ৩ প্রটেকশন সহ একটি ৬.৬ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (১,০৮০x২,৪০০ পিক্সেল) IPS LCD ডিসপ্লে রয়েছে। এই ডিসপ্লের ডিজাইন পাঞ্চ হোল এবং এটি ৯০ হার্টজ অ্যাডাপ্টিভ রিফ্রেশ রেট ও ২০:৯ এসপেক্ট রেশিও সাপোর্ট করে। মাল্টিটাস্কিং ও ফাস্ট পারফরম্যান্সের জন্য, মালি জি৫৭ এমসি২ জিপিইউ সহ অক্টা কোর মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৮১০ ৫জি প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে ডিভাইসে। এটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক এমআইইউআই ১২.৫ কাস্টম স্কিন চালিত। জানিয়ে রাখি, নির্ধারিত র‌্যাম ছাড়াও, এতে ৩ জিবি পর্যন্ত এক্সটেন্ডেড র‌্যাম সাপোর্ট করে। আবার, মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে ডিভাইসের স্টোরেজ ক্যাপাসিটি ১ টেরাবাইট পর্যন্ত বর্ধিত করা যাবে। ফটোগ্রাফির জন্য এতে ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ দেওয়া হয়েছে। এগুলি হল, ৫০ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর ও ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড শুটার। একই ভাবে, একটি ১৬ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট-ফেসিং ক্যামেরাও রয়েছে। সদ্য লঞ্চ হওয়া এই ফোনে ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে, যা ৩৩ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে। এই ব্যাটারি একক চার্জে দু-দিন পর্যন্ত সক্রিয় থাকবে এবং ৬০ মিনিটে নিজে ফুল চার্জ হবে।

দাম : Redmi Note 11T 5G স্মার্টফোনের ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টকে ১৭,৯৯৯ টাকায় লঞ্চ করা হয়েছে। আগ্রহীরা, ই-কমার্স সাইট অ্যামাজন (Amazon) ও সংস্থার নিজস্ব ওয়েবসাইট (Mi.com) থেকে ফোনটি কিনেতে পারবেন।

Samsung Galaxy A52s 5G : স্যামসাং গ্যালাক্সি এ৫২এস ৫জি, অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক ওয়ান ইউআই ৩ কাস্টম স্কিনে চলবে। এতে, ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটের একটি ৬.৫ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস (১,০৮০x২,৪০০ পিক্সেল) সুপার অ্যামোলেড ইনফিনিটি-ও ডিসপ্লে আছে। থাকছে অক্টা কোর কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন (SM7325) ৭৭৮জি প্রসেসর। স্যামসাংয়ের এই লেটেস্ট ৫জি ফোনের রিয়ার প্যানেলে দেখা যাবে একটি কোয়াড ক্যামেরা সেটআপ। এই ক্যামেরাগুলি হল, এফ/১.৮ অ্যাপারচার ও অপটিক্যাল ইমেজ স্টেবিলাইজেশন সহ ৬৪ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ১২ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স, ৫ মেগাপিক্সেল টেলিফটো সেন্সর ও ৫ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো লেন্স। আবার সেলফি ও ভিডিও কলিংয়ের জন্য ডিসপ্লের উপরিভাগে রয়েছে ৩২ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট-ফেসিং ক্যামেরা। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য, ৪,৫০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে ডিভাইসে। যার সঙ্গে ২৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে।

দাম : ই-কমার্স সাইট অ্যামাজন (Amazon) এর লিস্টিং অনুসারে, Samsung Galaxy A52s 5G ফোনের ৮ জিবি র‌্যাম এবং ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ৩৩,৩৯৯ টাকা।

Poco X3 Pro : পোকো এক্স৩ প্রো স্মার্টফোনে আছে কর্নিং গোরিলা গ্লাস ৬ প্রোটেকশন সহ একটি ৬.৬৭ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (১,০৮০x২,৪০০ পিক্সেল) IPS LCD ডিসপ্লে। এই ডিসপ্লের ডিজাইন পাঞ্চ হোল, যার কাট আউটের মধ্যে ২০ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা উপস্থিত। আবার ফোনের পেছনে থাকছে চারটি ক্যামেরা। এগুলি হল, ৪৮ মেগাপিক্সেল Sony IMX582 প্রাইমারি সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড সেন্সর, ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর ও ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর। ফাস্ট পারফরম্যান্স ও মাল্টিটাস্কিংয়ের জন্য এক্স৩ সিরিজের এই ফোনে, এড্রেনো ৬৪০ জিপিইউ ও ২.৯৬ গিগাহার্টজ ক্লক রেটের কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৬০ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। ফলে গেমারদের জন্য এই ফোনটি আদর্শ। অন্যদিকে, অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে ফোনে অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক এমআইআউই ১২ কাস্টম ওএস পাওয়া যাবে। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য এতে, ৩৩ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ ৫,১৬০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে।

Price : ই-কমার্স সাইট ফ্লিপকার্টে (Flipkart), Poco X3 Pro স্মার্টফোনের ৬ জিবি র‌্যাম এবং ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টকে ১৮,৯৯৯ টাকায় এনলিস্ট করা হয়েছে।

Apple iPhone 13 : ৬.১০ ইঞ্চি (২,৫৩২x১,১৭০ পিক্সেল) সুপার রেটিনা এক্সডিআর ডিসপ্লে সহযোগে এসেছে আইফোন ১৩ সিরিজের এই স্ট্যান্ডার্ড মডেল। এতে OLED প্যানেল ব্যবহার করা হয়েছে। ফোনটি অ্যাপলের অত্যাধুনিক এ১৫ বায়োনিক প্রসেসর দ্বারা পরিচালিত। ক্যামেরা ফ্রন্টের কথা বললে, এটি ডুয়েল ক্যামেরা সেটআপের সঙ্গে এসেছে। এই ক্যামেরাগুলি হল, সেন্সর শিফ্ট অপটিক্যাল ইমেজ স্টেবিলাইজেশন প্রযুক্তি ও এফ/১.৬ অ্যাপারচার সহ ১২ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর এবং এফ/২.৪ অ্যাপারচার ও ১২০॰ FOV সহ ১২ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড লেন্স। সেলফি ও ভিডিও কলের জন্য আইফোন ১৩ ফোনের সামনে এফ/২.২ অ্যাপারচার যুক্ত একটি ১২ মেগাপিক্সেল ট্রুডেপ্থ ফ্রন্ট ফেসিং ক্যামেরা রয়েছে। পাওয়ার ব্যাকআপের কথা বললে, আইফোন ১৩ একটানা ১৯ ঘন্টা পর্যন্ত ভিডিও প্লেব্যাক এবং ৫৭ ঘন্টা পর্যন্ত অডিও প্লেব্যাক টাইম দেবে বলে টেক জায়ান্ট অ্যাপলের দাবি।

দাম : অ্যাপল (Apple) সংস্থার অফিসিয়াল ওয়েবসাইট অনুযায়ী, iPhone 13 ফোনের ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ৭৯,৯০০ টাকা।

Apple iPhone 13 Pro Max : আইফোন ১৩ প্রো ম্যাক্স ফোনে ৬.৭০ ইঞ্চির সুপার রেটিনা XDA অল স্ক্রিন OLED ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। এই ডিসপ্লের রেজোলিউশন ১,২৮৪x২,৭৭৮ পিক্সেল এবং রিফ্রেশ রেট ১২০ হার্টজ। এতেও পূর্ববর্তী মডেলের ন্যায় এ১৫ বায়োনিক প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। ফটোগ্রাফির জন্য ফোনের পেছনে ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ উপস্থিত। এই ক্যামেরাগুলি হল, ১২ মেগাপিক্সেল ওয়াইড সেন্সর (এফ/১.৫ অ্যাপারচার), ১২০° ফিল্ড-অফ-ভিউ সহ ১২ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড লেন্স (এফ/১.৮ অ্যাপারচার) ও ১২ মেগাপিক্সেল টেলিফটো সেন্সর (এফ/২.৮ অ্যাপারচার)। আবার সেলফি ও ভিডিও কলিংয়ের জন্য এতে ১২ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। পাওয়ার ব্যাকআপের কথা বললে, আইফোন ১৩ প্রো ম্যাক্স ২৮ ঘন্টা ভিডিও প্লেব্যাক টাইম দেবে।

দাম : ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম ফ্লিপকার্ট (Flipkart) -এ, Apple iPhone 13 Pro Max ফোনের ২৫৬ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টকে ১,৩৯,৯০০ টাকায় বিক্রি করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন