তবে কি ভারতে আসবে না হোয়াটসঅ্যাপ পে? সুপ্রিম কোর্ট কে কি জানালো কোম্পানি জানুন

বুধবার জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম হোয়াটসঅ্যাপ সুপ্রিম কোর্টে জানিয়েছে যে, তারা সমস্ত পেমেন্ট রেগুলেশন না বিচার করে ভারতে তাদের পেমেন্ট সার্ভিস নিয়ে আসবে না। মুখ্য বিচারপতি এসএ বোবদে, বিচারপতি ইন্দু মালহোত্রা এবং ঋষিকেশ রায়ের বেঞ্চ এদিন একটি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে পুরো বিষয়টির পর্যালোচনা করেন।

বরিষ্ঠ আইনজীবী কপিল সিব্বল হোয়াটসঅ্যাপের পক্ষ থেকে জানান,” হোয়াটসঅ্যাপ ইনকর্পোরেশন তাদের ক্লায়েন্টদের কাছে একটি বিবৃতির মাধ্যমে জানিয়েছে যে তারা প্রত্যেকটি রেগুলেশন মেনে তারপরেই পেমেন্ট স্কিমে প্রবেশ করবে। ” ভারতের উচ্চ আদালত হোয়াটসঅ্যাপের এই আশ্বাসনকে রেকর্ড করে রেখেছে।

কিছুদিন আগে হোয়াটসঅ্যাপের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছিল যে, তাদের পেমেন্ট সার্ভিসে প্রবেশ করা উচিত নয়। কারণ তাদের ডেটা লোকালাইজেশন নিয়মাবলী ভালোভাবে পালন করা নেই।

২০১৮-তে হোয়াটসঅ্যাপের কাছে একটি বিটা লাইসেন্স পাঠানো হয় পেমেন্ট সার্ভিস শুরু করার জন্য। সেই লাইসেন্সের পরিপ্রেক্ষিতে অ্যাপেক্স কোর্টে একটি মামলা করা হয় যাতে জানানো হয়, হোয়াটসঅ্যাপের বর্তমান পেমেন্ট মডেলকে ইউনিফাইড পেমেন্ট ইন্টারফেস (ইউপিআই) যোজনার সাথে অসংগতিপূর্ণ বলে ঘোষিত করা উচিত। এর কারণ কোম্পানির দ্বারা একটি আলাদা অ্যাপ্লিকেশন নিয়ে আসা হয়নি পেমেন্টের জন্য।

মামলাকারী এনজিও, গুড গভর্নেন্স চেম্বারসের দাবি ছিল যে ন্যাশনাল পেমেন্ট কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়া এবং ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাংককে ইউপিআই পেমেন্টের মডেল বদলানো উচিত। সেই সময় পর্যন্ত এই সিস্টেমের অপারেশন সম্পূর্ণরূপে বন্ধ রাখা উচিত।

এই প্রোফাইল থেকে টেকগাপের সম্পাদকীয় দল এবং নিজস্ব সংবাদদাতাদের লেখা প্রকাশিত হয়৷