সিম আপগ্রেডের আগে ভাবুন, 5G লঞ্চের পরে স্পিড বাড়বে 4G ইন্টারনেটের, কিন্তু কেন

উচ্চগতির পরিষেবা লাভের লক্ষ্যে আসন্ন দিনগুলিতে অনেকেই 4G থেকে 5G নেটওয়ার্কে ঝাঁপানোর কথা চিন্তা করছেন।

4G Speed could Increase in your mobile with 5G Launch in India

দেশীয় বাজারে 5G পরিষেবার আগমন যে আর মাত্র কিছু সময়ের অপেক্ষা, ইতিমধ্যে সেকথা প্রায় সকলেই জেনেছেন। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে, আগামী অক্টোবর মাসে দেশের নির্বাচিত এলাকায় 5G নেটওয়ার্ক রোলআউট শুরু করতে পারে, জিও (Jio), এয়ারটেল (Airtel)। এ সম্পর্কে অবগত থাকায়, উচ্চগতির পরিষেবা লাভের লক্ষ্যে আসন্ন দিনগুলিতে অনেকেই 4G থেকে 5G নেটওয়ার্কে ঝাঁপানোর কথা চিন্তা করছেন। যদিও আদৌ তার কোনও প্রয়োজন আছে কিনা, তা আমরা এই প্রতিবেদনেই খতিয়ে দেখবো।

5G পরিষেবার আগমনের ফলে বাড়বে 4G পরিষেবা স্পিড? কিভাবে জেনে নিন

আলোচনার শুরুতেই জানিয়ে রাখা ভালো যে এই মুহূর্তে, ভারতে টেলিকম পরিষেবার গ্রাহকদের সিংহভাগই 4G ব্যবস্থার অধীনে রয়েছেন। Reliance Jio, Vi, Airtel প্রভৃতি প্রাইভেট টেলকোগুলিও ইতিমধ্যেই 2G ও 3G পরিষেবার আওতাধীন গ্রাহকদের, 4G নেটওয়ার্কের ছত্রতলে টেনে আনতে যথেষ্ট সফল। 2G/3G পরিষেবার বদলে এভাবে দলে দলে উপভোক্তারা 4G পরিষেবা গ্রহণ করায় বর্তমানে নেটওয়ার্কের ওপর ব্যাপক চাপ তৈরি হয়েছে। এর ফলে টেলকোগুলি সম্প্রতি ‘নেটওয়ার্ক কনজেশ্চনে’র সম্মুখীন হচ্ছে, যার ফলে ভালো পরিষেবা সরবরাহ প্রায় অসম্ভব হয়ে দাঁড়িয়েছে। এমতাবস্থায় 5G পরিষেবা রোলআউটের ফলে যদি 4G ব্যবহারকারীদের একাংশ 5G নেটওয়ার্কের অধীনে স্থানান্তরিত হন, তবে সেক্ষেত্রে 4G নেটওয়ার্কের ওপর থেকে গ্রাহকের বাড়তি চাপ সরে যাবে। ফলে তখন 4G পরিষেবার গতি আরো বৃদ্ধি পাবে বলেই অনুমান করা হচ্ছে।

যেমন রিলায়েন্স জিও’র পরিষেবার কথাই ধরা যাক। আর কিছু সময়ের মধ্যেই জিও দেশের একক টেলিকম অপারেটর হিসেবে স্ট্যান্ডঅ্যালোন (5G SA) পরিষেবার সূচনা করতে চলেছে। ‘5G SA’ পরিষেবার প্রধান বিশেষত্ব হল, এখানে 5G নেটওয়ার্ক সক্রিয় (Active) রাখতে 4G নেটওয়ার্কের প্রয়োজন পড়েনা। কিন্তু ‘5G NSA’ অর্থাৎ 5G নন-স্ট্যান্ডঅ্যালোন পরিষেবার ক্ষেত্রে ব্যাপারটি কিছুটা আলাদা। সে যাইহোক না কেন, মোদ্দা কথা হল যত দ্রুত Jio তাদের 5G SA পরিষেবার জাল দেশজুড়ে ছড়িয়ে দেবে, ততখানি চাপমুক্ত হবে টেলকোর 4G নেটওয়ার্ক। ফলে তেমনটা হলে জিও’র 4G নেটওয়ার্ক পারফরম্যান্স পূর্বের চেয়ে উন্নত হতে বাধ্য।

অন্যদিকে 5G NSA পরিষেবার ক্ষেত্রে 5G নেটওয়ার্ক সক্রিয় রাখতে হলে, 4G কোর নেটওয়ার্কের উপস্থিতি গুরুত্বপূর্ণ। অবশ্য তেমনটা হলেও 4G এবং 5G স্পেকট্রামের মধ্যে পার্থক্য থাকবে। ফলে কোনও নির্দিষ্ট টেলকোর 5G NSA পরিষেবার আওতায় গ্রাহকেরা ভিড় করলে, উক্ত টেলকোর 4G পরিষেবা, আগের থেকে উন্নত হবে বলেই ধরে নেওয়া যেতে পারে।

সুতরাং বেসরকারি টেলিকম অপারেটরেরা যতদিন না দেশের সর্বত্র পরবর্তী প্রজন্মের উন্নত 5G পরিষেবা সরবরাহে সমর্থ হচ্ছেন, ততদিন স্রেফ উচ্চগতির পরিষেবা গ্রহণের উদ্দেশ্যে ইউজারদের 5G নেটওয়ার্কে যোগ দেওয়ার সত্যিই কোনোরকম প্রয়োজন নেই। বরং সেক্ষেত্রে উপভোক্তারা টেলকোগুলির ‘চাপমুক্ত’ 4G নেটওয়ার্কের ওপরেই ভরসা রাখতে পারেন, যা তাদের নিরাশ করবেনা বলে আমাদের ধারণা।

One of the newest members of the Techgup Family. Soumo grew his liking for gadgets almost a decade back while searching for his first smartphone, and started writing about tech recently in 2020