বিনামূল্যে ইন্টারনেট, আরও ২৭ শহরে 5G পরিষেবা চালু করল Reliance Jio

গত বছরের অক্টোবরের গোড়ার দিকে ভারতে আনুষ্ঠানিকভাবে চালু হয়েছিল 5G সার্ভিস। তারপর থেকে একেবারে জেট গতিতে এদেশের একের পর এক শহরে পঞ্চম প্রজন্মের নেটওয়ার্ক পরিষেবা রোলআউট করে চলেছে দেশের শীর্ষস্থানীয় টেলিকম অপারেটর Reliance Jio। এর ফলে বর্তমানে ভারতের নির্বাচিত কিছু শহরের Jio গ্রাহকরা সম্পূর্ণ বিনামূল্যে নিজেদের 5G স্মার্টফোনে বিদ্যমান 4G সিম মারফতই কোম্পানির ট্রু ৫জি (Jio True 5G) সার্ভিস ব্যবহার করতে সক্ষম হচ্ছেন। সম্প্রতি সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে যে, ভারতের আরও ২৭ টি শহরে পাওয়া যাবে এই দুরন্ত গতির নেট পরিষেবা। বলে রাখি, মোট ১৩ টি রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল জুড়ে রয়েছে এই ২৭ টি শহর।

ভারতের মোট ৩৩১ টি শহরে পৌঁছে গেল Jio True 5G সার্ভিস

হালফিলে দেশের শীর্ষস্থানীয় টেলিকম কোম্পানিটি ঘোষণা করেছে যে, গতকাল (৮ মার্চ) হোলি উপলক্ষে দেশের আরও ২৭ টি শহরে জিও ট্রু ৫জি পরিষেবা চালু করতে পেরে সংস্থাটি যারপরনাই আনন্দিত। অর্থাৎ, ৮ মার্চ থেকে দেশের আরও ২৭ টি শহরের জিও গ্রাহকরা সম্পূর্ণ বিনামূল্যে কোম্পানির বিদ্যুৎ গতির ৫জি নেটওয়ার্ক পরিষেবা ব্যবহারের মজা উপভোগ করতে পারবেন। এর ফলে সবমিলিয়ে বর্তমানে ভারতের ৩৩১ টি শহরে পৌঁছে গেল জিও ট্রু ৫জি সার্ভিস। উল্লেখ্য, চলতি মাসের গোড়ার দিকে সংস্থাটির চেয়ারম্যান আকাশ আম্বানি (Akash Ambani) জানিয়েছিলেন যে, ২০২৩ সালের ডিসেম্বরের মধ্যেই দেশের প্রতিটি শহর, গ্রাম, তালুক এবং তহসিলে এই দুরন্ত গতির নেট পরিষেবা পৌঁছে দেওয়ার আপ্রাণ চেষ্টা করবে জিও। এখন চলুন, যে ২৭ টি শহরে সম্প্রতি জিও ট্রু ৫জি সার্ভিস চালু হয়েছে, তার সম্পূর্ণ তালিকাটির ওপর একনজরে চোখ বুলিয়ে নেওয়া যাক।

হোলির পর এই ২৭ টি শহরে পাওয়া যাবে Jio True 5G পরিষেবা

২০২৩ সালের হোলিতে রিলায়েন্স জিও যে সকল নতুন শহরগুলিতে ৫জি পরিষেবা চালু করেছে, সেগুলি হল: তাদিপত্রী (অন্ধ্রপ্রদেশ), ভাটাপাড়া (ছত্তিশগড়), অনন্তনাগ (জম্মু ও কাশ্মীর), ভদ্রবতী, রামনগর, দোদ্দাবল্লপুরা, চিন্তামণি (কর্ণাটক), চাঙ্গানাসেরি, মুভাট্টুপুজা, কোডুঙ্গালুর (কেরালা), কাটনি মুরওয়ারা (মধ্যপ্রদেশ), সাতারা (মহারাষ্ট্র), পাঠানকোট (পাঞ্জাব), পোল্লাচি, কোভিলপট্টি (তামিলনাড়ু), সিদ্দিপেট, সাঙ্গারেড্ডি, জগতিয়াল, কোথাগুডেম, কোদাদ, তান্দুর, জাহিরাবাদ, নির্মল (তেলেঙ্গানা), রামপুর (উত্তরপ্রদেশ), কাশীপুর, রামনগর (উত্তরাখণ্ড) এবং বাঁকুড়া (পশ্চিমবঙ্গ)।

উল্লেখ্য যে, উপরিউক্ত শহরগুলির বাসিন্দারা ৮ মার্চ থেকে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে নিজেদের 5G স্মার্টফোনে বিদ্যমান 4G সিম মারফতই Reliance Jio-র আনলিমিটেড 5G নেট সার্ভিস ব্যবহার করতে পারবেন। এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি, Jio বর্তমানে ইউজারদেরকে স্ট্যান্ডঅ্যালোন (SA) নেটওয়ার্কের মাধ্যমে 5G পরিষেবা অফার করছে। অর্থাৎ, সংস্থার নেটওয়ার্কটি একটি 5G কোরে চলবে এবং এটি বিদ্যমান এলটিই (LTE) কোরের ওপর নির্ভর করবে না। কোম্পানির দাবি অনুযায়ী, এই মুহূর্তে ভারতে Jio-র পঞ্চম প্রজন্মের নেটওয়ার্ক পরিষেবার দৌলতে ব্যবহারকারীরা 4G-র তুলনায় প্রায় ২০-৩০ গুণ দ্রুতগতির ইন্টারনেট অ্যাক্সেস করতে সক্ষম হবেন।