দেশে 5G ভিত্তিক WiFi পরিষেবা চালু করল Jio, কারা ব্যবহার করতে পারবেন

গতকাল 5G পরিচালিত WiFi পরিষেবা লঞ্চ করেছে Jio। কিন্তু কারা এটি ব্যবহার করতে পারবেন? খরচই বা কেমন হবে? জেনে নিন বিশদ।

Reliance JioTrue 5G WiFi Services Launched in India

চলতি মাসের শুরুতে ভারতে 5G মোবাইল নেটওয়ার্ক চালু করার পর, এবার JioTrue 5G চালিত WiFi পরিষেবাও নিয়ে এল Reliance Jio। এই মুহূর্তে কলকাতা, দিল্লি, মুম্বই এবং বারাণসীর (পরিষেবাপ্রাপ্ত লেটেস্ট শহর চেন্নাই) মত নির্বাচিত শহরেই সংস্থার নতুন মোবাইল নেটওয়ার্ক ব্যবহার করা যাচ্ছে। Jio ঘোষণা করেছে যে, তাদের নতুন WiFi পরিষেবা আপাতত পাবলিক প্লেসে (যেমন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ধর্মীয় স্থান, রেলস্টেশন, বাস স্ট্যান্ড, বাণিজ্যিক কেন্দ্র ইত্যাদিতে) উপলব্ধ হবে। তবে শীঘ্রই এই পরিষেবার পরিধি (পড়ুন কভারেজ) প্রসারিত করা হবে।

গতকাল রাজস্থানের মন্দিরে Jio-র 5G WiFi পরিষেবার ওপর থেকে পর্দা সরেছে

গতকাল অর্থাৎ ২২শে অক্টোবর রাজস্থানের নাথদ্বারা মন্দিরে প্রথম জিও ট্রু ৫জি ওয়াই-ফাই পরিষেবা চালু করেছে রিলায়েন্স জিও। আর এই পরিষেবা চালু করার বিষয়ে সংস্থার চেয়ারম্যান আকাশ আম্বানি নিশ্চিত করেছেন যে, আপাতত ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কটি ব্যবহারে সীমাবদ্ধতা থাকলেও, খুব শীঘ্রই দেশের অন্যান্য অঞ্চলে পরিষেবা পাওয়া যাবে। পাশাপাশি জিও ট্রু ৫জি ওয়েলকাম অফার (JioTrue 5G Welcome Offer)-এর সাথে যুক্ত হওয়ার জন্য চেন্নাইকে স্বাগত জানিয়েছেন আকাশ।

এখন JioTrue 5G পরিষেবা ব্যবহার করা যাবে বিনামূল্যেই

এই মুহূর্তে জিও ট্রু ৫জি মোবাইল নেটওয়ার্ক ব্যবহার করতে যেমন আলাদা করে কোনো খরচ বা সিম কার্ডের প্রয়োজন হচ্ছেনা, তেমনই জিও গ্রাহকরা ‘জিও ওয়েলকাম অফার’ চলাকালীন কোনো চার্জ ছাড়াই সংস্থার নতুন ওয়াই-ফাই পরিষেবাটি উপভোগ করতে পারবেন। এক্ষেত্রে নন-জিও ইউজারদের (মানে অন্যান্য টেলিকম সংস্থার গ্রাহকরা) জিও ট্রু ৫জি পরিষেবা পেতে নিজের কানেকশন জিওতে সুইচ করতে হবে।

শীঘ্রই দেশের আরো কিছু শহরে প্রসারিত হবে JioTrue 5G পরিষেবা

প্রাথমিকভাবে কলকাতাসহ চারটি শহরে ৫জি পরিষেবা চালু করলেও, অতিসম্প্রতি চেন্নাইকেও নিজের এই পরিষেবার আওতায় এনেছে জিও। এই শহরের ইউজাররা জিও ট্রু ৫জি নেটওয়ার্ক থেকে ১ জিবিপিএস পর্যন্ত ইন্টারনেট স্পিড উপভোগ করতে পারবেন। আবার খুব তাড়াতাড়ি আহমেদাবাদ, ব্যাঙ্গালোর, চণ্ডীগড়, গান্ধীনগর, গুরুগ্রাম, হায়দ্রাবাদ, জামনগর, লখনউ এবং পুনের মত ৬টি নতুন জায়গাতেও এই পরিষেবা পাওয়া যাবে বলে নিশ্চিত হয়েছে। এছাড়াও বিভিন্ন রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে যে, শীর্ষস্থানীয় টেলিকম সংস্থাটি আগামী বছরের মধ্যে সারা দেশে নতুন নেটওয়ার্ক কভারেজ দেওয়ার চেষ্টা করবে।