Airtel-এর পাঁচটি সেরা প্ল্যান: রিচার্জ করলে পাবেন কল, ডেটা, এসএমএসসহ দেদার সুবিধা

Airtel Top 5 Monthly Prepaid Plans

সময়ের সাথে সাথে গোটা দুনিয়া যত ডিজিটাল হচ্ছে, ততই বাড়ছে স্মার্টফোন এবং মোবাইল পরিষেবার ওপর নির্ভরশীলতা। এখন আর শুধু ফোন কল বা মেসেজিংয়েই মোবাইল হ্যান্ডসেট বা নেটওয়ার্কের ব্যবহার সীমাবদ্ধ নেই, বরঞ্চ প্রতিদিনে জিবি জিবি ডেটা উপভোগ করছেন মানুষ। তবে মূল্যবৃদ্ধি যেভাবে দিন-কে-দিন সমস্ত জায়গায় থাবা বসাচ্ছে, তার প্রভাব থেকে রেহাই পাচ্ছেনা মোবাইল বা টেলিকম পরিষেবাও; ক্রমশই বেড়ে চলেছে মোবাইল নেটওয়ার্ক ব্যবহারের (পড়ুন রিচার্জের) খরচ। সেক্ষেত্রে আপনি যদি Bharti Airtel-এর প্রিপেইড গ্রাহক হন এবং বর্তমানে ডেটা, আনলিমিটেড কলিং, এসএমএস সহ যাবতীয় বেসিক বেনিফিট পেতে কোনো মাসিক প্ল্যান রিচার্জ করতে চান, তাহলে আপনার রিচার্জের সিদ্ধান্ত সহজ করে দেবে আমাদের আজকের এই প্রতিবেদন। কারণ আমরা আপনাকে আজ Airtel-এর পাঁচটি সেরা রিচার্জ প্ল্যানের সন্ধান দেব যা আপনার পরিস্থিতি অনুযায়ী চাহিদা মেটাবে।

একমাসের রিচার্জ করতে হলে বেছে নিন Airtel-এর এই প্ল্যানগুলি

১. Airtel-এর ১৭৯ টাকার প্ল্যান: এই প্ল্যানটি ২৮ দিনের বৈধতায় আনলিমিটেড কল, ৩০০টি এসএমএস এবং ২ জিবি ডেটা অফার করে। এছাড়া এই প্ল্যান রিচার্জের মাধ্যমে ফ্রি হ্যালো টিউনস, উইঙ্ক মিউজিক (Wynk Music) ও অ্যাপোলো ২৪/ ৭ সার্কেল (Apollo 24|7 Circle)-এর ফ্রি সাবস্ক্রিপশনসহ ফাস্ট্যাগে (FASTag) ক্যাশব্যাক উপভোগ করতে পারবেন।

২. Airtel-এর ২৯৬ টাকার প্ল্যান: প্রায় ৩০০ টাকা দামের এই প্রিপেইড রিচার্জ প্ল্যানের ভ্যালিডিটি পুরো ৩০ দিন। সুবিধা বলতে এতে আনলিমিটেড ভয়েস কল, প্রতিদিন ১০০টি করে এসএমএস এবং ২৫ জিবি বাল্ক ডেটা পাওয়া যাবে। এর সাথে উইঙ্ক মিউজিক বা অ্যাপোলো ২৪/ ৭ সার্কেলের ফ্রি সাবস্ক্রিপশন, ফ্রি হ্যালো টিউনস এবং ফাস্ট্যাগ ক্যাশব্যাকের সুবিধাও উপলব্ধ।

৩. Airtel-এর ৩১৯ টাকার প্ল্যান: এই প্ল্যানের বৈধতাও পুরো ৩০ দিন; এতে আনলিমিটেড কলিংয়ের সাথে রোজ ১০০টি এসএমএস এবং ২ জিবি ডেটা পাওয়া যায়। তাছাড়া এই রিচার্জের মাধ্যমেও উল্লিখিত এক্সট্রা বেনিফিট পরখ করতে পারবেন।

৪. Airtel-এর ৩৫৯ টাকার প্ল্যান: এই প্ল্যানটি অত্যন্ত সেরা একটি বিকল্প, বিশেষত যারা বিনোদন পছন্দ করেন তাদের জন্য তো এটি খুবই কাজের। প্রথমত, এয়ারটেলের ৩৫৯ টাকার প্ল্যানে ২৮ দিনের বৈধতায় আনলিমিটেড কল, প্রতিদিন ১০০টি এসএমএস এবং ২ জিবি করে ডেটা ব্যবহারের সুবিধা মিলছে। অন্যদিকে এটি রিচার্জ করলে কোনো অতিরিক্ত খরচ ছাড়াই এয়ারটেল এক্সট্রিম (Xstream) অ্যাপ ব্যবহার করা যাবে এবং উল্লিখিত সমস্ত ফ্রি বেনিফিট (মানে উইঙ্ক মিউজিকের ফ্রি সাবস্ক্রিপশন, ফ্রি হ্যালো টিউনস ইত্যাদি) পাওয়া যাবে।

৫. Airtel-এর ৩৯৯ টাকার প্ল্যান: আপনি ৩৯৯ টাকার মাসিক রিচার্জ প্ল্যানে ২৮ দিনের বৈধতায় আনলিমিটেড কলিং, প্রতিদিন ১০০টি এসএমএস এবং ২.৫ জিবি করে ডেটা ব্যবহারের সুবিধা উপলব্ধ। এক্ষেত্রে এতেও যাবতীয় ফ্রি বেনিফিট কাজে লাগানো যাবে। তবে বিশেষ ব্যাপার হল যে এটিতে আপনারা ডিজনি+হটস্টার (Disney+Hotstar)-এর মোবাইল সাবস্ক্রিপশন উপভোগ করতে পারবেন।

এই প্ল্যানগুলিতেই পাওয়া যাবে 5G-র স্বাদ

এই মুহূর্তে এয়ারটেল গ্রাহকরা বিদ্যমান ৪জি প্ল্যানগুলি ব্যবহার করেই এয়ারটেল ৫জি প্লাস (Airtel 5G Plus) নেটওয়ার্ক উপভোগ করতে পারবেন। এখনো অবধি দেশের ৪৮টি শহরে এই পরিষেবা পাওয়া যাচ্ছে।