জুমের বাজার ধরতে এবার টেলিগ্রামেও আসছে গ্রুপ ভিডিও কলিং ফিচার

Telegram video calling

হোয়াটসঅ্যাপ এবং ইনস্টাগ্রামের মতো টেলিগ্রামেও এবার ভিডিও কলিং ফিচার জুড়তে চলেছে। Telegram এর তরফে বলা হয়েছে এই ফিচার শীঘ্রই চালু করা হবে এবং ব্যবহারকারীদের ডেটা সম্পূর্ণ নিরাপদে থাকবে। কোনও থার্ড পার্টি এই ডেটা অ্যাক্সেস করতে পারবে না। যদিও কখন এই ফিচার চালু হবে এবং কতজন ব্যবহারকারী গ্রুপ কলে অংশ নিতে পারবে সে সম্পর্কে কোম্পানি কোনও স্পষ্ট বার্তা দেয়নি।

লকডাউনে গ্রুপ ভিডিও কল করার প্রবণতা বেড়েছে বিশ্ববাসীর। লোকেরা অফিসের কাজের জন্য ভিডিও কলিং অ্যাপের ব্যবহার করছে এবং বন্ধুদের সাথে কথা বলছে। আর সেকারণেই টেলিগ্রাম এই বৈশিষ্ট্যটি নিজেরদের অ্যাপে যুক্ত করার চেষ্টা করছে। টেলিগ্রামের বিশ্বব্যাপী ৪০ কোটি ব্যবহারকারী রয়েছে।

বিভিন্ন কোম্পানি ভিডিও কলিং ফিচার এনেছে :

এই লকডাউনের সময় ভিডিও কলিং অ্যাপ Zoom ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছিল। এটিতে বিনামূল্যে ১০০ জন ব্যবহারকারী এবং পেড ভার্সনে ৫০০ ব্যবহারকারী একসাথে ভিডিও কনফারেন্সে যোগ দিতে পারেন। তবে জুম অ্যাপে ডেটার নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন ওঠায় অনেকেই এই অ্যাপ আর ব্যবহার করছে না। আর এই সুযোগে অন্য কোম্পানিগুলি Zoom এর বাজার ধরতে নিজেদের অ্যাপে গ্রুপ ভিডিও কলিং ফিচার নিয়ে আসছে।

সম্প্রতি Facebook ও তাদের মেসেঞ্জারে রুম ফিচার নিয়ে এসেছে। এর ফলে ফেসবুক মেসেঞ্জারে ৫০ জন পর্যন্ত একসাথে ভিডিও কল করা যাবে। এই ফিচারের বিশেষ দিক হল, যে কেউ ফেসবুক ব্যবহার না করলেও কেবল একটি ইনভাইট লিঙ্কের মাধ্যমে মেসেঞ্জার রুমের ভিডিও কলিংয়ে যোগ দিতে পারে। মেসেঞ্জার রুমেও Zoom এর মতো ফিচার দেওয়া হয়েছে।

এছাড়াও ক্রিয়েটরের এই রুম সাজানোর অর্থাৎ ডিজাইনের বিকল্প থাকবে। ক্রিয়েটর চাইলে যেকোনো কাউকে যখন ইচ্ছা রিমুভ করতে পারবে। এবার আপনি প্রশ্ন করতেই পারেন যে কিভাবে এই রুম বানাবো। আসলে আপনি যেভাবে ফেসবুক মেসেঞ্জারে গ্রুপ তৈরী করেন, সেভাবেই রুম তৈরী করতে পারবেন। Facebook Messenger ছাড়াও Whatsapp এবং Google Duo তাদের গ্রুপ কলিং ফিচার আরও উন্নত করেছে।