ফাঁস হয়ে যাচ্ছে Telegram ব্যবহারকারীদের চ্যাট, সমাধান জেনে নিন

telegram-new-bug-reveal-chats-users-should-immediately-update-their-app
Telegram অ্যাপে সুরক্ষা ত্রুটি

টেলিগ্রাম (Telegram) ব্যবহারকারীদের জন্য দুঃসংবাদ। জনপ্রিয় মেসেজিং অ্যাপ্লিকেশনটি সম্প্রতি আরো একবার সিকিউরিটি সমস্যার সম্মুখীন হয়েছে। রয়্যাল হলোওয়ে, লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদল টেলিগ্রামের নিরাপত্তাজনিত ত্রুটির বিষয়টি সর্বপ্রথম প্রকাশ্যে আনেন। অন্য কিছু নয় বরং এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশন (E2EE) পরিষেবার দুর্বলতার কারণেই নিরাপত্তাজনিত এই ত্রুটি বলে গবেষক দলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। তড়িঘড়ি অ্যাপ্লিকেশনের নতুন আপডেট এনে টেলিগ্রাম (Telegram) কর্তৃপক্ষ সমস্যার সমাধানে উদ্যোগী হয়েছে।

Telegram অ্যাপে সুরক্ষা ত্রুটি

যারা সঠিকভাবে অবগত নন তাদের জন্য বলে রাখি, এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশন এমন একটি পরিষেবা যা আমাদের ব্যক্তিগত চ্যাটগুলিকে অপরের হস্তগত হওয়া থেকে রক্ষা করে। প্রতিদ্বন্দ্বী সংস্থা হোয়াটসঅ্যাপকে (Whatsapp) টক্কর দিতে টেলিগ্রাম (Telegram) অ্যাপ্লিকেশনেও এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশনের সুবিধা উপস্থিত রয়েছে। তবে সাধারণভাবে নয় বরং উক্ত ফিচারের সুবিধা গ্রহণের জন্য টেলিগ্রাম ব্যবহারকারীদের আলাদা করে তা সক্রিয় করতে হয়। অন্যদিকে হোয়াটসঅ্যাপ(Whatsapp), সিগন্যালের (Signal) মতো অ্যাপ্লিকেশনে সাধারনভাবেই এই সুবিধা উপলব্ধ রয়েছে।

এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশন পরিষেবার কারণে প্রেরক এবং গ্রহীতা ছাড়া অপর কোনো তৃতীয় পক্ষ ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত মেসেজের নাগাল পায় না। কেবলমাত্র এটুকুই নয়, স্বয়ং মেসেজিং প্ল্যাটফর্মটির পক্ষেও সেই সব মেসেজ অ্যাক্সেস করা অসম্ভব হয়ে থাকে। যেহেতু টেলিগ্রামে এই ফিচার স্বাভাবিকভাবে সক্রিয় থাকে না, তাই অসাধু আক্রমণকারীরা সেই ফাঁকেই ব্যবহারকারীর তথ্য চুরির কাজে নেমে পড়ে। এই ধরনের একটি বাগ সমস্যাকে কাজে লাগিয়েই সম্প্রতি অ্যাটাকারেরা ব্যবহারকারীর মেসেজ পড়ে ফেলছে বলে লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক দল দাবী করেন। আবার শুধু মেসেজ পড়ে ফেলা নয়, সুরক্ষাজনিত ত্রুটির সুযোগ নিয়ে আক্রমণকারীরা প্রেরক ও গ্রহীতার মেসেজের ক্রমিক অবস্থান পর্যন্ত বদলে দিতে পারে বলেও অভিযোগ উঠেছে।

এছাড়া সিকিউরিটি দুর্বলতাকে কাজে লাগিয়ে আক্রমণকারীরা অ্যাপ্লিকেশনের স্বয়ংক্রিয় বটগুলিকে (Bots) পর্যন্ত নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। অ্যান্ড্রয়েড, আইওএস এবং টেলিগ্রাম ডেস্কটপ অ্যাপে এভাবেই বিভিন্ন অসৎ ব্যক্তি এবং প্রতিষ্ঠান ব্যবহারকারীর এনক্রিপ্টেড মেসেজের পাঠযোগ্য সংস্করণ হাতিয়ে নিচ্ছে বলে শোনা গিয়েছে।

অ্যাপের নিরাপত্তার বিষয়ে একাধিক অভিযোগ উঠার পর, টেলিগ্রামের পক্ষ থেকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে, ইতিমধ্যেই তারা সমস্যার সমাধান করে ফেলেছে। অ্যাপের নতুন আপডেট সামনে আসা প্রত্যেকটি সিকিউরিটি দুর্বলতার উর্ধ্বে বলেও তারা দাবী করেছে। গুগল প্লে স্টোর, অ্যাপল অ্যাপ স্টোর বা টেলিগ্রামের নিজস্ব ওয়েবসাইট থেকে অ্যাপ্লিকেশনের নতুন সংস্করণ ডাউনলোড এবং ইনস্টল করে ব্যবহারকারীরা নিরাপত্তা সংক্রান্ত দুশ্চিন্তা থেকে পুরোপুরি রেহাই পাবেন বলে সংস্থাটি তাদের ব্লগ পোস্টে জানিয়েছে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

One of the newest members of the Techgup Family. Soumo grew his liking for gadgets almost a decade back while searching for his first smartphone, and started writing about tech recently in 2020