হোয়াটসঅ্যাপকে টেক্কা দিয়ে সার্চ ফিল্টার সহ একধিক নতুন ফিচার আনলো Telegram

telegram-rolls-out-new-features-including-search-filters-anonymous-admins

বর্তমান সময়ে WhatsApp-এর সবচেয়ে শক্তিশালী প্রতিদ্বন্দ্বী হল Telegram। ভারতে এই ক্লাউড বেসড অ্যাপ্লিকেশনটির ৫ মিলিয়নেরও বেশি সক্রিয় ইউজার রয়েছে। মেসেজিংয়ের সাথে সাথে বড় সাইজের ফাইল পাঠানো যায় এই প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে। শুধু তাই নয়, সাইবার সিকিউরিটি রিসার্চাররা মনে করেন Telegram, WhatsApp-এর থেকে বেশি সুরক্ষিত। এবার এই অ্যাপে আরও কিছু নতুন ফিচার যুক্ত হল।

হোয়াটসঅ্যাপকে টেক্কা দিতে, মাসের প্রথম দিনেই লেটেস্ট আপডেট নিয়ে হাজির হয়েছে Telegram। এই নতুন আপডেটে যুক্ত হয়েছে সার্চ ফিল্টার (Search Filters), নামহীন গ্রুপ অ্যাডমিন (Anonymous Admins), চ্যানেল কমেন্ট (Channel Comments) সহ এক গুচ্ছ নতুন ফিচার। মনে করা হচ্ছে, এই নতুন ফিচারগুলি হোয়াটসঅ্যাপের বিকল্প অ্যাপ্লিকেশন হিসেবে টেলিগ্রামের জায়গা আরো মজবুত করবে। আসুন, এই নতুন ফিচারগুলি সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

প্রথমেই আসি ‘Search Filters’ ফিচারটির কথায়। সংস্থার সাম্প্রতিক ব্লগ পোস্ট অনুযায়ী, ইউজাররা নতুন সার্চ ফিল্টারগুলির মাধ্যমে মিডিয়া, লিঙ্ক, ফাইল ইত্যাদি সহজেই খুঁজে পাবেন। যেমন, কোনো নির্দিষ্ট তারিখে শেয়ার করা লিঙ্কগুলি অনুসন্ধান করার জন্য, ইউজারদের কেবল সেই তারিখ (৩০ সেপ্টেম্বর বা ইয়েস্টারডে) টাইপ করতে হবে। চোখের পলকে অ্যাপ্লিকেশনটি ইউজারের সামনে সমস্ত ফলাফল প্রদর্শন করবে। এছাড়া, ইউজাররা কোনো ব্যক্তি, গ্রুপ, চ্যানেল ইত্যাদির নাম অনুসারে একটি ফিল্টার দেখতে পাবেন। এই ফিল্টারগুলি কোনো নির্দিষ্ট শব্দ যুক্ত মেসেজ বা লিঙ্ক সার্চ করারও সুযোগ দেবে।

দ্বিতীয় ফিচারটি হল Anonymous Group Admins। এই ফিচারটির মাধ্যমে গ্রুপ অ্যাডমিনরা নিজেদের পরিচয় গোপন রাখতে পারবেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় বিক্ষুব্ধ পরিস্থিতি এড়াতেই এই নতুন টুলটি চালু করা হচ্ছে। এই ফিচারটির সাহায্যে অ্যাডমিনরা ব্যাটম্যান মোড এনাবেল করে, গ্রুপের বাকি সদস্যদের কাছে নিজেদের নাম গোপন করে রাখতে পারবেন।

এরপর আসি Channel Comment ফিচারটির কথায়। এখন থেকে টেলিগ্রামের ডিসকাশন চ্যানেল বা গ্রুপ পোস্টে, ফেসবুকের মত একটি কমেন্ট বাটন থাকবে। এতে গ্রুপের সদস্যরা নিজেদের মন্তব্য প্রকাশ করতে পারবেন। এই ফিচারটি সক্রিয় করতে চ্যানেল সেটিংসে গিয়ে ‘ডিসকাশন’ অপশনে ক্লিক করতে হবে। এছাড়া, কোনো ইউজার যদি চ্যানেলের ডিসকাশন গ্রুপের সদস্য না হয়, তাহলে তারা রিপ্লাই নামের নতুন একটি চ্যাট অপশনের মাধ্যমে তাদের মতামত জানাতে পারবে।

অন্যান্য ফিচার:

উপরোক্ত ফিচারগুলি ছাড়াও টেলিগ্রাম নতুন অ্যানিমেশন সহ আরো কিছু নতুন ফিচার এনেছে। যেমন, ইউজাররা, তাদের কীবোর্ডটিকে এক্সপেন্ড (প্রসারিত) বা হাইড (আড়াল) করতে পারবে। এছাড়া, দিন এবং রাতের জন্য আলাদা থিম স্যুইচ অপশন, অ্যাকাউন্ট স্যুইচার, মেসেজ ডিলিট করার সময় পপ আপ, মিডিয়া সেভ, নোটিফিকেশন পরিবর্তন ইত্যাদি ফিচার দেখা যাবে। শুধু তাই নয়, জানা গিয়েছে, Telegram এখন প্রতিটি ইমোজি অ্যানিমেটেড করার চেষ্টা করছে।