Telegram আনছে সাবস্ক্রিপশন প্ল্যান, দেখতে হবে না বিরক্তির বিজ্ঞাপন

Telegram-এর সাবস্ক্রিপশন নির্ভর আলোচ্য পরিষেবা ব্যবহারের জন্য কতটা অর্থ খরচের দরকার পড়বে সেই বিষয়েও দুরভ কিছু উল্লেখ করেননি

telegram-subscription-service-may-coming-soon-to-disable-ads-from-channel

পছন্দের অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহারের সময় মুহুর্মুহু বিজ্ঞাপন দেখতে হলে কারোর মেজাজ ঠিক থাকে না। উপরন্তু অ্যাপ্লিকেশন যদি কোনো জনপ্রিয় মেসেজিং প্ল্যাটফর্ম হয় তবে ক্ষণিকের মধ্যেই ইউজার তিতিবিরক্ত হয়ে ওঠেন। এর ফলে নষ্ট হয় অ্যাপের সামগ্রিক সুনাম, ধীরে ধীরে ব্যবহারকারীরা তার থেকে মুখ ফিরিয়ে নিতে থাকেন। অন্যান্য বহু অ্যাপ্লিকেশন এক্ষেত্রে নীরব থাকলেও, বিজ্ঞাপনের যন্ত্রণা থেকে ব্যবহারকারীকে রেহাই দিতে এবার ব্যবস্থা নিতে চলেছে টেলিগ্রাম (Telegram)। সম্প্রতি সংস্থার সিইও (CEO) পাভেল দুরভ নিজেই একথা জানিয়েছেন। তার বক্তব্য অনুযায়ী খুব তাড়াতাড়ি টেলিগ্রামে সাবস্ক্রিপশন ভিত্তিক বিজ্ঞাপন রোধের (Ad Disable) পরিষেবা দেখা যেতে পারে। এর ফলে এই অ্যাপের অগণিত ইউজার মাত্রাতিরিক্ত বিজ্ঞাপন দেখার যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পাবেন।

Telegram -এর বিজ্ঞাপনরোধী পরিষেবার জন্য দিতে হবে সাবস্ক্রিপশন চার্জ

বিজ্ঞাপনরোধী নতুন ফিচারের কথা বলতে গিয়ে টেলিগ্রাম সিইও দুরভের বক্তব্য আপাতত সাবস্ক্রিপশনের ভিত্তিতেই তারা এই পরিষেবা প্রদান করবেন। চলতি নভেম্বর মাসেই ফিচারটি টেলিগ্রাম অ্যাপ্লিকেশনে যুক্ত হতে পারে। যদিও সাবস্ক্রিপশন নির্ভর আলোচ্য পরিষেবা ব্যবহারের জন্য কতটা অর্থ খরচের দরকার পড়বে সেই বিষয়েও দুরভ কিছু উল্লেখ করেননি। তবে বেশ ‘সস্তা’ দামে এই পরিষেবা মিলবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

সাবস্ক্রিপশন নির্ভর টেলিগ্রামের নতুন পরিষেবার সাহায্যে ব্যবহারকারীরা তাদের চ্যানেলে বিজ্ঞাপনের আনাগোনা বন্ধ করতে পারবেন। এর ফলে চ্যানেলের কোনো সদস্যকে অহেতুক অ্যাড দেখতে হবে না। ব্যবহারকারী এবং কন্টেন্ট সরবরাহকারীদের অগ্রাধিকার দিয়ে এভাবেই তারা নিজেদের প্ল্যাটফর্মকে উন্নত করার কাজ চালিয়ে যাবেন বলে দুরভ মন্তব্য করেছেন।

আপাতত পরীক্ষামূলক পর্যায়ে থাকা আলোচ্য ফিচার সম্পর্কে Telegram সিইও এর থেকে বেশি আর কিছু জানাননি। তার কথায় বিষয়টি সম্পর্কে এখনো কিছু নিশ্চিত করে ওঠা তাদের পক্ষে সম্ভব হয়নি। উল্লেখ্য, বিভিন্ন স্পনসর্ড মেসেজ ও বিজ্ঞাপনগুলি সাধারণত ১০০০ জনের বেশি সাবস্ক্রাইবার যুক্ত চ্যানেলে প্রদর্শিত হয়। এই জাতীয় মেসেজ সাধারণত ১৬০ ক্যারেক্টারের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকে।

উপরে উল্লেখিত সাবস্ক্রিপশন ভিত্তিক বিজ্ঞাপনরোধী (Ad Disable) পরিষেবা ছাড়াও Telegram অ্যাপ্লিকেশনে আরো কিছু নতুন ফিচার অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হিসেবে হাইপার স্পিড স্ক্রলিং, ডেট বার, ক্যালেন্ডার ভিউ, চ্যাট থীম এবং অ্যাডমিন অ্যাপ্রুভাল সেটিং ফর ইনভাইট লিঙ্কস প্রভৃতি একাধিক ফিচারের কথা বলা যায়।

One of the newest members of the Techgup Family. Soumo grew his liking for gadgets almost a decade back while searching for his first smartphone, and started writing about tech recently in 2020