Tesla কে ভারতে ম্যানুফ্যাকচারিং হাব স্থাপনের জন্য আমন্ত্রণ জানাল গুজরাত সরকার

tesla-may-build-first-manufacturing-hub-in-the-country-in-gujarat

বেঙ্গালুরুতে টেসলা ইন্ডিয়া মোটরস অ্যান্ড এনার্জি প্রাইভেট লিমিটেড নামে একটি শাখা সংস্থা রেজিস্টার করার মাধ্যমে Tesla ভারতে অফিসিয়ালি তার সফর শুরু করেছে। এদেশের সড়কে টেসলার Model 3-কে ছুটতে দেখা এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা। টেসলার সর্বাধিক বিক্রীত এই মডেলের পর চলতি বছরের শেষে ও আগামী বছরের প্রথমে ভারতে আগমন ঘটবে টেসলার আরও দুটি প্রিমিয়াম বৈদ্যুতিন গাড়ি – Model S ও Model X-এর৷ জানা গেছে Tesla প্রাথমিকভাবে বিদেশ থেকে ভারতে গাড়ি আমদানি করবে। তবে নতুন একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে, Tesla ভারতে ম্যানুফ্যাকচারিং ফেসিলিটি স্থাপনের জন্য গুজরাতকে বেছে নিতে পারে।

ETAuto-তে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, গ্লোবাল অটোমোবাইল জায়েন্টদের, বিশেষত বৈদ্যুতিন যানবাহনের জন্য আদর্শ জায়গা হিসেবে পরিচিত গুজরাত টেসলাকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে। গুজরাত সরকার, এই বিষয় টেসলার সাথে আলোচনারত এবং গুজরাতের বন্দর শহরগুলি থেকে কার্যক্রম শুরু করার জন্য সমস্ত সম্ভাব্য সহায়তা এবং ইনসেন্টিভ দেওয়ার জন্য ইলন মাস্কের মালিকানাধীন সংস্থাটিকে আশ্বাস দিয়েছে। গুজরাতের খনি ও শিল্প বিভাগের ইনচার্জ এবং অতিরিক্ত চিফ সেক্রেটারি মনোজ দাস বলেছেন, বড় ইলেকট্রিক গাড়ি প্রস্তুতকারক এবং যানবাহনের ব্যাটারি প্রস্তুতকারীরা গুজরাতে তাদের ম্যানুফ্যাকচারিং ফেসিলিটি স্থাপন করেছে। আমরা আশাবাদী যে অন্যান্য গ্লোবাল গাড়ি প্রস্তুতকারীর মতো টেসলাও গুজরাতকে অগ্রাধিকার দেবে।”

যানবাহন আমদানি ও অ্যাসেম্বেল করার ক্ষেত্রে বন্দর শহরের অবস্থান বেশ সুবিধাজনক৷ সেক্ষেত্রে গুজরাত টেসলার প্রথম পছন্দ হয়ে উঠতে পারে৷ এই প্রসঙ্গে রাজ্যের দুটি বড় বন্দরের মধ্যে – কান্দলা ও মুন্ড্রর নাম ভেসে আসছে৷ মনোজ দাস জানিয়েছেন, “গত দু’মাসে আমরা টেসলার সাথে উল্লেখযোগ্যভাবে যোগাযোগ করেছি এবং আমাদের নতুন শিল্পনীতি এবং গুজরাতে থাকার অন্যান্য সুবিধাগুলি ব্যাখ্যা করেছি।”

ম্যানুফ্যাকচারিং ফেসিলিটি স্থাপনের জন্য টেসলা গুজরাত ও কর্ণাটক ছাড়াও অন্ধ্রপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র, এবং তামিলনাড়ুর সাথে আলোচনা করছে৷ এদিকে শোনা যাচ্ছে, কর্ণাটক সরকার উৎপাদন কেন্দ্র স্থাপনের জন্য বেঙ্গালুরু শহরের উপকন্ঠে অবস্থিত তুমাকুরুতে জমি দেওয়ার প্রস্তাব রেখেছে৷