সাবধান, এই অ্যাপগুলি ব্যবহার করলে ফাঁকা হবে অ্যাকাউন্ট, সতর্ক করলো Avast

these-200-fleeceware-apps-subscriptions-steal-over-400-million-says-avast

সাম্প্রতিককালে ভুয়ো বা ম্যালিশিয়াস অ্যাপের কথা আমাদের কারোরই অজানা নয়। প্রায়ই এই সংক্রান্ত বিষয় আমরা খবরের শিরোনামে দেখতে পাই। যদিও Google এবং Apple উভয়েই প্লে স্টোর এবং অ্যাপ স্টোরে ম্যালওয়্যার এবং অন্যান্য অবাঞ্ছিত সফটওয়্যার থেকে ব্যবহারকারীদের রক্ষা করতে বেশ কিছু পদক্ষেপ ইতিমধ্যে গ্রহণ করেছে, কিন্তু এরপরও গত কয়েক বছরে কিছু ভুয়ো অ্যাপের সংখ্যা বেড়েছে, যেগুলি ব্যবহারকারীদের ফ্রি ট্রায়ালের প্রলোভন দেখিয়ে তাদের প্রতারিত করছে এবং ইউজারদের অ্যাকাউন্ট থেকে বড়ো অঙ্কের টাকা চুরি করছে। এই অ্যাপগুলি তাদের ডেভেলপারদের জন্য ৪০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারেরও বেশি আয় করছে বলে সম্প্রতি জানা গেছে।

সিকিউরিটি ফার্ম, Avast একটি ব্লগ পোস্টে জানিয়েছে যে, Fleeceware নামে পরিচিত এই অ্যাপগুলি আপাতদৃষ্টিতে কার্যকরী পরিষেবার প্রলোভন দেখিয়ে একটি ফ্রি সাবস্ক্রিপশন ট্রায়ালের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ইউজারদের প্রলুব্ধ করছে। কিন্তু তারপর সরল-বিশ্বাসী গ্রাহকদের থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ চাওয়া হচ্ছে। সাধারণত ইউজারদের তিনদিনের ফ্রি ট্রায়াল অফার করার পর তাদের কাছ থেকে টাকা চাওয়া হচ্ছে। তাই যে সমস্ত ইউজাররা এই বিষয়টি ভালোভাবে বোঝে না, তাদের সাবধান করতে নীচে এই ধরনের অ্যাপগুলির একটি তালিকা দেওয়া হল।

১. Dynamic Wallpaper,
২. Gametris Wallpaper,
৩. MojiFont,
৪. Montage – Help you make cool videos,
৫. My Replica 2,
৬. Old Me-Simulate Old Face,
৭. Photo Converter,
৮. Prank Call,
৯. Recover deleted photos, Photo backup,
১০. Search by Image,
১১. Video Magician,
১২. Xsleep,
১৩. Zynoa Wallpaper
১৪. Compress Video.

Avast-এর গবেষকরা প্লে স্টোর এবং অ্যাপ স্টোরে এইরকম ২০০ টিরও বেশি অ্যাপের সন্ধান পেয়েছেন, যেগুলিতে একটি ফ্রি ট্রায়াল দেওয়ার পর ইউজারদের বছরে ৩৪৩২ ডলার পর্যন্ত চার্জ করা হয়। এই অ্যাপগুলির মধ্যে বেশিরভাগই হল মিউজিকাল ইন্সট্রুমেন্ট অ্যাপ, ক্যামেরা ফিল্টার, ইমেজ এডিটর,পাম রিডার( হস্তরেখা বিষয়ক) এবং ফরচুন টেলার (ভবিষ্যদবক্তা), QR-code এবং PDF রিডার, এমনকি স্লাইম সিমুলেটরও এর অন্তর্ভুক্ত। সবচেয়ে খারাপ এবং দুর্ভাগ্যজনক ব্যাপারটি হল, অ্যাপগুলির সাবস্ক্রিপশন বাতিল না করে আনইন্সটল করলেও চার্জ নেওয়া হচ্ছে।

Avast আরও জানিয়েছে যে, কার্যক্ষমতার দিক থেকে এই অ্যাপগুলি বিভ্রান্তিকর নয়। এই অ্যাপগুলির বেশিরভাগ ফিচারই কাজ করে। কিন্তু এই নীতিবিরুদ্ধভাবে গলাকাটা চার্জ করার বিষয়টি খুবই হতাশাজনক, বিশেষত যখন এটি একটি নির্দিষ্ট সময় অন্তর বারংবার চাওয়া হয়। এক সমীক্ষায় জানা গেছে, প্রায় কয়েক বিলিয়ন সংখ্যক বার প্লে স্টোর থেকে এই ধরনের অ্যাপগুলি ডাউনলোড করা হয়েছে।

নিজেদের কষ্টার্জিত টাকা সুরক্ষিত রাখতে এই ধরনের অ্যাপ ব্যবহার করার আগে জরুরি সতর্কতা অবলম্বন করার নির্দেশ দিয়েছে Avast। যে সমস্ত অ্যাপগুলি সাতদিনের কম সময়ের জন্য ট্রায়াল অফার করে সেগুলি ব্যবহারের আগে ইউজারদের প্রয়োজনীয় সতর্কতা অবলম্বন করতে এবং নিজেদের অ্যাকাউন্ট ব্যালেন্সের ওপর সূতীক্ষ্ণ নজর রাখতে বলা হয়েছে। এই জাতীয় অন্যান্য অ্যাপ ও সেই অ্যাপ-সংক্রান্ত যাবতীয় ফিচারের ওপরও গ্রাহকদের নজর রাখা উচিত বলে Avast জানিয়েছে। প্রয়োজনে ফেস আইডি এবং বায়োমেট্রিক লকের মাধ্যমে নিজস্ব কার্ডগুলি লক করতে হবে। শুধু নিজের ক্ষেত্রেই নয়, পরিবারের কোনো সদস্যও যাতে এই জাতীয় সমস্যার সম্মুখীন না হয় সেই ব্যাপারে তাদেরকেও যথাসম্ভব সতর্ক করতে হবে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন