ভারতের পর পাকিস্তানেও নিষিদ্ধ হল টিকটক, জেনে নিন কারণ

tiktok-banned-in-pakistan-over-vulgar-content

মাস চারেক আগে অবধি তরুণ প্রজন্মের একাংশই মজে ছিল TikTok-এ। শুধু তরুণ ইউজাররাই নয়, নারী-পুরুষ নির্বিশেষে এই শর্ট ভিডিও মেকিং অ্যাপটি বিভিন্ন বয়সের মানুষ বেশ উপভোগ করতেন। কিন্তু, গত জুন মাস থেকে এই চেনা সমীকরণ পাল্টে গেছে। প্রথমে ভারতে এবং পরবর্তীতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মত বিশ্বের বৃহত্তম বাজারগুলিতে নিষিদ্ধ হয়েছে জনপ্রিয় বিনোদন অ্যাপটি। আগামী দিনে অস্ট্রেলিয়াসহ আরো বেশ কিছু দেশে এই অ্যাপ্লিকেশনটি ব্যান হতে পারে এমন জল্পনাও আমরা আগেই শুনেছি।

এবার ফের আরেকটি বড়ধাক্কা খেল TikTok-। আসলে এবার, ভারতের প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তানেও ব্যান হতে চলেছে চীনা অ্যাপ্লিকেশনটি। গতকাল অর্থাৎ শুক্রবার, পাকিস্তানের তিন শীর্ষ সরকারি কর্মকর্তা জানিয়েছেন, পাক সরকার দেশে টিকটক ব্লক করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আগামী কয়েক ঘন্টার মধ্যেই এই বিষয়ে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করা হবে।

এই চরম সিদ্ধান্তের কারণ হিসেবে এক শীর্ষ কর্মকর্তা বলেছেন, টিকটককে বহুবার অনৈতিক ও অশালীন বিষয়বস্তুর উপস্থিতি আটকাতে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। এমনকি জুলাই মাসে, এই প্ল্যাটফর্মে প্রকাশিত একাধিক ভিডিও কন্টেন্টের জন্য টিকটককে সতর্কও করেছিল পাকিস্তানের টেলিকমিউনিকেশন নিয়ন্ত্রক। কিন্তু এই চীনা-বেসড প্ল্যাটফর্মটি পাকিস্তানী কর্তৃপক্ষকে সন্তুষ্ট করতে সক্ষম হয়নি। ফলস্বরূপ, টিকটককে এবার পাকিস্তান থেকেও পাততাড়ি গোটাতে হবে।

আর এক পাকিস্তানী কর্মকর্তা জানিয়েছেন, তাদের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এই বিষয়টিতে গভীরভাবে আগ্রহী হয়েছেন। তিনি, রক্ষণশীল ইসলামিক প্রজাতন্ত্রে অশ্লীল বিষয়বস্তুর প্রচার অবরুদ্ধ করার জন্যই এই নির্দেশনা দিয়েছেন। তবে, এখনো অবধি এই বিষয়ে টিকটক বা তার মূল সংস্থা বাইটড্যান্স কেউই কোনো মন্তব্য করেনি।