ব্যানের আশঙ্কার মধ্যেই ইয়াঙ্কিস এর সাথে জোট বাঁধলো টিকটক

সম্প্রতি একটি রিপোর্টে জানা গিয়েছিল, জুলাই মাসেও সবচেয়ে বেশি ডাউনলোড হওয়া অ্যাপের নাম টিকটক (TikTok)। যদিও ইতিমধ্যেই এই অ্যাপকে ভারতে ব্যান করা হয়েছে এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেও তদন্তাধীন অবস্থায় রয়েছে। ফলে আগামী দিনগুলিতে টিকটক, মার্কিন ইউজারদেরও হারাতে পারে। তবে হাত গুটিয়ে বসে নেই টিকটকও।

শুনলে অবাক হবেন, এই সংকটময় পরিস্থিতিতেও অন্য সংস্থার সাথে চুক্তি করে চলেছে টিকটক। সম্প্রতি আমেরিকার প্রফেশনাল বেসবল টিম ‘নিউইয়র্ক ইয়াঙ্কিস’ (New York Yankees), টিকটকের সাথে জোট বেঁধেছে। আসলে ইয়াঙ্কিস, সহজেই তরুণ ইউজারদের কাছে পৌঁছাতে চাইছে, তাই তারা টিকটককে নিজেদের স্পনসর করতে চলেছে।

ইয়াঙ্কিসের সাথে টিকটকের এই মাল্টি ইয়ার চুক্তির ফলে এখন থেকে টিকটকে, ইয়াঙ্কিসের কোনো ম্যাচের ‘বিহাইন্ড দ্য সিন’ অর্থাৎ পর্দার আড়ালে প্লেয়াররা কী করছেন তা দেখতে পাওয়া যাবে। অন্যদিকে ইয়াঙ্কি (Yankee) স্টেডিয়ামে জায়গা করে নেবে টিকটকের বিজ্ঞাপন। অর্থাৎ দুটি সংস্থাই এক্ষেত্রে লাভবান হবে।

কিন্তু যেখানে টিকটক, ট্রাম্প প্রশাসনের চাপের মুখে রয়েছে বা অ্যাপটি নিষিদ্ধ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে, সেখানে এই চুক্তি ধোপে টিকবে কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে। তবে শোনা যাচ্ছে, নিউইয়র্ক ইয়াঙ্কিস দলের প্রেসিডেন্ট রান্ডি লেভাইন, ডোনাল্ড ট্রাম্পের বেশ ঘনিষ্ঠ। তাই আপাতত টিকটকের ভাগ্যে কী আছে বলা মুশকিল!

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।