এক চার্জে চলবে ১৮০ কিমি পর্যন্ত, সেরা পাঁচটি ইলেকট্রিক টু-হুইলারের নাম জেনে নিন

Revolt RV 300
Revolt RV 300

তেল ভরতে ভরতে পকেটের যে শোচনীয় দশা হচ্ছে, তাতে মনে হয় একটা ইলেকট্রিক টু-হুইলার কিনলে বেশ সুবিধাই হত। এমন অনেকেই আছেন যাদের দিনে একবার হলেও মনে এমন ভাবনার উদয় হয়। সেইসঙ্গে এই চিন্তাটাও চলে আসতে বাধ্য যে একবার চার্জ দিলে কতটা পথই বা চালানো যাবে। ইলেকট্রিক টু-হুইলার কেনার সময় রাইডিং রেঞ্জ সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের মধ্যে একটি। কিন্তু, দেশে চার্জিং পরিকাঠামোর যা বেহাল দশা তাতে অনেকেই ইলেকট্রিক টু-হুইলার কিনতে সাহস পান না। গুরুত্বপূর্ণ একটা কাজে বেড়িয়ে পড়লাম কিন্তু মাঝরাস্তায় ব্যাটারি শেষ। আবার ধারেকাছে নেই কোনো চার্জিং পয়েন্ট। তখন হতাশার কোনো সীমা থাকে না। সৌভাগ্যক্রমে, দুর্দান্ত রাইডিং রেঞ্জ দেয় ভারতে এমন ইলেকট্রিক টু-হুইলারের সংখ্যা কিন্তু নেহাতই  কম নয়। ফুল চার্জে এরা প্রত্যেকেই ১০০ কিলোমিটারের ওপরে পথ পাড়ি দিতে পারবে।

কেউ যদি ইলেকট্রিক টু-হুইলার কিনবেন বলে মনস্থির করে ফেলেন। তাহলে এই প্রতিবেদনটি অবশ্যই মন দিয়ে পড়ুন। কারণ সবচেয়ে লম্বা রাইডিং রেঞ্জ দিচ্ছে ভারতের এমন চারটি সেরা ইলেকট্রিক স্কুটার এবং একটি ইলেকট্রিক বাইকের বিষয়ে আমরা আলোচনা করতে চলেছি। তবে শুরু করার আগে বলে রাখি, মেইনস্ট্রিম আইসিই বাইক নির্মাতাদের মতো এই ব্র্যান্ডগুলির দেশে সর্বত্র ডিলারশিপ পাবেন না।

১- Revolt RV 300 : দাম – ১.১০ লক্ষ টাকা

তালিকার প্রথমেই Revolt RV300 ইলেকট্রিক মোটরবাইকটিকে রাখতে হচ্ছে। ২.৭ কিলোওয়াট ব্যাটারির সাথে বাইকটি ১৮০ কিলোমিটারের লম্বা রাইডিং রেঞ্জ দেয়। তবে মনে রাখা দরকার, ইকো মোডে চালালে তবেই এতটা পথ সিঙ্গেল চার্জে যাওয়া যাবে। আবার মজার বিষয় হল, Revolt RV300-এর ডিজাইনই এমন যে প্রথম পলকে এটি পেট্রোল চালিত বাইক বলে মনে হবে।

২- Odysse Hawk Plus : দাম- ১.০৪ লক্ষ টাকা

Odysse Hawk Plus

ইলেকট্রিক টু-হুইলার মার্কেটে Odysse Hawk Plus নতুন পা রেখেছে। ফলে কোম্পানির ডিলারশিপ অল্প কয়েকটি শহরে উপলব্ধ। Odysse Hawk Plus-এর রাইডিং রেঞ্জ হল ১৭০ কিমি। আবার বাইকটি ফুল চার্জ হতে সময় নেয় ৪ ঘন্টা। থ্রি-পিন সকেটের মাধ্যমেই চার্জ দেওয়া যায়। স্কুটারটিতে ১.৮ কিলোওয়াট মোটর দেওয়া হয়েছে, যা সর্বোচ্চ ৪৫ কিমি/ঘন্টা গতিবেগ তুলতে পারে। ব্লুটুথ কানেক্টিভিটির পাশাপাশি Odysse Hawk Plus মোবাইল চার্জিং পোর্ট সহ এসেছে।

৩ – Hero Electric NYX HX

Hero Electric NYX HX

ভারতে বৈদ্যুতিক স্কুটার ব্যবসায় হিরো ইলেকট্রিককে অগ্রণী সংস্থার আখ্যা দেওয়া হয়। কিছু বেসিক ইলেকট্রিক স্কুটার লঞ্চের মাধ্যমে হিরো ইলেকট্রিক পথ চলা শুরু করেছিল। তবে বিগত কয়েকবছর ধরে হিরো ইলেকট্রিকের স্কুটারগুলি প্রিমিয়াম হয়ে ওঠার পাশাপাশি শহুরে রাস্তায় ব্রিলিয়ান্ট রাইড অফার করার জন্য পরিচিত হয়ে উঠেছে। হিরো ইলেকট্রিক গত বছরের অক্টোবরে NYX HX ভারতে লঞ্চ করেছিল। ৫১.২ ভোল্টের ৩০ অ্যাম্পিয়ার/আওয়ার ব্যাটারির চার্জ শেষ হওয়ার আগে স্কুটারটি ১৬৫ কিমি পথ চলতে পারবে। যদি আপনি ব্যবসায়ী হন, তাহলে FAME-2 সাবসিডি ধরলে NYX HX কেনার জন্য আপনাকে ৬৪,৪০০ টাকা খরচ করতে হবে। তবে প্রাইভেট ক্রেতাদের ক্ষেত্রে এই টাকার পরিমাণ ১.০৯ লক্ষ! এই টাকায় আপনি অবশ্য আরও ভাল পারফরম্যান্স ও ফিচারযুক্ত ইলেকট্রিক স্কুটার পেয়ে যাবেন।

৪- Okinawa i-Praise : দাম- ১.০৮  লক্ষ টাকা

Okinawa i-Praise

২০১৫ সালে পথ চলা শুরু করে ওকিনাওয়ার এখন লক্ষ্য, ভারতের নম্বর ওয়ান ইলেকট্রিক স্কুটার ব্র্যান্ড হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করা। সংস্থাটির ই-স্কুটারের মধ্যে i-Praise মডেলটি সবচেয়ে লম্বা রাইডিং রেঞ্জ দেয়। সিঙ্গেল চার্জে এটি ১৩৯ কিমি পথ চালানো যায়।

৫ – Benling Aura : দাম- ৯৩.২ লক্ষ টাকা

Benling Aura
Benling Aura

ভারতের ইলেকট্রিক টু-হুইলার মার্কেটে নবাগত ব্র্যান্ড Benling-এর পোর্টফোলিওতে চারটি ইলেকট্রিক স্কুটার রয়েছে। যাদের মধ্যে Aura বাদ দিয়ে বাকি তিনটি লো-স্পিড স্কুটার। ইকো মোডে এটি ১২০ কিমি পথ পাড়ি দিতে পারবে বলে দাবি করা হয়েছে৷ এর টপ স্পিড ৬০ কিমি/ঘন্টা।