ফোন কলের মাধ্যমে জালিয়াতি কমাতে Truecaller আনলো নতুন ফিচার

truecaller-now-allow-businesses-to-verify-their-identityas

ইদানিং কালে ফোন কলের মাধ্যমে জালিয়াতির ঘটনা যে হারে বাড়ছে, তাতে অচেনা কোনো নম্বর থেকে ফোন এলেই হাজারো চিন্তা আমাদের মাথায় ঘোরে। তাই এইসব অবাঞ্চিত ফোন কল বা প্রতারণার ঘটনাগুলিকে এড়াতে কলার আইডি অনুসন্ধানকারী স্মার্টফোন অ্যাপ্লিকেশন ‘Truecaller’ বর্তমানে আমজনতার মধ্যে বহুল পরিমানে ব্যবহৃত হয়। ইউজারদের উন্নত পরিষেবা দিতে অ্যাপটি প্রায়শই নতুন নতুন ফিচার আনে। সম্প্রতি তারা নামজাদা ব্যবসায়িক সংস্থা এবং স্টার্টআপগুলির জন্য এমনই একটি প্রিমিয়ার এন্টারপ্রাইজ ফিচার নিয়ে আসলো। যেখানে প্রতিটি সংস্থা তাদের পরিচয়ের বৈধতা প্রমান করার মাধ্যমে ট্রুকলারের এই ফিচারে তাদের নাম তালিকাভুক্ত করতে পারবে।

এই বিষয়ে Truecaller এর তরফে জানানো হয়েছে, ভেরিফায়েড ব্যবসায়িক সংস্থারগুলির নম্বর থেকে গ্রাহকদের যোগাযোগ করা হলে, তারা যাতে নিশ্চিন্তে সেই ফোনের উত্তর দিতে পারে সেই জন্য এই নতুন ফিচার রোল আউট করা হয়েছে। এই ফিচারের ফলে, বৈধ অ্যাকাউন্টগুলি থেকে ফোন আসা মাত্রই ইউজারদের মোবাইল স্ক্রিনের রং বদলে সবুজ হয়ে যাবে। সাথে অ্যাকাউন্টটি যে সত্যি আসল তা প্রমান করতে, সংস্থাটির নামের পাশে থাকবে টিক চিহ্ন ও ঠিক তার নীচেই থাকবে ‘verified badge’ লেখাটিও। এছাড়াও ফিচারটি সম্পর্কে ট্রুকলারের দাবী, বিটা ট্রায়ালগুলিতে বৈধ নাম এবং লোগোর সহযোগে ব্যবসায়িক সংস্থাগুলি মারফৎ করা ফোন কলের ক্ষেত্রে ‘কল-পিকআপ’ -এর হার উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রসঙ্গত জানিয়ে রাখা ভালো, বর্তমানে ট্রুকলারের এই ফিচারটি ডিফল্টরূপে বিশ্বব্যাপী ২৭০ মিলিয়ানেরও বেশি অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস ইউজারদের কাছে উপলব্ধ করা হয়েছে।

রিপোর্ট অনুযায়ী, ট্রুকলারের এই নতুন ফিচারটির প্রাথমিক অ্যাক্সেস পর্বে, ১৫০ টিরও বেশি ব্যবসায়িক সংস্থা উক্ত প্রোগ্রামটির জন্য সাইন আপ করেছিল। বলাই বাহুল্য, ট্রায়ালে অংশগ্রহণকারী প্রতিটি সংস্থাই ‘কল-পিকআপ’ -এর ক্ষেত্রে ট্রুকলারের এই ফিচারটির পরিষেবারকে যথেষ্ট লাভজনক বলেই স্বীকার করেছে। এ প্রসঙ্গে, প্রাথমিক অ্যাক্সেস পর্বে অংশ নেওয়া Dunzo সংস্থাটির প্রোডাক্ট ডিরেক্টর ব্রিজেশ ভরদ্বাজ জানান, “ট্রুকলার বিজনেস আইডেন্টিটির সাথে, গ্রাহকদের অর্ডার পৌঁছনোর সময় আমাদের ডেলিভারি পার্টনারদের করা ফোন কলগুলিতে ‘কল-পিকআপ’ -এর মাত্রা ১১% বৃদ্ধি পেয়েছিল।”

ছদ্মবেশী হ্যাকারদের করা স্ক্যাম কলগুলি প্রতিরোধের মাধ্যমে গ্রাহকদের সুরক্ষা বাড়ানোর পাশাপাশি, সংস্থাগুলির প্রতি তাদের আস্থা জোগাতেই মূলত এই ফিচারটিকে নিয়ে আসা হয়েছে বলে জানা গেছে। সুতরাং, যেসব ব্যবসায়িক সংস্থা এবং স্টার্টআপগুলি তাদের ব্রান্ডের কার্যকারিতা ও সুনামের ব্যাপারে সচেতন তাদের জন্য ট্রুইকলারের এই ফিচারটি যে বিশেষ সহায়ক হবে তাতে সন্দেহ নেই।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।