HomeটেলিভিশনAcer H S Series TV: পুজোর আগেই সস্তায় ৩২ থেকে ৬৫ ইঞ্চির টেলিভিশন নিয়ে হাজির এসার

Acer H S Series TV: পুজোর আগেই সস্তায় ৩২ থেকে ৬৫ ইঞ্চির টেলিভিশন নিয়ে হাজির এসার

এসার (Acer)-এর অফিসিয়াল লাইসেন্সধারী সংস্থা ইন্ডকাল টেকনোলজিস (Indkal Technologies) ভারতে বাজারে Acer H এবং S-সিরিজের টেলিভিশনগুলি লঞ্চ করেছে। প্রথমটি ইউএইচডি (UHD) রেজোলিউশন সহ চারটি ভ্যারিয়েন্টে এসেছে, যেখানে দ্বিতীয় লাইনআপটি এইচডি (HD) এবং ইউএইচডি দুটি সংস্করণে উপলব্ধ। Acer H সিরিজের টেলিভিশনগুলি ৪৩, ৫০ এবং ৫৫ ইঞ্চি-এই তিনটি স্ক্রিন সাইজ অফার করে। Acer S-সিরিজে রয়েছে ৩২ জিবি এবং ৬৫ ইঞ্চির দুটি মডেল। আসুন টেলিভিশনগুলির দাম এবং স্পেসিফিকেশন সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে জেনে নেওয়া যাক।

এসার এইচ এবং এসার এস সিরিজের দাম ও লভ্যতা – Acer H-series and S-series Price in India and Availability

ভারতে এসার এস-সিরিজের ৩২ ইঞ্চির ভ্যারিয়েন্টের দাম রাখা হয়েছে ১৪,৯৯৯ টাকা এবং ৬৫ ইঞ্চির মডেলের মূল্য ৬৪,৯৯৯ টাকা। অন্যদিকে, এসার এস-সিরিজের ৪৩ ইঞ্চি, ৫০ ইঞ্চির এবং ৫৫ ইঞ্চির মডেলের দাম যথাক্রমে ২৯,৯৯৯ টাকা, ৩৪,৯৯৯ টাকা এবং ৩৯,৯৯৯ টাকা। টেলিভিশনগুলি লিডিং ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মগুলির পাশাপাশি সারা দেশের রিটেইল স্টোরগুলি থেকে কেনার জন্য উপলব্ধ হবে।

ভারতে এসার এইচ এবং এসার এস সিরিজের টেলিভিশনগুলির স্পেসিফিকেশন – Acer H-series and S-series Specifications

এসার এস টেলিভিশন সিরিজের টিভিগুলি যথাক্রমে এইচডি এবং ইউএইচডি রেজোলিউশন সহ ৩২ ইঞ্চি এবং ৬৫ ইঞ্চি- এই দুই স্ক্রিন সাইজে এসেছে। ৩২ ইঞ্চির মডেলটি এইচডিআর১০+ সাপোর্ট এবং ডলবি অ্যাটমসের সাথে ৪০ ওয়াট সাউন্ড আউটপুট অফার করে। আবার, এসার এস-সিরিজ ৬৫ ইঞ্চির মডেলটি ৪২০ নিট ব্রাইটনেসের সাথে ইউএইচডি ৪কে ভিডিও রেজোলিউশন অফার করে। এছাড়াও, এটি ১.০৭ বিলিয়ন কালার, এইচডিআর১০+, এইচএলজি এবং ডলবি ভিশন সাপোর্ট করে। এই টিভিটি ডলবি অ্যাটমসের সাথে ৫০ ওয়াট সাউন্ড আউটপুটও প্রদান করে।

অন্যদিকে, এসার এইচ-সিরিজটি ৪৩, ৫০ এবং ৫৫ ইঞ্চির স্ক্রিন সাইজে এসেছে, যা ৪কে ইউএইচডি রেজোলিউশন সাপোর্ট করে। এগুলি এস-সিরিজের ৬৫ ইঞ্চির মডেলের মতো একই ডিসপ্লে স্পেসিফিকেশনগুলি অফার করে। ডলবি অ্যাটমস দ্বারা টিউন করা এইচ-সিরিজের টিভিগুলির সাউন্ড আউটপুট ৬০ ওয়াট।

এসার এইচ এবং এস-সিরিজের টেলিভিশনগুলি বেজেল-লেস ডিসপ্লে এবং একটি প্রিমিয়াম মেটাল ফিনিশ সহ এসেছে। দুটি টেলিভিশন লাইনআপেই ডিজিট্যাল নয়েজ রিডাকশন, এমইএমসি প্রযুক্তি, মাইক্রো ডিমিং, ইন্টেলিজেন্ট ফ্রেম স্ট্যাবিলাইজেশন ইঞ্জিন, ব্লু লাইট রিডাকশন এবং গুগল ডুও (Google Duo)-এর মাধ্যমে ভিডিও কল সাপোর্ট- এর মতো ফিচারগুলি অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

এছাড়া, Acer S-সিরিজ এবং H-সিরিজের টেলিভিশনগুলো কর্টেক্স-এ৫৫ (Cortex-A55) প্রসেসর দ্বারা চালিত। S সিরিজের ৩২ ইঞ্চির ভ্যারিয়েন্টে ১.৫ জিবি র‍্যাম এবং ৮ জিবি ইন-বিল্ট স্টোরেজ রয়েছে, যেখানে মসৃণ অভিজ্ঞতার জন্য অন্য চারটি টেলিভিশনে ২ জিবি র‍্যাম এবং ১৬ জিবি অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ পাওয়া যাবে।

Acer S এবং H-সিরিজ টিভিগুলি নেটফ্লিক্স, প্রাইম ভিডিও, ডিজনি+ হটস্টার এবং ইউটিউবের মতো প্রি-ইনস্টল করা স্ট্রিমিং অ্যাপ সহ গুগল (Google) সার্টিফায়েড অ্যান্ড্রয়েড ১১ অপারেটিং সিস্টেমে চলে। এই এসারের টেলিভিশনগুলির কানেক্টিভিটি অপশনগুলির মধ্যে সামিল রয়েছে তিনটি এইচডিএমআই ২.১ (HDMI 2.1) পোর্ট, একটি ইউএসবি ২.০ (USB 2.0) পোর্ট এবং ইউএসবি ৩.০ (USB 3.0) পোর্ট, ওয়াইফাই এবং ব্লুটুথ।

আরও পড়ুন