ফের দাম বাড়লো TVS Apache RR 310 এর, জানুন এখন কত দামে পাবেন

tvs-apache-rr-310-bs6-price-increased-in-india-know-new-price

সম্প্রতি মোটরসাইকেল প্রস্তুতকারী বিভিন্ন কোম্পানি তাদের বাইকের মূল্য বৃদ্ধি করছে। এবার TVS ও সেই পথে হাঁটলো। TVS তাদের অ্যাপাচি সিরিজের বাইকগুলির দাম বৃদ্ধি করেছে। ভারতের বাজারে TVS Apache RR 310 BS6 বাইকটির দাম প্রায় ৫০০০ টাকা বেড়েছে। বর্তমানে এই বাইকটির দিল্লির এক্স শোরুম মূল্য প্রায় ২.৪৫ লাখ টাকা। দাম বৃদ্ধি নিয়ে কোম্পানির তরফ থেকে কোন স্পষ্ট কারণ জানানো হয়নি, তাও ধারণা করা যায় কোভিড-১৯ এর প্রাদুর্ভাবের কারণে কোম্পানির বাইক বিক্রি ও সাপ্লাই চেইন ব্যাহত হওয়ায় এই সিদ্ধান্ত।

২০১৮ সালে TVS প্রথম ভারতে Apache RR 310 BS4 লঞ্চ করেছিল। সম্প্রতি এই বছরের জানুয়ারি মাসে কোম্পানি বাইকটির BS6 ভার্সন লঞ্চ করে। সেই সময় পুরোনো মডেলের তুলনায় বাইকটির দাম ১২,০০০ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছিল। কিন্তু এখন বাইকটির দাম আরও ৫০০০ টাকা বাড়লো। তবে জানিয়ে রাখি কোম্পানি দাম বৃদ্ধির সাথে সাথে বাইকটিতে কিছু যান্ত্রিক পরিবর্তন ও অত্যাধুনিক প্রযুক্তির সংযোজন করেছে। আসুন TVS Apache RR 310 BS6 এ কি কি নতুন ফিচার পাবেন, তা দেখে নেওয়া যাক:

TVS Apache RR 310 এর নতুন মডেলটিতে রাইড বাই ওয়ার প্রযুক্তি আছে। এই প্রযুক্তির মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা চারটি রাইডিং মোড পাবেন। সেগুলি হল উর্বান, ট্রাক, স্পোর্ট এবং রেন। বাইকে একটি ৫ ইঞ্চির টিএফটি ইন্সট্রুমেন্টাল প্যানেল দেওয়া হয়েছে যেখানে স্পিড, ট্রিপমিটার, ওডোমিটার, গিয়ার পজিশন ইন্ডিকেটর ইত্যাদি তথ্য পাওয়া যাবে। এছাড়াও এতে অত্যাধুনিক SmartXonnect ব্লুটুথ সিস্টেম আছে, যার মাধ্যমে আপনার স্মার্টফোনের সাথে বাইকটি কানেক্ট করতে পারবেন। এই বাইকে নতুন গ্লাইড থ্রু টেকনোলজি প্লাস ফিচার আছে, যার মাধ্যমে ক্লাচ লিভার ছেড়ে প্রথম ও দ্বিতীয় গিয়ার পরিবর্তন করা যাবে। এর জন্য চালকের যানজটের মধ্যে বাইকটি চালাতেও কোন অসুবিধা হবে না।

ইঞ্জিন:

এই বাইকটিতে সিঙ্গেল সিলিন্ডার, ফুয়েল ইঞ্জেক্টেড ৩১৩ সিসির BS6 ইঞ্জিন আছে। এটি ট্রাক বা স্পোর্ট মোডে সর্বোচ্চ ৩৪ বিএইচপি পাওয়ার ও ২৭.৩ এনএম টর্ক জেনারেট করে। আবার রেন মোডে সর্বোচ্চ ২৫ বিএইচপি পাওয়ার ও ২৫ এনএম টর্ক দেয়। এছাড়া বাইকটিতে স্লিপার ক্লাচ সমেত ৬ স্পিড গিয়ার বক্স আছে। প্রসঙ্গত মূল্য বৃদ্ধির পরেও TVS Apache RR 310 বাইকটি তার সমকক্ষের অন্যান্য বাইক যেমন KTM RC 390 এর চেয়ে দাম কম আছে।