চীনা কোম্পানির বদলে ব্রিটেনে 5G নেটওয়ার্কের উপর কাজ করতে পারে জাপান

সময়টা একেবারেই ভালো যাচ্ছেনা চীনের। ইতিমধ্যেই ভারতের সাথে সম্পর্কে বেশ তিক্ততা এসেছে, যার জেরে ভারতে ব্যান হয়েছে ৫৯টি চীনা অ্যাপ্লিকেশন। অন্যদিকে ব্রিটেন বা আমেরিকা সরকারও চীনকে মোটেই ভালো চোখে দেখছেনা। এবার চীনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে, 5G নেটওয়ার্ক নিয়ে জাপানের সাথে হাত মেলাতে চলেছে যুক্তরাজ্যের সরকার।

আসলে কয়েকদিন আগেই চীনের হুয়াওয়ে সংস্থা নিষিদ্ধ হয়েছে ব্রিটেনে। ওই সংস্থাটি যুক্তরাজ্যে 5G নেটওয়ার্কের ওপর কাজ করছিল। এই পরিস্থিতিতে, 5G ওয়্যারলেস নেটওয়ার্ক বিকাশে জাপানের সাহায্য চেয়েছে যুক্তরাজ্য সরকার। সম্প্রতি এই বিষয়ে টোকিওতে দুই দেশের কর্তৃপক্ষের মধ্যে একটি বৈঠক হয়েছে।

প্রসঙ্গত, যুক্তরাজ্য থেকে ২০২৭ সালের মধ্যে পাততাড়ি গোটাতে বলা হয়েছে হুয়াওয়েকে। পাশাপাশি হুয়াওয়ের সমস্ত 5G নেটওয়ার্কের সরঞ্জামগুলিকেও অপসারণ করতে বলা হয়েছে। বেশ কয়েকদিন আগে আমেরিকাতেও নিষিদ্ধ হয়েছে ওই চীনা সংস্থা। জানা গেছে ভারতের মতো আমেরিকাতেও চীনা অ্যাপকে ব্যান করা হতে পারে।

এদিকে জাপানের সাথে ব্রিটেন ৫জি নিয়ে আলোচনা সারলেও, বাস্তবে জাপান এবিষয়ে কতটা ব্রিটেন কে সাহায্য করতে পারে সেই নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে বিশেষজ্ঞ মহলে। কারণ ৫জি নিয়ে জাপান অন্যান্য দেশের তুলনায় অনেক পিছিয়ে। যদিও কিছুদিন আগে শোনা যাচ্ছিলো, জাপান ৬জি এর উপর জোর কদমে কাজ করছে। এখন দেখার সত্যি ভবিষ্যতে জাপান ব্রিটেনকে ৫জি নেটওয়ার্ক চালু করার জন্য সাহায্য করতে পারে কিনা।

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।