ওজন স্তর নিয়ে সচেতনতা বাড়াতে ভিডিও গেম আনছে ইউনাইটেড নেশন

united-nations-announced-reset-earth-game-to-save-the-ozone-layer

বায়ুমন্ডলের ওজোন স্তর সূর্যের অতিবেগুনী রশ্মি শোষণের মাধ্যমে কিভাবে ভূপৃষ্ঠে বিচরণ করা জীবকূলকে ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা করে আসছে তা আমরা কমবেশী জানি। পরিবেশ দূষণ বৃদ্ধি পাওয়ায় ফলে মানবসভ্যতার রক্ষাকারী এই ওজন স্তরে হোল বা ফুঁটো সৃষ্টি হওয়ার ঘটনা আমাদের উদ্বেগ বাড়াচ্ছে। রেফ্রিজারেশন, এয়ার-কন্ডিশানিং, এরোসল স্প্রে-র জন্য ব্যবহৃত ক্লোরোফ্লুওরোকার্বন এবং হাইড্রোফ্লোরোকার্বনের মতো রাসায়নিক গ্যাস ওজোন স্তরের বিনাশে অনুঘটকের ভূমিকা পালন করছে। জাতিসংঘ (ইউনাইটেড নেশনস)-এর পরিবেশ বিশেষজ্ঞরা যে প্রধান বিষয়গুলিতে মনোনিবেশ করছেন সেগুলির মধ্যে ওজোন হ্রাস হল অন্যতম প্রধান বিষয়। এটি একটি পরিবেশগত সমস্যা যা নিয়ে জাতিসংঘ বিশেষত তরুণদের মধ্যে সচেতনতা বাড়াতে সচেষ্ট হচ্ছে। এই লক্ষ্যেই জাতিসংঘ একটি ভিডিও গেম ও ফিল্ম তৈরি করে ফেলেছে।

২৪ জানুয়ারি অর্থাৎ আগামীকাল বিশ্ব শিক্ষা দিবস উদযাপনের অংশ হিসেবে জাতিসংঘ রিসেট আর্থ (Reset Earth) নামে একটি অ্যানিমেশন ফিল্ম ও ভিডিও গেম রিলিজ করতে চলেছে৷ রিসেট আর্থ চলচ্চিত্রটি কাল মুক্তি পেলেও গেমটি ১০ ফেব্রুয়ারি অ্যান্ড্রয়েড (Android) ও আইওএস (IOS) প্ল্যাটফর্মে লঞ্চ হবে৷ 

ফিল্মটি ২০৮৪ সালের এক পটভূমিতে নির্মিত৷ যখন ওজোন স্তরের বিনাশের ফলে জীবকূল অস্তিত্ব সংকটে পড়েছে৷ গল্পটি এগোবে তিন কিশোর-কিশোরীর চরিত্রকে কেন্দ্র করে যারা ওজোন স্তর এবং পরবর্তীতে পৃথিবীতে জীবন নিঃশ্চিহ্ন হওয়ার কারণ একটি মিশনের মাধ্যমে খুঁজবে৷

আবার রিসেট আর্থ মোবাইল গেমটি একটি সিঙ্গেল প্লেয়ার প্ল্যাটফর্ম গেম। এখানে রেট্রো গ্রাফিক্স স্টাইল এবং হাতে আঁকা আর্টওয়ার্ক থাকবে এবং গেমটি ফিল্মের মতনই কাহিনী অনুসরণ করবে। খেলোয়াররা চরিত্রের মধ্যে স্যুইচ করে গেমের চারটি স্তর জুড়ে তাদের অনন্য ক্ষমতা ব্যবহার করবে। সেইসঙ্গে থাকবে পরিবেশ সুরক্ষার পাঠও। খেলোয়াররা বিভিন্ন ধাঁধা আনলকের মাধ্যমে পরিবেশের ইতিহাস ও গ্রহ রক্ষার বিজ্ঞান সর্ম্পকে শিখতে পারবেন।

‘রিসেট আর্থ’ এক বছর ব্যাপী একটি শিক্ষামূলক উদ্যোগ হিসেবে শুরু হয়েছে। যার উদ্দেশ্য বিশ্বজুড়ে ওজোন স্তরের সুরক্ষিত রাখার বিষয়ে সচেতনতা গড়ে তোলা। যৌথ পদক্ষেপের মাধ্যমে কী অর্জন করা যায় এবং পরিবেশগত দায়বদ্ধতা ও মালিকানাবোধ নিয়ে রিসেট আর্থ যুবসমাজের মধ্যে একটি ইতিবাচক বার্তা বহন করবে।

ওজোন সচিবালয়ের ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী সম্পাদক মেগ সেকি বলেছেন, “ওজোন স্তরের সুরক্ষা একটি সম্পন্ন চুক্তি হিসেবে বিবেচনা করা যায় না। এটি অবশ্যই আমাদের এবং ভবিষ্যতের প্রজন্মের দ্বারা একটি ধারাবাহিক প্রচেষ্টা হতে হবে। আমাদের শিশুরা যদি কোনও কল্পনাপ্রসূত কার্টুন এবং গেম অ্যাপের মাধ্যমে ধ্বংসপ্রাপ্ত ওজোন স্তরের মারাত্মক পরিণতি সর্ম্পকে জানতে পারে, তবে তারা এর গুরূত্ব সর্ম্পকে সচেতন হবে এবং এটি রক্ষা করতে সচেষ্ট হবে।”