ভারতে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে চীনা অ্যাপ Vigo ভিডিও, জেনে নিন কারণ

Vigo অ্যাপ ইউজারদের জন্য দুঃসংবাদ। চাইনিজ ইন্টারনেট জায়েন্ট বাইটড্যান্স ভারতে ভিগো ভিডিও এবং ভিগো লাইট দুটি অ্যাপ বন্ধ করতে চলেছে চলতি বছরের অক্টোবর মাসে। ভিগোর বদলে সংস্থাটি ইউজারদের TikTok অ্যাপ উপভোগ করার জন্য অনুরোধ করেছে।

যারা এই অ্যাপ সম্পর্কে জানতেন না, তাদের জানিয়ে রাখি ভিগো ভিডিও স্বল্প দৈর্ঘ্যের ভিডিও শেয়ার করার প্ল্যাটফর্ম, যেখানে ১৫-সেকেন্ডের ভিডিও পোস্ট করা যায়। অ্যাপ্লিকেশনটি ব্যবহারকারীদের আরও কিছু ফিচার যেমন ভিডিওতে স্পেশাল এফেক্ট, স্টিকার এবং লিপ-সিঙ্কে গান ইত্যাদি অ্যাড করতে দেয়। ভিগো ভিডিও লাইট, মূল অ্যাপ্লিকেশনটির একটি স্ট্রিপড ডাউন সংস্করণ এবং যা কম র‌্যাম এবং স্টোরেজের ফোনের ইউজারদের জন্য। এটির ইন্টারফেসটি টিকটকের মতোই।

সম্প্রতি সংস্থাটি ইন-অ্যাপের ঘোষণায় ব্যবহারকারীদের জানিয়েছে যে অ্যাপ্লিকেশনটি ২০২০ সালের ৩১ শে অক্টোবর বন্ধ হয়ে যাবে। এতে টিকটকের একটি ডাউনলোড লিঙ্ক অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। যার সাহায্যে ভিগো ইউজাররা সহজেই তাদের অ্যাকাউন্টগুলি টিকটকে মাইগ্রেট করতে পারবেন।

টেকক্রাঞ্চের মতে, অ্যাপটি ভারতে টিকটকের মতো আশানুরূপ সাফল্য পায়নি। যেখানে টিকটকের ২০০ মিলিয়ন সক্রিয় ইউজার বেস সেখানে ভিগো ভিডিওর সক্রিয় ইউজার মাত্র ৪ মিলিয়ন। এদিকে ভিগো অ্যাপ বন্ধ করার ঘোষণাটি এমন সময়ে এসেছে যখন টিকটক বিশ্বব্যাপী নিয়ন্ত্রকদের বিচার বিবেচনাধীন। জানিয়ে রাখি, গত মাসেই সংস্থাটি ওয়াল্ট ডিজনির শীর্ষস্থানীয় স্ট্রিমিং এক্সিকিউটিভ কেভিন মায়ারকে তার নতুন চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার হিসাবে নিযুক্ত করেছে।

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।