Vivo ইউজারদের জন্য সুখবর, দেখুন কবে পাবেন অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক ফানটাচ ওএস আপডেট

vivo-announced-android-11-based-funtouchos-update-roadmap

গত বছরের মাঝামাঝি সময়ে জনপ্রিয় স্মার্টফোন নির্মাতা Vivo জানায় যে তারা FunTouchOS নামের অ্যান্ড্রয়েড UI (ইউজার ইন্টারফেস)-টি বন্ধ করে দেবে, পরিবর্তে চালু হবে Origin OS নামের নতুন কাস্টম স্কিন। এরপর, গত নভেম্বর মাসে চীনা সংস্থাটি নতুন Origin OS চালু করে বটে, কিন্তু নির্দিষ্ট কিছু ডিভাইসে FunTouchOS-এর অস্তিত্ব বজায় রাখে আগের মতই। এমনকি এও জানা যায় যে, Vivo তার FunTouchOS-এর সাথে লেটেস্ট অ্যান্ড্রয়েড ১১ অপারেটিং সিস্টেমের সামঞ্জস্য বিধানের কাজ করছে। তবে গতকাল সংস্থাটি তার ভারতীয় ইউজারদের জন্য অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক ফানটাচ ওএসের বিটা সংস্করণটির রোলআউট শিডিউল ঘোষণা করেছে। আগামী জুন মাস অবধি এই রোলআউট প্রক্রিয়া চলবে বলে জানা গিয়েছে।

এই প্রসঙ্গে বলে রাখি, গত অক্টোবর মাসে Vivo V20 ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক ফানটাচ ওএস (স্টেবল ভার্সন) সহ এসেছিল। এরপর গতমাসে Vivo X50 Pro ডিভাইসটি এই আপডেট পায়। তবে সংস্থাটি তার পুরনো মডেলগুলির জন্য এতদিন শিডিউল ঘোষণা করতে পারেনি।

তবে এখন, টুইটারে অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক ফানটাচ ওএসের বিটা সংস্করণটির রোলআউট শিডিউলটি প্রকাশ করেছে ভিভো (Vivo)। দেখা গেছে, এই আপডেট শিডিউলে বাজেট রেঞ্জ থেকে শুরু করে প্রিমিয়াম রেঞ্জের ডিভাইস তালিকাভুক্ত রয়েছে। সেক্ষেত্রে, ভিভো স্পষ্ট করে জানিয়েছে যে ব্যাচ-বাই-ব্যাচের ভিত্তিতে ইউজাররা এই আপডেটটি পাবেন। এই মাসের শেষ থেকেই এই আপডেটটি উপলব্ধ হবে, প্রথমে Vivo V19 এবং Vivo X50-র ইউজাররা এই আপডেট পাবেন। এরপর চলতি বছরে মার্চ মাসের শেষে Vivo V17, Vivo V17 Pro, Vivo V15 Pro এবং Vivo S1 ফোনগুলি এই বিটা আপডেট পাবে।

এপ্রিলের শেষ দিকে Vivo S1 Pro, Vivo Z1x এবং Vivo Z1 Pro ফোনে অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক ফানটাচ ওএসের বিটা আপডেটটি উপলব্ধ হবে। এবং জুন মাসের শেষে Vivo V15 মডেলটিতে এই আপডেট আসবে।

কী কী নতুন ফিচার থাকবে এই FunTouchOS আপডেটে

রিপোর্ট অনুযায়ী, এই নতুন আপডেটে অ্যান্ড্রয়েড ১১-র বেশ কিছু মজাদার ফিচার যেমন চ্যাট বাবল, কনভারশেসন নোটিফিকেশন, রিডিজাইন মিডিয়া কন্ট্রোল, বিল্ট-ইন স্ক্রিন রেকর্ডিং, আপডেট পাওয়ার মেনু ইত্যাদি দেখতে পাওয়া যাবে।