সস্তা Vivo Y21 কেনা যাবে হাজার টাকা ডিসকাউন্টে, Jio গ্রাহকদের জন্য রয়েছে স্পেশাল অফার

Vivo Y21 ভিভো ওয়াই২১ ফোনটি কেনার ১৫ দিনের মধ্যে মাই জিও অ্যাপ ব্যবহার করে জিওএক্সক্লুসিভ বেনিফিটের লাভ ওঠানো যাবে

vivo-jio-join-hands-to-provide-cashback-offer-on-vivo-y21-smartphones

জনপ্রিয় স্মার্টফোন ব্র্যান্ড Vivo এবং শীর্ষস্থানীয় টেলিকম সংস্থা Reliance Jio এবার একজোট হল। ভারতীয় ক্রেতাদের, সেরা মানের স্মার্টফোনের সাথে উন্নত কানেক্টিভিটি ও ডিজিটাল অ্যাপ ইকোসিস্টেম ব্যবহারের অতুলনীয় অভিজ্ঞতা প্রদান করতেই মূলত এই দুটি ব্র্যান্ড হাত মেলানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। Vivo এবং Jio যৌথভাবে ভারতীয় গ্রাহকদের ‘টপ ক্লাস’ কোয়ালিটির প্রোডাক্ট এবং ডিজিটাল সলিউশন অফার করবে বলে জানিয়েছে।

পাশাপাশি দুই সংস্থার তরফে ঘোষণা করা হয়েছে, আগস্ট মাসে লঞ্চ হওয়া Vivo Y21 স্মার্টফোনের সাথে ১,০০০ টাকার ইনস্ট্যান্ট ক্যাশব্যাক এবং রিলায়েন্স রিটেল লিমিটেডের তরফ থেকে বহুবিধ অতিরিক্ত সুবিধা দেওয়া হবে।

Vivo Y21 স্মার্টফোন কিনলে দেওয়া হবে ১,০০০ টাকার ক্যাশব্যাক

ভিভো-জিওর এই যৌথ অফার আজ অর্থাৎ ৭ই অক্টোবর থেকে লাইভ হয়েছে। এই অফারের অধীনে, জিও সিমের সাথে ভিভো ওয়াই২১ স্মার্টফোনটি কিনলে ক্রেতাদের ১,০০০ টাকার ইনস্ট্যান্ট ডিসকাউন্ট দেওয়া হবে এবং রিলায়েন্স রিটেল লিমিটেডের তরফ থেকে পাওয়া যাবে একাধিক বেনিফিট।

সেক্ষেত্রে, ভিভো ওয়াই২১ ফোনটি কেনার ১৫ দিনের মধ্যে ‘মাই জিও’ (MyJio) অ্যাপ ব্যবহার করে ‘জিওএক্সক্লুসিভ’ (JioExclusive) বেনিফিটের লাভ ওঠানো যাবে। এর জন্য প্রথমেই ‘মাই জিও’ অ্যাপ ওপেন করতে হবে। তারপর ‘জিওএক্সক্লুসিভ’ সেকশনে গিয়ে নিজেদের UPI আইডি শেয়ার করতে হবে। এরপর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে টাকা ঢুকে যাবে। এই অফার সমস্ত বিদ্যমান ও নবাগত জিও ইউজারদের জন্য প্রযোজ্য। ফোনের স্টক শেষ না হওয়া পর্যন্ত এই অফারটি পাওয়া যাবে।

উক্ত অফারটি ঘোষণা করার সময়ে ভিভো ইন্ডিয়ার ব্র্যান্ড স্ট্র্যাটেজির পরিচালক নিপুন মারিয়া মন্তব্য করেন, “ভিভো’র প্রত্যেকটি সিদ্ধান্তের কেন্দ্রবিন্দু হলো আমাদের গ্রাহক। তাই গ্রাহকদের একটি পাওয়ার প্যাক ডিভাইসের সাথে আকর্ষণীয় অফার দেওয়ার জন্য আমরা জিওর সাথে হাত মিলিয়েছি। এখন থেকে, গ্রাহকদের, খরিদ্দারীর ১৫ দিনের ভিতরে জিওএক্সক্লুসিভ প্রোগ্রামে তাদের নাম এনরোল করার অনুমতি দেব আমরা।” তিনি আরো বলেন, “ভবিষ্যতে এমন আরো জিওএক্সক্লুসিভ ভিভো ফোন লঞ্চ করার ইচ্ছা আছে আমাদের।”

Vivo Y21 স্পেসিফিকেশন ও দাম

ভিভো ওয়াই২১ ফোনে ৬.৫১ ইঞ্চির এইচডি প্লাস ডিসপ্লে রয়েছে। এই ডিসপ্লে, ২০:৯ এসপেক্ট রেশিও ও ৯০.৬% স্ক্রিন-টু-বডি রেশিও সাপোর্ট করবে। এই ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে মিডিয়াটেক হেলিও পি৩৫ প্রসেসর। এটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক ফানটাচ ওএস ১১.১ কাস্টম স্কিনে রান করবে। ফোনে ৪ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি পর্যন্ত ইন্টারনাল স্টোরেজ রয়েছে। আবার এতে অতিরিক্ত ১ জিবি ভার্চুয়াল র‌্যাম সাপোর্ট করবে।

ক্যামেরার কথা বললে Vivo Y21 ফোনের ব্যাক প্যানেলে ডুয়েল ক্যামেরা সেটআপ দেখা যাবে। এগুলি হলো, ১৩ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি সেন্সর ও ২ মেগাপিক্সেল এআই সুপার ম্যাক্রো সেন্সর। এই রিয়ার ক্যামেরাগুলি পার্সোনালাইজড পোর্ট্রেট মোড, সুপার এইচডিআর, ফেস বিউটি, ফিল্টার মোড সহ এসেছে। একই সাথে ডিসপ্লের উপরিভাগে দেখা যাবে ৮ মেগাপিক্সেলের একটি ফ্রন্ট-ফেসিং ক্যামেরা, যা এআই বিউটিফিকেশন মোডে সাপোর্ট করে। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য Vivo Y21 স্মার্টফোনে আছে ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি, যা ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে। এই ফোনের দাম ১৩,৯৯০ টাকা।

Vivo-র ‘Make in India’ পলিসির জন্য ১০,০০০ এরও বেশি ভারতীয় আজ কাজ পেয়েছেন

ভিভোর ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ নীতির কারণে, নয়ডা ভিত্তিক Vivo Y21 স্মার্টফোনের ম্যানুফ্যাকচারিং প্ল্যান্টে ১০,০০০ এরও বেশি সংখ্যক পুরুষ ও নারীর কর্মসংস্থান হয়েছে। শুধু তাই নয়, ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ প্রোগ্রামের মুখ্য ভাবনাকে সামনে রেখে ভিভো নিশ্চিত করেছে যে, ভারতে বিক্রি হওয়া সমস্ত ভিভো ডিভাইস ভারতেই তৈরি হয়। ভিভোর এই উদ্যোগ শুধুমাত্র সংস্থার লভ্যাংশ বাড়াবে না, সাথে ভারতের মোট জনসংখ্যার এক বিরাট অংশকে রোজগারের পথও দেখাবে, যা সত্যি প্রসংশনীয়।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

শুভেচ্ছা বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী। তিনি একদিকে যেমন ফটোগ্রাফার, তেমনি পাশাপাশি লেখিকাও। এছাড়াও তার শখের মধ্যে আছে বই পড়া, গান গাওয়া, ছবি আঁকা এবং ওয়েব ডিজাইন। শুভেচ্ছা আমাদের টেকগাপ পরিবারের একজন নতুন সদস্য।