ভারতে শুরু হল Vivo V20 Pro এর রেজিস্ট্রেশন, আছে ডুয়েল সেলফি ক্যামেরা

ভারতে শুরু হল Vivo V20 Pro এর রেজিস্ট্রেশন। এই ফোনটি ২ ফেব্রুয়ারি ভারতে লঞ্চ হতে পারে। তবে তার আগেই ভিভো ইন্ডিয়ার অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে উৎসুক ক্রেতারা ফোনটির জন্য রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন। আপাতত ওয়েবসাইটে ‘Stay Notified’ বাটন লক্ষ্য করা গেছে। কয়েকদিন আগেই Amazon India ওয়েবসাইটে ভিভো ভি২০ প্রো এর প্রোডাক্ট পেজ দেখা গিয়েছিল। যারপরেই নিশ্চিত হয়ে যায় এই ফোনটি শীঘ্রই ভারতে আসবে। প্রসঙ্গত গত সেপ্টেম্বরে Vivo V20 ও Vivo V20 Pro থাইল্যান্ডে লঞ্চ হয়েছিল। এরমধ্যে ভিভো ভি২০ ফোনটি ইতিমধ্যেই ভারতে এসেছে।

ভিভো ভি২০ প্রো ফোনটিকে অ্যামাজন ইন্ডিয়াতে সানসেট মেলোডি, মিডনাইট জাজ কালারে দেখা গিয়েছিল। আশা করা যায় এই দুই কালারেই এটি ভারতে আসবে। জানিয়ে রাখি ইতিমধ্যেই অফলাইনে ভিভো-র রিটেল স্টোর থেকে এই ফোনের প্রিঅর্ডার শুরু হয়েছে। ICICI ব্যাংকের ক্রেডিট কার্ড, ZestMoney Finance এর কার্ড ও Bank of Baroda এর ক্রেডিট কার্ডধারীরা এই ফোনটি প্রিঅর্ডার করলে ১০ শতাংশ ছাড় পাবেন।

Vivo V20 Pro ভারতে দাম 

যদিও ভারতে ভিভো ভি২০ প্রো অফিসিয়াল দাম এখনও ঘোষণা করা হয়নি। তবে ৯১মোবাইলস থেকে জানানো হয়েছে এই ফোনটি ভারতে ২৯,৯৯০ টাকায় লঞ্চ হবে। এই দাম হবে ফোনটির ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজের। থাইল্যান্ডে এই ফোনটির দাম ছিল ১৪,৯৯৯ THB, যা প্রায় ৩৫,২৮০ টাকার সমান।

Vivo V20 Pro এর স্পেসিফিকেশন 

ভিভো ভি ২০ ফোনে আছে ৬.৪৪ ইঞ্চি S-AMOLED ওয়াটার ড্রপ নচ ডিসপ্লে, এর পিক্সেল রেজোলিউশন ১০৮০ x ২৪০০, স্ক্রিন টু বডি রেশিও হবে ৯১.২ শতাংশ এবং আসপেক্ট রেশিও ২০:৯। ডিসপ্লের মধ্যে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর রয়েছে। স্ন্যাপড্রাগন ৭৬৫জি প্রসেসরের এই ফোনে আছে ৩৩ ওয়াট ফ্ল্যাশ চার্জার।

আবার পাওয়ারের জন্য এতে আছে ৪০০০ এমএএইচ ব্যাটারি। চার্জিংয়ের জন্য এতে পাবেন ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১০ বেসড ফানটাচ ওএস ১১ সিস্টেমে চলে। Vivo V20 Pro ফোনে আছে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা। এই ক্যামেরা সেটআপটি হলো ৬৪ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি ক্যামেরা +  ৮ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড এঙ্গেল ক্যামেরা + ২ মেগাপিক্সেল মনোক্রোম সেন্সর। আবার সেলফির জন্য এতে আছে ৪৪ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি ক্যামেরা ও ৮ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড এঙ্গেল লেন্স।