প্রথম সেলেই বাজিমাত Vivo X60 Pro+ এর, পিছনে ফেললো অন্যান্য ফোনকে

vivo-x60-pro-plus-first-sale-growth-359-percent-than-x50-pro-plus

গত ২১ জানুয়ারি লঞ্চ হয়েছিল Vivo X60 Pro+। এই ফোনটি স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসর, ৫৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট, ১২ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম ও ৩২ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরার সাথে এসেছে। ফ্ল্যাগশিপ রেঞ্জে আসা এই ফোনটির প্রথম সেল অনুষ্ঠিত হয়েছিল গত ২৩ জানুয়ারি। এই সেলে ভিভো এক্স৬০ প্রো প্লাস গতবছরে লঞ্চ হওয়া ভিভো এক্স৫০ প্রো প্লাস থেকে ৩৫৯ গুন দ্রুত বিক্রি হয়েছে কোম্পানি দাবি করেছে। যদিও ফোনটির ঠিক কত ইউনিট এই সেলে বিক্রি হয়েছে তা জানা যায়নি।

Weibo তে শেয়ার করা Vivo X60 Pro+ এর প্রথম সেলের রিপোর্টে কোম্পানি জানিয়েছে, এই ফোনটি বড় বড় ই-কমার্স সাইটে ৫০০০-৬০০০ ইউয়ান ( প্রায় ৫৬,১০০ টাকা থেকে ৬৮,০০০) এর রেঞ্জে সবচেয়ে দ্রুত বিক্রি হওয়া স্মার্টফোনের তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে। আর এই কারণেই বিক্রির নিরিখে এই ফোনটি ভিভো এক্স৫০ প্রো প্লাস কে পিছনে ফেলেছে।

Vivo X60 Pro Plus এর দাম ও স্পেসিফিকেশন

ভিভো এক্স৬০ প্রো প্লাস দুটি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্ট সহ এসেছে – এর ৮ জিবি র‌্যাম  + ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ৪,৪৯৮ ইউয়ান (প্রায় ৫০,৮০০ টাকা) এবং এর ১২ জিবি র‌্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজ মডেলের দাম ৫৯৯৮ ইউয়ান (প্রায় ৬৭,৭৪৯ টাকা)। 

ভিভো এক্স৬০ প্রো প্লাস কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ সহ এসেছে। এই ক্যামেরাগুলি হল ৪৮ মেগাপিক্সেল সনি IMX598 সেন্সর + ৫০ মেগাপিক্সেল স্যামসাং GN1 সেন্সর + ৩২ মেগাপিক্সেলের পোর্ট্রেট ক্যামেরা + ৮ মেগাপিক্সেলের পেরিস্কোপ লেন্স। আবার সামনে আছে ৩২ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। ফোনটি ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটের ৬.৫৬ ইঞ্চির ফুলএইচডি প্লাস (১০৮০x২৩৭৬ পিক্সেল) অ্যামোলেড ডিসপ্লে সহ এসেছে। আবার এতে ব্যবহার করা হয়েছে  স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসর। পাওয়ারের জন্য Vivo X60 Pro+ তে দেওয়া হয়েছে ৪,২০০ এমএইচের ব্যাটারি। এর সাথে ৫৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন