অসাধারণ ক্যামেরা সহ লঞ্চ হল Vivo X60 Pro+, আছে স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসর

vivo-x60-pro-plus-launched-price-4998-yuan-price-specifications-global-availability

ডিসেম্বরের শেষে Vivo তার ঘরেলু মার্কেটে লঞ্চ করেছিল Vivo X60 সিরিজ। এই সিরিজের দুটি ফোন সেইসময় বাজারে এসেছিল -X60 ও X60 Pro। এই দুই ফোনে ব্যবহার করা হয়েছিল এক্সিনস ১০৮০ চিপসেট। এবার এদের হাই এন্ড ভ্যারিয়েন্ট হিসাবে লঞ্চ হয়ে গেল Vivo X60 Pro+৷ এই ফোনে কোয়ালকমের শক্তিশালী স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ চিপসেট ব্যবহার করা হয়েছে৷ সেইসঙ্গে ফোনটিতে পিছনের ক্যামেরাতে সনি এবং স্যামসাংয়ের সেন্সর রয়েছে৷ এছাড়াও ভিভো এক্স৬০ প্রো প্লাস ফোনে আছে ৫৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিংয়ের সাথে ৪,২০০ এমএএইচ ব্যাটারি।

Vivo X60 Pro Plus-এর দাম ও প্রাপ্যতা

ভিভো এক্স৬০ প্রো প্লাস-এর ৮ জিবি র‌্যাম  + ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ৪,৪৯৮ ইউয়ান (প্রায় ৫০,৮০০ টাকা) এবং এর ১২ জিবি র‌্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজ মডেলের দাম ৫৯৯৮ ইউয়ান (প্রায় ৬৭,৭৪৯ টাকা)। চীনে এটি ভিভোর অনলাইন শপ এবং সেখানকার ই-কমার্স সাইট Jd.com-এ প্রি-অর্ডার করা যাচ্ছে। ২৩ জানুয়াররি অর্থাৎ শনিবার থেকে এর সেল শুরু হবে। চীনের বাইরে ফোনটি গ্লোবাল মার্কেটে কবে লঞ্চ হবে তা এখনও জানা যায় নি।

Vivo X60 Pro Plus-এর স্পেসিফিকেশন

ভিভো এক্স৬০ প্রো প্লাস ফোনে পাবেন ৬.৫৬ ইঞ্চির ফুলএইচডি প্লাস (১০৮০x২৩৭৬ পিক্সেল) অ্যামোলেড ডিসপ্লে। ডিসপ্লের রিফ্রেশ রেট ১২০ হার্টজ এবং টাচ স্যাম্পলিং রেট ১২০ হার্টজ। এটি HDR10 ও HDR10+ সাপোর্ট করবে। স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসরের সাথে এতে ১২ জিবি পর্যন্ত LPDDRX4 র‌্যাম ও ২৫৬ জিবি পর্যন্ত UFS 3.1 স্টোরেজ পাওয়া যাবে। ফোনটির ১২ জিবি র‌্যাম ভ্যারিয়েন্টে মেমরি ফিউশন টেকনোলজি নামে একটি ফিচার আছে, যা ইন্টারনাল স্টোরেজ থেকে ৩ জিবি অতিরিক্ত র‌্যাম হিসেবে ব্যবহার করতে দেবে।

Vivo X60 Pro+ ফোনটির প্রধান ইউএসপি এর ক্যামেরা। ZEISS-এর লেন্স প্রযুক্তি এই ক্যামেরাতে ব্যবহার করা হয়েছে। এক্স৬০ প্রো প্লাস-তে Zeiss T* কোটিং রয়েছে যা ক্যামেরার লেন্সের মাধ্যমে আলো সঞ্চালনের ক্ষেত্রে সহায়তা করে। এই কোটিংয়ের অন্তর্ভুক্তি ফোন দ্বারা ক্যাপচার করা ফটোর গুণগত মানে বেশ উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন আনবে।

এক্স৬০ প্রো প্লাস এর পিছনে আছে কোয়াড ক্যামেরা সেটআপ। এর প্রথম প্রধান ক্যামেরাটি হচ্ছে ৪-অ্যাক্সিস OIS, ১১৪° আল্ট্রাওয়াইড অ্যাঙ্গেল, ১৪ মিমি ফোকাল লেংথ সহ ৪৮ মেগাপিক্সেলের (এফ/২.২) সনি IMX598 ক্যামেরা৷ দ্বিতীয় প্রধান ক্যামেরাটি হল ৫০ মেগাপিক্সেলের (এফ/১.৫৭) স্যামসাং GN1 ক্যামেরা৷ এছাড়া আছে ৫০ মিমি ফোকাল লেংথ ৩২ মেগাপিক্সেলের (এফ/২.৮) পোট্রেট ক্যামেরা ও ৮ মেগাপিক্সেলের (এফ/৩.৪) পেরিস্কোপ ক্যামেরা যা OIS ৫x জুম এবং ৬০x সুপার জুম সাপোর্ট করে৷ ভিভো বলেছে, চারটি ক্যামেরায় এএফ অটোফোকাস এবং ভিডিও স্ট্যাবিলাইজেশন সাপোর্ট করে৷ এতে 8K ভিডিও রেকর্ডিং করার সুবিধা পাওয়া যাবে৷ সেলফি ও ভিডিও চ্যাটের জন্য ফোনের সামনে রয়েছে ৩২ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা।

ফোনটি চলবে অ্যান্ড্রয়েড ১১ বেসড অরিজিন ওএস ১.০ ইন্টারফেসে। ৫৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ এই ফোনে ৪,২০০ এমএইচের ব্যাটারি পাওয়া যাবে। চার্জিংয়ের জন্য আছে ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট। ফোনটিতে ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, ফেস আনলক, এনএফসি ফিচার আছে।