লঞ্চের আগেই আনবক্সিং ভিডিও সামনে এল Vivo X60 Pro এর

Vivo এখনও X60 সিরিজের ফ্ল্যাগশিপ ফোন লঞ্চের চূড়ান্ত দিনক্ষণ ঘোষণা না করলেও, সূত্র অনুযায়ী, আগামী ২৮শে ডিসেম্বরই সংস্থাটির ঘরোয়া মার্কেটে X60 Series অফিসিয়ালি লঞ্চ হতে চলেছে। সম্প্রতি এই সিরিজের দুটি ফোন, Vivo X60 ও X60 Pro-এর অফিসিয়াল রেন্ডার সামনে এসেছিল। এবার ভিভো এক্স ৬০ প্রো ফোনটির আনবক্সিং করার একটি স্বল্পদৈর্ঘের ভিডিও ইউটিউবে পাওয়া গেল।

ভিডিওর শুরুতে ফোনটির রিটেল বক্স দেখানো হয়েছে। ডার্ক ব্লু কালারের এই বক্সে X60 Pro লেখা আছে। অফিসিয়াল রেন্ডারের মতোই ফোনটি কোয়াড ক্যামেরা সেটআপের সাথে এসেছে। আয়তকার এই ক্যামেরা মডিউলের তিনটি লেন্স ত্রিকোণভাবে অবস্থিত। অপরদিকে ZEISS লোগোর পাশে চতুর্থ পেরিস্কোপ লেন্সটি রাখা হয়েছে। ক্যামেরা মডিউলের নীচের দিকে এলইডি ফ্ল্যাশ উল্লম্বভাবে অবস্থিত।

ফোনের ডানদিকে পাওয়ার ও ভলিউম বাটন পাওয়া যাবে। এবার ভিডিওতে দেখা ফোনের ডিসপ্লের প্রসঙ্গে আসা যাক। কার্ভড ডিজাইনের এই হোল পাঞ্চ ডিসপ্লের কাটআউট ডিসপ্লের ওপরের দিকে মাঝবরাবর রাখা। ফোনটি আনলক করার সাথেই সেখানে নতুন ইউজার ইন্টারফেসের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। নিশ্চিতভাবে তাই বলা যায়, এই সিরিজের ফোনে অ্যান্ড্রয়েড ১১ বেসড ভিভো-র Origin OS প্রথম আত্মপ্রকাশ করবে। X60 Pro-এর নীচে সিম কার্ড ট্রে, ইউএসবি টাইপ-সি পোর্ট ও স্পিকার গ্রিল থাকবে।

Vivo X60 সিরিজের অধীনে X60, X60 Pro, ও X60 Pro+ নামে তিনটি ফ্লাগশিপ ফোন লঞ্চ করা হতে পারে। সূত্র অনুযায়ী, X60 Pro+ ফোনটি সদ্য ঘোষিত Qualcomm-এর সবচেয়ে শক্তিশালী স্ন্যাপড্রগন ৮৮৮ চিপসেটে চলবে। আর বেঞ্চমার্কিং প্লাটফর্ম গিকবেঞ্চ থেকে জানা গেছে, X60/X60 Pro ফোনে এক্সিনস ১০৮০ চিপসেট ব্যবহার করা হবে। চীনের 3C সার্টিফিকেশন সাইট থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, Vivo X60 সিরিজের তিনটি ফোনেই ৩৩ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট থাকবে।