ভারতে ৬ জিবি র‌্যামের সাথে পাওয়া যাবে Vivo Y20, দাম হাতের নাগালে

গতমাসে Vivo Y20i এর সাথে ভারতে লঞ্চ হয়েছিল Vivo Y20। বাজেট রেঞ্জে আসা এই ভিভো ওয়াই ২০ ফোনটি ভারতে দুটি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া যেত – ৩ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজে এবং ৪ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ। তবে এবার থেকে ফোনটির ৬ জিবি র‌্যাম ভ্যারিয়েন্টও পাওয়া যাবে। সাথে কোম্পানি ফোনটিকে আরও একটি নতুন রঙের বিকল্পে কেনার সুযোগ দিচ্ছে, যেটি হল পিউরিস্ট ব্লু কালার। যদিও র‌্যাম ও নতুন রং যুক্ত করা ছাড়া Vivo Y20 ফোনের স্পেসিফিকেশনে কোনো বদল আনা হয়নি।

Vivo Y20 দাম ও কালার বিকল্প

ভিভো ওয়াই ২০ এর ৬ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম রাখা হয়েছে ১৩,৯৯০ টাকা। এর আগে ৩ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজে এবং ৪ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ছিল যথাক্রমে ১১,৪৯০ টাকা ও ১২,৯৯০ টাকা। ফোনটি এখন পিউরিস্ট ব্লু, ডন হোয়াইট ও নেবুলা ব্লু কালারে পাওয়া যাবে। আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর থেকে ভিভো ইন্ডিয়া ই-স্টোর ও দেশের সমস্ত বড় ই-কমার্স সাইট থেকে ফোনটি কেনা যাবে। এর সাথে অফলাইন মার্কেটেও ফোনটি উপলব্ধ।

Vivo Y20 স্পেসিফিকেশন

ভিভো ওয়াই২০ ফোনে ৬.৫১ ইঞ্চি এইচডি প্লাস Halo আই ভিউ ডিসপ্লে (ডিউ ড্রপ নচ) দেওয়া হয়েছে। এই ডিসপ্লের পিক্সেল রেজুলেশন ১৬০০ x ৭২০। এছাড়াও এই ফোনতে আছে ১.৮ গিগাহার্টজ ক্লক স্পিড সহ স্ন্যাপড্রাগন ৪৬০ প্রসেসর। Vivo Y20 ফোনে আছে ৬ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম ও ৬৪ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ।

এছাড়াও এই ফোনে দেওয়া হয়েছে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ। যেগুলি হল এফ/১.৮ অ্যাপারচার সহ ১৩ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি ক্যামেরা, ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো ক্যামেরা ও ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর। সেলফি ও ভিডিও কলের জন্য এতে আছে এফ/১.৮ অ্যাপারচার সহ ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ ২৫৬ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

এছাড়াও এই ফোনের অন্যান্য স্পেসিফিকেশনের কথা বললে, ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১০ বেসড FunTouch ওএস ১০.৫ সিস্টেমে চলে। এতে ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি আছে। যার সাথে ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট আছে। চার্জিংয়ের জন্য এখানে পাবেন মাইক্রো ইউএসবি পোর্ট।

A person who is very knowledgeable or enthusiastic about technology and especially high technology