Vivo Y20T ভারতে ৭ জিবি র‌্যাম সহ লঞ্চ হল, রয়েছে শক্তিশালী ব্যাটারি ও ট্রিপল ক্যামেরা

Vivo Y20T ফোনের ৬ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজের দাম রাখা হয়েছে ১৫,৪৯০ টাকা

Vivo Y20t launched in india with extended ram price rs 15490 sale today specifications

Vivo আজ একপ্রকার চুপিচুপি তাদের Y সিরিজের নতুন ফোন, Vivo Y20T ভারতে লঞ্চ করল। এই ফোনের দাম রাখা হয়েছে ১৫,০০০ টাকার কাছাকাছি। Vivo Y20T কোম্পানির এক্সটেন্ডেড র‌্যাম ২.০ টেকনোলজি সহ এসেছে, যা ফোনের স্টোরেজ ব্যবহার করে ১ জিবি অতিরিক্ত র‌্যাম সরবরাহ করবে। এছাড়া এই ফোনে রয়েছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬৬২ প্রসেসর, ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট ও ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা। আসুন Vivo Y20T ফোনের দাম ও সম্পূর্ণ স্পেসিফিকেশন জেনে নেওয়া যাক।

Vivo Y20T ফোনের দাম ও সেল অফার

ভিভো ওয়াই২০টি ফোনের দাম রাখা হয়েছে ১৫,৪৯০ টাকা। এই মূল্য ফোনটির ৬ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজের। ফোনটি দুটি কালারে এসেছে- ওবসডিয়ান ব্ল্যাক ও পিওরিস্ট ব্লু। ভিভো ওয়াই২০টি ভারতে আজ থেকেই Amazon, Flipkart, Bajaj Finserv EMI store সহ অন্যান্য রিটেল স্টোর থেকে পাওয়া যাবে।

লঞ্চ অফার হিসেবে, Vivo Y20T ফোনটি Bajaj Finserv Store থেকে কিনলে ১২ মাসের নো কস্ট ইএমআই (৫০০ টাকা অতিরিক্ত ক্যাশব্যাক) অপশন মিলবে। আবার Flipkart, Amazon, Paytm, Tata Cliq এর মতো সাইট থেকে ৬ মাসের নো কস্ট ইএমআই-এ ফোনটি কেনা যাবে।

Vivo Y20T স্পেসিফিকেশন, ফিচার

ভিভো ওয়াই২০টি ফোনে আছে ৬.৫১ ইঞ্চি এইচডি প্লাস (৭২০x১৬০০ পিক্সেল) হালো ফুলভিউ ডিসপ্লে। ওয়াটার ড্রপ নচ ডিজাইনের এই ডিসপ্লের কাট আউটের মধ্যে এফ/১.৮ অ্যাপারচার সহ ৮ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা উপস্থিত। এই ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬৬২ প্রসেসর। ভিভো ওয়াই২০টি ফোনে ৬ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ রয়েছে। এছাড়া ১ জিবি ভার্চুয়াল র‌্যাম সাপোর্ট রয়েছে। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে স্টোরেজ আরও বাড়ানো যাবে।

গেমারদের জন্য Vivo Y20T ফোনে দেওয়া হয়েছে মাল্টি টার্বো ৫.০, আল্ট্রা গেমিং মোড, ইস্পোর্টস মোড ও গেম পিকচার ইন পিকচার ফিচার। ফোনটির পিছনে ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ দেখা যাবে। এই ক্যামেরাগুলি হল এফ/২.২ অ্যাপারচার সহ ১৩ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর ও ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর।

Vivo Y20T ফোনে পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য রয়েছে ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি, যা ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে। এই ব্যাটারি ২০ ঘন্টা ভিডিও দেখতে দেবে। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ বেসড ফানটাচ ওএস ১১.১ কাস্টম স্কিনে রান করবে। সিকিউরিটির জন্য পাওয়া যাবে সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। কানেক্টিভিটি অপশনের মধ্যে Vivo Y20T ফোনে আছে 4G LTE, ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ, মাইক্রো ইউএসবি পোর্ট প্রভৃতি। এই ফোনের ওজন ১৯২ গ্রাম।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

Passionate techie. Professional tech writer. A true cricket fan. Julai is a senior editor For Techgup and has frequently written about smartphones, apps, telecom News. You can follow him on Twitter @Julai_Mondal.