শক্তিশালী ব্যাটারি সহ লঞ্চ হল Vivo Y51 (2020), রয়েছে ১৬ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা

গতকালই ইন্দোনেশিয়ার ওয়েবসাইটে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল Vivo Y51 (2020) কে। আজ ফোনটিকে লঞ্চ করা হল। জানিয়ে রাখি গত সেপ্টেম্বরে ভিভো ওয়াই ৫১ (২০২০) পাকিস্তানে লঞ্চ হয়েছিল। ভারতেও এই ফোনটি শীঘ্রই আসবে, যার দাম হবে ২০,০০০ টাকার কম। Vivo Y51 (2020) এর বিশেষ বিশেষ ফিচারের মধ্যে আছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬৬৫ প্রসেসর, ওয়াটারড্রপ নচ ডিসপ্লে, ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা, ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি।

Vivo Y51 (2020) এর দাম 

ইন্দোনেশিয়ায় ভিভো ওয়াই ৫১ (২০২০) এর দাম রাখা হয়েছে ৩,৫৯৯,০০ আইডিআর, যা প্রায় ১৮,৭৫০ টাকার সমান। এই দাম ফোনটির ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজের। ফোনটি টাইটানিয়াম সাফায়ার এবং ক্রিস্টাল সিম্ফনি কালার অপশনে উপলব্ধ। জানিয়ে রাখি, পাকিস্তানে এই ফোনটি প্রায় ১৬,৩০০ টাকায় লঞ্চ হয়েছিল।

Vivo Y51 (2020) এর স্পেসিফিকেশন 

ভিভো ওয়াই ৫১ (২০২০) ফোনে আছে ৬.৫৮ ইঞ্চি এইচডি প্লাস আইপিএস ডিসপ্লে। ওয়াটারড্রপ নচ ডিসপ্লের রেজোলিউশন পিক্সেল ২৪০৮ x ১০৮০। এই স্ক্রিন ক্ষতিকারক ব্লু লাইট কে ফিল্টার করে। এই ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন অক্টা কোর ৬৬৫ প্রসেসর। সাথে অ্যাড্রেনো ৬১০ জিপিইউ। এই ফোনে ৮ জিবি রাম ও ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ ১ টিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

ফটোগ্রাফির জন্য এই ফোনে আছে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ। যার প্রাইমারি ক্যামেরা ১.৭৯ অ্যাপারচার সহ ৪৮ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর। অন্য দুটি ক্যামেরা হল এফ/২.২ অ্যাপারেচার যুক্ত ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড ক্যামেরা ও  ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর (এফ/২.৪)। সেলফি ও ভিডিও কলের জন্য এই ফোনের সামনে আছে এফ/২.০ অ্যাপারচার সহ ১৬ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। রিয়ার ক্যামেরায় স্লো মোশান রেকর্ডিং, সুপার ম্যাক্রো, ভয়েস কন্ট্রোল, সুপার নাইট মোড, এবং এআই ফেস বিউটি ফিচার আছে।

সিকিউরিটির জন্য এতে সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর আছে। কোম্পানির দাবি এটি ০.২৪৮ সেকেন্ডে ফোনকে আনলক করবে। পাওয়ারের জন্য Vivo Y51 (2020) ফোনে ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে। যার সাথে ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে। চার্জিংয়ের জন্য এতে আছে ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ বেডস ফান টাচ ওএস ১১ এ চলবে।