চীনা কোম্পানিকে বাদ দিয়েই ভারতে 5G চালু করতে প্রস্তুত ভোডাফোন আইডিয়া

vodafone-idea-network-is-5g-ready-without-chinese-company

২০১৯ সাল থেকেই বিশ্বের কিছু কিছু জায়গায় 5G প্রযুক্তির ব্যবহার শুরু হয়েছে। ধীরে ধীরে ভারতেও টেলিকম কোম্পানিগুলি 5G প্রযুক্তির জন্য নিজেদের তৈরি করছে। কিছুদিন আগেই রিলায়েন্স জিও, টেলিকম দপ্তরের কাছে ৫জি ট্রায়াল শুরু করার অনুমতি চেয়েছিল। এবার আরেক টেলিকম টেলিকম কোম্পানি Vi (Vodafone Idea) জানিয়েছে, তাদের নেটওয়ার্ক 5G-র জন্য তৈরিই আছে। নিলামের মাধ্যমে স্পেকট্রাম দেওয়া হলেই তারা 5G লঞ্চ করে দেবে। ভোডাফোন আইডিয়া তাদের 4G নেটওয়ার্ক, 5G আর্কিটেকচার ডাইনামিক স্পেকট্রাম রিফ্রেমিং (DSR) ও বিরাট MIMO-র মতো প্রযুক্তি দিয়ে আপগ্রেড করে রেখেছে, যাতে নেক্সট জেনারেশন নেটওর্য়াক চালু করতে সমস্যা না হয়।

Vi-র এমডি ও সিইও রবিন্দর ঠক্কর বার্ষিক সাধারণ মিটিং-এ বলেছেন, “আমাদের নেটওয়ার্ক 5G-র জন্য একদম প্রস্তুত। স্পেকট্রামের নিলাম হলেই আমরা 5G লঞ্চ করতে পারবো। যাই হোক, ভারতে 5G ব্যবহার বাড়ানোর প্রয়োজন আছে।

তিনি বলেন Vodafone Idea কীভাবে 5G ব্যবহার করা যায় ও কীভাবে ট্রায়াল নেওয়া হবে, সে বিষয়ে টেলিকম বিভাগের সঙ্গে কাজ করছে। খুব শীঘ্রই তাঁরা 5G ট্রায়াল স্পেকট্রাম পাবেন। এর মাধ্যমে তাঁরা যে পরীক্ষা করবেন তার ফলাফল সরকারকে দেওয়া হবে।

চিনা কোম্পানি Huawei ও ZTE-কে বাদ দিয়ে BSNL এর মত Vodafone Idea, Reliance Jio Infocomm, Airtelও 5G ট্রায়ালের জন্য ইউরোপীয় ইকুইপমেন্ট নির্মাতাদের নাম করছে।

নেটওয়ার্ক প্রসারণের বিষয়ে রবিন্দর ঠক্কর জানিয়েছেন, বোর্ড ১৫,০০০ কোটি টাকা ঋণের ফান্ডিং এবং আরও ১৫০০০ কোটি টাকা ইকুইটি ফান্ডিং তোলার অনুমতি দিয়েছে। এই দুটি মিলিয়ে ২৫,০০০ কোটি টাকা হতে হবে। যে বাণিজ্য পরিকল্পনা তারা করেছেন তা হল নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ ও বাজারে ভালো ভাবে টিকে থাকার জন্য যথেষ্ট ফান্ড সংগ্রহ। এ বিষয়ে তিনি বেশ আশাবাদী।