প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের আগে গ্রাহকদের জানিয়ে দেবে Vodafone Idea

Vodafone Idea, অন্ধ্রপ্রদেশ সরকার এবং Celltick-এর সাথে মিলিতভাবে ভারতের প্রথম সেল ব্রডকাস্ট-ভিত্তিক পাবলিক ওয়ার্নিং সিস্টেম লঞ্চ করেছে

vodafone-idea-will-send-users-real-time-alerts-for-disasters

বর্তমানে নিজেদের শোচনীয় অবস্থার দরুন Vodafone Idea (Vi) বরাবর খবরের শিরোনামে আসছে। কিন্তু এবার সংস্থাটি অন্য কারণে গ্রাহকদের নজর কাড়ল। সম্প্রতি Vodafone Idea, অন্ধ্রপ্রদেশ সরকার এবং Celltick-এর সাথে মিলিতভাবে ভারতের প্রথম সেল ব্রডকাস্ট-ভিত্তিক পাবলিক ওয়ার্নিং সিস্টেম লঞ্চ করেছে। অর্থাৎ, এখন ইউজাররা প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের পূর্ব সতর্কতা পেতে সক্ষম হবেন। এই প্রসঙ্গে আপনাদেরকে জানিয়ে রাখি, Celltick হল বৃহত্তম সেল-ব্রডকাস্ট বেসড প্রোডাক্ট প্রোভাইডার এবং পাবলিক ওয়ার্নিং সিস্টেমের গ্লোবাল লিডার। Celltick জানিয়েছে যে, Vodafone Idea (Vi) হল অন্ধ্রপ্রদেশ রাজ্যে প্রথম টেলিকম অপারেটর, যাদের নেটওয়ার্কে CAP-কমপ্লায়ান্ট ইন্টিগ্রেটেড পাবলিক অ্যালার্ট অ্যান্ড ওয়ার্নিং সিস্টেম (Integrated Public Alert and Warning System বা IPAWS) সাপোর্ট করবে। যারা জানেন না তাদের বলে রাখি, অন্ধ্রপ্রদেশ স্টেট ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট অথরিটির (APSDMA) জন্য অন্ধ্রপ্রদেশ রাজ্যে IPAWS মোতায়েন করা হচ্ছে।

অন্ধ্রপ্রদেশের Vodafone Idea ব্যবহারকারীরা এখন রিয়েল-টাইমে ডিজাস্টার এসএমএস অ্যালার্ট পাবেন

Celltick কর্তৃক প্রদত্ত CBC প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে, টেলিকম অপারেটররা তাদের গ্রাহকদের মোবাইল ডিভাইসগুলিতে সময়ে সময়ে বিভিন্ন তথ্য পাঠাতে পারে। এই সিস্টেমটি ট্র্যাফিক লোড থেকে মুক্ত হওয়ায়, কোনো মেসেজ রিয়েল-টাইমে সংস্থার গ্রাহকদের কাছে পৌঁছায়।

Vodafone Idea (Vi) এখন থেকে এই CBC প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করবে। ফলে যে কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ বা বিপর্যয়ের সময় Vi-এর নেটওয়ার্ক ব্যবহারকারী রিয়েল-টাইম অ্যালার্ট পাবেন। এই মূল্যবান ফিচারটি নিঃসন্দেহে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ কারণ এটির সাহায্যে লক্ষ লক্ষ জীবন বাঁচানো যেতে পারে। Vodafone Idea (Vi), Celltick এবং অন্যান্য রাজ্যের সরকারগুলি যদি মিলিতভাবে দেশের অন্যান্য রাজ্যেও এই সুবিধাটি উপলব্ধ করে, তাহলে আরও কোটি কোটি মানুষ উপকৃত হবেন।

এই গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্পের অংশ হওয়ার জন্য অন্যান্য অপারেটররাও ঝাঁপিয়ে পড়তে পারে। যেহেতু এই ফিচারটি বহু হিতকর কল্যাণসাধন করতে পারবে, তাই এটির চাহিদাও গ্রাহকদের কাছে বহু পরিমাণে বৃদ্ধি পাবে। আর চাহিদা বৃদ্ধি পেলে যে এই প্রকল্পের সঙ্গে জড়িত কোম্পানিগুলি অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে উন্নতি লাভ করবে, তা আর আলাদা করে বলার প্রয়োজন নেই। দেশের প্রত্যেকটি মানুষেরই বহু উপকারে লাগবে এই ফিচারটি, বিশেষত সেইসব জায়গায় যেখানে প্রাকৃতিক দুর্যোগ রোজকার সাধারণ ঘটনা।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।