Penny Stocks: বিপুল রিটার্নের সঙ্গে থাকে বড়সড় ঝুঁকি, পেনি স্টক কী জেনে নিন

খুব কম মূল্যের শেয়ার কে মূলত পেনি স্টক বলে। এদের বাজারমূল্য সাধারণত ১০ টাকারও কম হয়। পাশাপাশি, এদের সর্বমোট বাজার মূলধনের পরিমাণও যথেষ্ট কম

what-is-penny-stocks-is-it-good-for-investment-returns

Penny Stocks: বিনিয়োগক্ষেত্রে শেয়ার বাজারে আজকাল পেনি স্টক কথাটি প্রায়শই শোনা যায়। তবে, এই পেনি স্টক সম্পর্কে সম্যক ধারণা নেই অনেকেরই। পেনি স্টক আসলে কি? কেনই বা বিনিয়োগকারীরা পেনি স্টক বেছে নেবেন? আসুন জেনে নেওয়া যাক পেনি স্টক সম্বন্ধিত খুঁটিনাটি কিছু তথ্য।

পেনি স্টক কী? (What is Penny Stocks)

খুব কম মূল্যের শেয়ার কে মূলত পেনি স্টক বলে। এদের বাজারমূল্য সাধারণত ১০ টাকারও কম হয়। পাশাপাশি, এদের সর্বমোট বাজার মূলধনের পরিমাণও যথেষ্ট কম। বেশীরভাগ এক্সচেঞ্জ মাধ্যমে এগুলি নন লিকুইড স্টক হিসেবেই গচ্ছিত থাকে।

বর্তমানে শেয়ার মার্কেটে বিনিয়োগে ইচ্ছুক অনেক ব্যক্তির কাছেই পেনি স্টক সম্পর্কিত বিশদ তথ্য নেই। তবে, স্টকমার্কেটে বিনিয়োগ করার আগে পেনি স্টক সম্পর্কে জেনে রাখা অতি আবশ্যক। এই বাজারচলতি পেনিস্টকগুলিতে একদিকে যেমন বিপুল লাভের সম্ভাবনা থাকে, তেমনই উল্টোদিকে বেশ খানিকটা ঝুঁকিও থেকে যায়।

বাজার মূলধনের পরিমাণ কম হওয়ার কারণে এই কোম্পানিগুলিতে আর্থিক স্থিতিশীলতা প্রায়ই থাকে না। কাজেই অন্যান্য স্টকের তুলনায়, এই নির্দিষ্ট স্টকগুলির ক্ষেত্রে ঝুঁকি খানিকটা বেশী।

অনেকসময়েই স্বল্পমাত্রার অথবা নবাগত বিনিয়োগকারীরা পেনি স্টক কিনতে আগ্রহী হন। একজন বিনিয়োগকারী যদি ১০,০০০ টাকা বিনিয়োগ করে ১ টাকার একটি পেনি স্টক কেনেন, সেক্ষেত্রে, তিনি ১০,০০০ শেয়ার পাবেন। আবার বিনিয়োগকারীরা, একটি স্থিতিশীল কোম্পানির ১০০০ টি শেয়ারও কিনতে পারেন। এক্ষেত্রে তিনি ১০টি শেয়ার পাবেন। কিন্তু বেশীরভাগ সময়েই, উপযুক্ত তথ্যের অভাবে তাঁরা ‘প্রাইস’ এবং ‘ভ্যালু’র পার্থক্য ধরতে পারেন না।

পেনি স্টক সম্পর্কে অজ্ঞতার কারণে অনেক বিনিয়োগকারী মনে করেন যে সময়ের সাথে সাথে কোম্পানিগুলি বৃদ্ধি পাবে। বলাই বাহুল্য, সব কোম্পানির ক্ষেত্রে একথা খাটে না। তাই পেনিস্টক গুলিতে বিনিয়োগ করার আগে যথেষ্ট তথ্য ও বাড়তি সতর্কতা অবলম্বনের প্রয়োজন আছে। অন্যথায়, আর্থিক বিনিয়োগের এই ঝুঁকিপূর্ণ মাধ্যম বড়সড় ক্ষতির সামনাসামনি এনে দাঁড় করাতে পারে।

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।