ডিজিলকারের সাহায্যে এবার দিতে পারবেন ভোট,তুলতে পারবেন রেশন

ডিজিলকার হলো একটি ক্লাউড বেসড ব্যবস্থা যাতে প্রত্যেক ব্যক্তিকে তার আইডেন্টিটি প্রুফ আপলোড করার জন্য ক্লাউড স্টোরেজ ফ্রী দেওয়া হবে

ভারত সরকারের ডিজিটাল ইন্ডিয়া মুভমেন্টের নতুন প্রকল্প Digilocker। এটির মাধ্যমে আপনি আপনাদের আইডেন্টিটি কার্ডগুলি আপলোড করে রাখতে পারবেন যে কোন মুহূর্তে ব্যবহারের জন্য। ডিজিলকার হলো একটি ক্লাউড বেসড ব্যবস্থা যাতে প্রত্যেক ব্যক্তিকে তার আইডেন্টিটি প্রুফ আপলোড করার জন্য ক্লাউড স্টোরেজ ফ্রী দেওয়া হবে ।আজ আমরা কথা বলবো ডিজিলকারের মাধ্যমে আপনারা কিভাবে ভোট দিতে ও রেশন তুলতে পারবেন সেই সম্পর্কে।

একজন সরকারি টেকনিক্যাল এক্সপার্ট আমাদের জানান যে প্রতিবছর বহু মানুষ তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেন না কারণ তারা তাদের ভোটার আইডি কার্ডটি হারিয়ে ফেলেন। তাদের জন্যই মূলত সরকার এই ব্যবস্থাটি করেছে। এই ব্যবস্থাটির লাভ ওঠানোর জন্য তাদের শুধুমাত্র ডিজিলকার গেটওয়েটিকে অ্যাপ্লিকেশন প্রোগ্রামিং ইন্টারফেস (API) এর মাধ্যমে ইলেকশন কমিশনের ডেটাবেসের সাথে কানেক্ট করাতে হবে। ২০১৪ লোকসভা ভোটে মাত্র ৫.৫ কোটি লোক ভোট দিতে পেরেছিলেন। এবং বাকি যারা ভোট দিতে পারেননি তাদের অধিকাংশেরই কার্ড হারিয়ে গেছিল। আধিকারিকটি জানান কিউ আর কোডের মাধ্যমে আইডি ভেরিফিকেশন করে ভোটাররা অনেক সহজে ডিজিলকারে তাদের ভোটার কার্ড আপলোড করতে পারবেন এবং তার ফলে তাদের আর কার্ড হারিয়ে যাওয়ার চিন্তা থাকবে না।

ডিজিলকারের সাথে রেশন কার্ড লিঙ্ক করার সুবিধার কথা জানতে চাইলে MeitY এর এক আধিকারিক জানান যে এর মাধ্যমে গ্রাহকরা বুঝতে পারবেন কোন রেশন দোকানে কত রেশন স্টক রয়েছে এবং তার ফলে রেশনিং ব্যবস্থায় অনেক স্বচ্ছতা আসবে। যদি অন্য কোন ব্যক্তি কারোর রেশন সাবসিডি চুরি করার চেষ্টা করে তাহলে তিনি তার অভিযোগ এই অ্যাপের মাধ্যমে জানাতে পারবেন। ঝাড়খন্ডে ইতিমধ্যেই রেশন কার্ড ডিজিলকারে যোগ করার কাজ শুরু হয়ে গেছে। একদিকে MeitY ডিজিলকারের সাথে ৩২ কোটি ৫০ লক্ষ আধার লিঙ্কড রেশন কার্ডকে যোগ করতে চাইছে আর অন্যদিকে ইলেকশন কমিশন ভোটারদের ভোটার আইডি কার্ডের ইনস্ট্যান্ট ভেরিফিকেশন এর উপর কাজ শুরু করে দিয়েছে।

পড়ুন : ফোন করার সময় আওয়াজ আস্তে আসছে ? এই উপায়ে বাড়িয়ে নিন

সমস্ত খবরের আপডেট পেতে এখানে লাইক দিন!