আরও সুরক্ষিত হচ্ছে WhatsApp, নতুন আপডেটে সিকিউরিটি বিভাগে এল গুরুত্বপূর্ণ বদল

অনলাইনে মেসেজ আদান-প্রদানের ক্ষেত্রে অন্য কোন অ্যাপ্লিকেশন WhatsApp মতো এত জনপ্রিয়তা অর্জন করতে পারেনি। ব্যবহারকারীদের সুবিধার জন্য হোয়াটসঅ্যাপ তাদের প্ল্যাটফর্মটিতে প্রতিনিয়তই ছোটখাটো পরিবর্তন এনে থাকে। সম্প্রতি অ্যাপ্লিকেশনটি তাদের সিকিউরিটি বিভাগে গুরুত্বপূর্ণ কিছু বদল আনতে চলেছে। যার ফলে বিজনেস চ্যাটে এন্ড টু এন্ড এনক্রিপশনের সুবিধা পাওয়া যাবে।

WABetaInfo ব্লগের একটি রিপোর্টে দাবী করা হয়েছে যে, হোয়াটসঅ্যাপ নিজেদের নিরাপত্তা ও প্রাইভেসিকে আরো অনেক বেশী পোক্ত করে তোলার লক্ষ্যে কাজ করছে। WABetaInfo এর বক্তব্য, মেসেজিং প্ল্যাটফর্মটি ইতিমধ্যেই তার অ্যান্ড্রয়েড বিটা অ্যাপের একটি নতুন ভার্সন (২.২০.২০৫.৬) রোল আউট করেছে। এই ভার্সনটিতে অ্যাকাউন্ট সেটিংসের সিকিউরিটি বিভাগে কিছু গুরুত্বপূর্ণ বদল আনা হয়েছে।

হোয়াটসঅ্যাপের নতুন আপডেটে ব্যবহারকারীরা বিজনেস মেসেজিংয়ের ক্ষেত্রেও এন্ড টু এন্ড এনক্রিপশনের সুবিধা পাবেন। আগে কেবলমাত্র দুজন ব্যক্তির মধ্যে আদান-প্রদান হওয়া কল ও মেসেজগুলির ক্ষেত্রেই এই পরিষেবা উপলব্ধ ছিল। এবার থেকে হোয়াটঅ্যাপ বিজনেস ব্যবহারকারীরাও এই পরিষেবার সুফল ভোগ করতে পারবেন। এন্ড টু এন্ড এনক্রিপশনের ফলে কোন ব্যক্তি এবং প্রতিষ্ঠানের মধ্যে বিনিময় হওয়া সমস্ত কল ও মেসেজ সম্পূর্ণ সুরক্ষিত থাকবে। এমনকি নির্দিষ্ট করে দেওয়া ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান ছাড়া স্বয়ং WhatsAppও সেই সব কল ও মেসেজগুলি শুনতে বা পড়তে পারবেনা!

একইসাথে হোয়াটসঅ্যাপ টগল বাটন এও কিছু বিশেষত্ব যোগ করতে চলেছে যা আমাদের সিকিউরিটি নোটিফিকেশনগুলি সম্পর্কে সতর্ক করবে।

WABetaInfo এর ব্লগটিতে আরও জানানো হয়েছে, ভবিষ্যতে হোয়াটসঅ্যাপ বিজনেস অ্যাকাউন্ট ব্যবহারকারীদের তাদের চ্যাট ফেসবুকে সংরক্ষণ করতে দেবে। তবে ফেসবুকে যখন মেসেজ এবং কল গুলি স্টোর করা হবে তখন সেগুলি সুরক্ষিত থাকবে। যদিও পুরো চ্যাটটি এন্ড টু এন্ড এনক্রিপটেড নাও হতে পারে। এটি তখনই হতে পারে যখন বিজনেস অ্যাকাউন্ট ব্যবহারকারী WhatsApp ছেড়ে ফেসবুকে মেসেজ স্টোর বা ম্যানেজ করবে। তখন তিনি ‘Security code notifications are no longer available for this chat’ মেসেজটি দেখতে পাবেন। তবে হোয়াটসঅ্যাপে স্টোর করলে এধরণের কোনো সমস্যা আসবেনা।

One of the newest members of the Techgup Family. Soumo grew his liking for gadgets almost a decade back while searching for his first smartphone, and started writing about tech recently in 2020