হোয়াটসঅ্যাপ পে-র তথ্য শেয়ার করা হবেনা Facebook এর সাথে, জানালো WhatsApp

whatsapp-pay-clarifies-transactions-details-wont-share-with-facebook.jpg

হোয়াটসঅ্যাপের (WhatsApp) নতুন প্রাইভেসি পলিসি নিয়ে জনমানসের মধ্যে সৃষ্ট ক্ষোভ প্রশমিত করতে ফেসবুকের মালিকানাধীন সংস্থাটি ইতিমধ্যে বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকা আপডেটটি মার্চ পর্যন্ত স্থগিত রেখেছে। নতুন পলিসিতে গ্রাহকদের ব্যক্তিগত তথ্যের সাথে কোনোপ্রকার আপোস করা হচ্ছে না, এই মর্মে হোয়াটসঅ্যাপকে পৃথকভাবে বিবৃতি জারি করতে দেখা গেছে৷ শুধু তাই নয়, গতকাল হোয়াটসঅ্যাপ এফএকিউ (FAQ) পেজ আপডেট করার মাধ্যমে স্পষ্ট করেছে যে, গ্রাহকদের পেমেন্ট ডেটা কখনই মালিক সংস্থা, Facebook এর সাথে তারা শেয়ার করবে না। হোয়াটসঅ্যাপ জানিয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ পে (WhatsApp Pay) ফিচারটি ব্যবহার করে গ্রাহকদের করা লেনদেনের তথ্য ফেসবুকের সাথে শেয়ার করা হবে না এবং সেটি নতুন পলিসির আওতায় পড়ছে না। এছাড়াও হোয়াটসঅ্যাপ পে যে একটি পৃথক প্রাইভেসি পলিসি দ্বারা পরিচালিত হয় তাও জানাতে ভোলেনি ফেসবুক মালিকানাধীন প্ল্যাটফর্মটি।

হোয়াটসঅ্যাপ পে-তে হওয়া সমস্ত ট্রানজ্যাকশন এনক্রিপ্টেড কিনা সেটাও সংস্থাটি পরিষ্কার করেছে। হোয়াটসঅ্যাপ স্পষ্টত জানিয়ে দিয়েছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার গাইডলাইন মেনে তারা ভারতীয় সীমান্তের মধ্যেই সমস্ত পেমেন্টের তথ্য এনক্রিপ্ট করে রাখে। সংস্থাটি তার এফএকিউ পেজে লিখেছে “UPI সমর্থিত অর্থ প্রদানগুলি সম্পূর্ণ সুরক্ষিত রাখা এবং রিজার্ভ ব্যাঙ্কের জারি করা ডেটা লোকালাইজেশনের নির্দেশিকাগুলির সাথে পুরোপুরি মেনে চলা হচ্ছে কিনা তা নিশ্চিত করার জন্য হোয়াটসঅ্যাপ প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।”

তবে সংস্থাটি বলেছে, হোয়াটসঅ্যাপ পেমেন্টের অবৈধ ব্যবহার বন্ধ রাখার জন্য “ব্যতিক্রমী ক্ষেত্রে” লেনদেনের তথ্যগুলি অনুমোদিত এবং নিয়ন্ত্রকদের সাথে “নিয়ন্ত্রক অনুমোদনের সাপেক্ষে” শেয়ার করা যেতে পারে। “অনুমোদিত” বলতে ঠিক কাদের সাথে ডেটা শেয়ার করা হবে তা অস্পষ্ট।

হোয়াটসঅ্যাপের নতুন প্রাইভেসি পলিসি আপডেট ঘিরে বিতর্কের জল ইতিমধ্যে বহুদূর গড়িয়েছে। এমনকি হোয়াটসঅ্যাপকে তার গোপনীয়তা নীতিতে সাম্প্রতিক পরিবর্তনগুলি প্রত্যাহার করার দাবি জানিয়ে কড়া ভাষায় চিঠি লিখেছে ভারত সরকারের তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় (MeitY)। আসলে একদিকে নতুন পলিসিতে সম্মতি প্রদান না করলে অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়ার বার্তা, অপরদিকে গ্রাহকদের ব্যক্তিগত তথ্যের ওপর হোয়াটসঅ্যাপের উঁকিঝুঁকি দেওয়ার কথা জানতে পেরে ইউজারদের হোয়াটসঅ্যাপ পরিত্যাগ করার প্রবণতা এবং টেলিগ্রাম ও সিগন্যালের মতো প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাপে রেকর্ড সংখ্যক মানুষের সমাগম; সবটা লক্ষ্য করেই পরিস্থিতি অনুকূলে রাখতে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ইনস্টান্ট মেসেজিং প্ল্যাটফর্মটি চেষ্টার কসুর রাখছে না।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন