বড়সড় প্রশ্নের মুখে হোয়াটসঅ্যাপ, আপনার মেসেজ বদলে দিচ্ছে হ্যাকাররা

  

ফের মেসেজের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্নের মুখে পড়তে হলো বিশ্বের সবথেকে বড় মেসেজিং প্ল্যাটফর্ম হোয়াটসঅ্যাপকে। কিছুদিন আগেই ফেক নিউজ নিয়ে বিপাকে পড়তে হয়েছিল এই মেসেজিং প্ল্যাটফর্মটিকে। আগের বিপত্তি কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই নতুন একটি সমস্যা দেখা দিল হোয়াটসঅ্যাপে।

ইসরাইলের একটি সাইবার সিকিউরিটি ফার্ম, চেক পয়েন্ট সফটওয়্যার টেকনোলজি বুধবার একটি রিপোর্টে জানিয়েছে যে তারা হোয়াটসঅ্যাপে একটি নতুন দুর্বলতা খুঁজে পেয়েছেন, যার মাধ্যমে হ্যাকাররা যেকোন প্রাইভেট অথবা গ্রুপ মেসেজকে পরিবর্তন এবং মেসেজ পৌঁছানো প্রতিরোধ করতে পারে। এবং চাইলে কিছু বিভ্রান্তিকর মেসেজও পাঠাতে পারে। ওই কোম্পানির দাবি হোয়াটসঅ্যাপ কে তারা 2018র শেষের দিকে এই বিষয়টি নিয়ে সচেতন করেছিল।

চেক পয়েন্ট সফটওয়্যার টেকনোলজি দাবি করেছে যে এই দুর্বলতাকে কাজে লাগিয়ে তিন ভাবে হ্যাকাররা আপনার ক্ষতি করতে পারে। প্রথমত হ্যাকাররা হোয়াটসঅ্যাপের ‘কোট’ ফিচারটির দুর্ব্যবহার করে পাঠকের পরিচিতি বদলে দিতে পারে। এমনকি যদি সে ঐ গ্রুপটিতে নাও থাকে তখনও। দ্বিতীয় পদ্ধতি হলো মেসেজ পাল্টে দেওয়া বা নিজের কথা অন্যের মুখে বসিয়ে দেওয়া। এখানে সেই হ্যাকার আপনার পাঠানো মেসেজটিকে বদলে দিয়ে অন্য একটি মেসেজ সেই গ্রুপে পাঠিয়ে দিতে পারে এবং আপনার জন্য অনেক সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে।

তৃতীয় পদ্ধতিতে কোন একটি গ্রুপ মেম্বার কে আপনার নাম করে তারা একটি প্রাইভেট মেসেজ পাঠাতে পারে যা হতে পারে আদতে একটি পাবলিক মেসেজ। ফলে তারা যখন সেই মেসেজটির রিপ্লাই দেবে তখন তা সকলে পড়তে পারবে। এইভাবে তারা গ্রুপে কয়েকজন মেম্বার কে ব্যবহার করে তাদেরকে টার্গেট করে গ্রুপের সমস্ত তথ্য ও গ্রুপটি খোলার প্রধান উদ্দেশ্য ইত্যাদি জরুরী বিষয়গুলি জেনে নিতে পারবে।

যদিও তৃতীয় পদ্ধতিটি হোয়াটসঅ্যাপ ইতিমধ্যেই বন্ধ করে দিয়েছে তবুও চাইলে কোটেড মেসেজ এবং বিভ্রান্তিকর তথ্যের মাধ্যমে এখনো হ্যাকাররা নিজেদের কার্যসিদ্ধি করতে পারে। এই সম্পূর্ণ বিষয়টি হোয়াটসঅ্যাপের ভারতের প্রায় 400 মিলিয়ন এবং ভারতের বাইরের বিভিন্ন দেশের 1 বিলিয়নেরও বেশি ব্যবহারকারীর জন্য খুবই চিন্তাজনক।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ব্লুমবার্গকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে চেক পয়েন্টের তরফ থেকে জানানো হয়েছে,”হোয়াটসঅ্যাপ এর বর্তমান ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রায় 1.5 বিলিয়ন। এই অ্যাপটি ব্যক্তিগত মেসেজিং, ব্যবসায়িক মেসেজ এমনকি রাজনৈতিক বিভিন্ন আলোচনার ক্ষেত্রেও বহুল ব্যবহার করা হয়। তবে এই সমস্যা গুলোর কারণে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের নিরাপত্তা প্রশ্নের মুখে পড়ছে বারবার।” তিনি আরো জানান যে, চেক পয়েন্ট হোয়াটসঅ্যাপ এর সঙ্গে এই সমস্যাগুলির সমাধান করার চেষ্টা করছে। তবে এই তিনটি ছাড়াও আরো কিছু সমস্যা রয়েছে যেগুলি হোয়াটসঅ্যাপের এন্ড টু এন্ড এনক্রিপশনের কারণে সমাধান করা সম্ভব নয়।”

Amazon এ প্রোডাক্ট কিনতে এখানে ক্লিক করুন

Google Pay App ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন

পড়ুন : নিশ্চিন্তে হোয়াটসঅ্যাপে রাখুন গোপন তথ্য, যুক্ত হলো ফিঙ্গারপ্রিন্ট লক ফিচার

সব খবর পড়তে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন – এখানে ক্লিক করুন