আর্কাইভড চ্যাটের বদলে ‘রিড লেটার’ ফিচার আনছে WhatsApp

চলতি বছরে WhatsApp “ডিস্যাপিয়ারিং মেসেজ”-সহ বেশ কিছু নতুন নতুন ফিচার তাদের প্ল্যাটফর্মে যোগ করেছে। এছাড়াও তারা ‘ভ্যাকেশন মোড’ নামক একটি ফিচারের ওপর গত এক বছর ধরে কাজ করছে। যদিও কিছুদিন আগে শোনা যাচ্ছিলো, এই ফিচারটি আনা সম্ভব হচ্ছেনা। কিন্তু সম্প্রতি কয়েকটি রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে যে, হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ এই ফিচারের টেস্টিং ফের শুরু করেছে। যদিও ‘ভ্যাকেশন মোড’ এর বদলে এই ফিচারের নাম ‘Read later’ হবে বলে রিপোর্টে জানানো হয়েছে। আর্কাইভড চ্যাটের স্থানে এই ফিচারটি আনা হচ্ছে। এর ফলে ইউজাররা তাদের চ্যাটগুলি আরো ভালো ভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে।

WhatsApp এর ‘Read later’ ফিচারের বৈশিষ্ট্য

WABetaInfo, হোয়াটসঅ্যাপের বিটা ভার্সন ২.২০.১৩০.১৬-এ iOS-এ এই ফিচারটি চিহ্নিত করেছে। হোয়াটসঅ্যাপের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপেও এই ফিচারটির পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। ‘রিড লেটার’ ফিচারটি শুধু আর্কাইভড চ্যাটের জায়গা নেবে তাই নয়, এটি আরও উন্নত হবে।

প্রথমত, আর্কাইভড চ্যাটের সঙ্গে রিড লেটার ফিচারের মূল পার্থক্য হল আর্কাইভ করা চ্যাটে নতুন কোন মেসেজ এলে সেই চ্যাটটি আবার চ্যাটবক্সের সামনে চলে আসতো। কিন্তু কোন চ্যাট রিড লেটারে সরিয়ে দিলে সেই চ্যাট থেকে আর কোন নোটিফিকেশন আসবে না। ফলে ছুটির দিনগুলোতে অফিস থেকে মেসেজ এলেও সেসব মেসেজ নিশ্চিন্তে এড়িয়ে চলতে পারবেন ইউজাররা। একেই WhatsApp ‘ভ্যাকেশন মোড’ হিসাবে লঞ্চ করতে চাইছিল অনেক দিন ধরে।

দ্বিতীয়ত, রিড লেটার মোডে একটি এডিট বোতাম থাকবে যার মাধ্যমে ইউজাররা ইচ্ছামত সেটিং করতে পারবেন।

তৃতীয়ত, ইউজাররা চাইলে একসাথে একাধিক চ্যাট আন-আর্কাইভ করতে পারবেন।

চতুর্থত, রিড লেটারের মধ্যে ভ্যাকেশন মোড ডিসেবল করার অপশনও থাকবে। ভ্যাকেশন মোড ডিসেবল করলে আর্কাইভ চ্যাটে থাকা কন্ট্যাক্ট থেকে নতুন মেসেজ এলে সেটি প্রধান চ্যাট লিস্টে চলে আসবে। তবে ইউজার যতক্ষণ না ভ্যাকেশন মোড ডিসেবল করছেন ততক্ষণ অব্দি আর্কাইভ করা চ্যাট থেকে নতুন মেসেজ এলে ইউজারকে নোটিফিকেশন দেওয়া হবে না।

WhatsApp এখন অ্যান্ড্রয়েড ও iOS এর আলফা ভার্সনে এই ফিচারটি পরীক্ষা করছে। এখনও অব্দি হোয়াটসঅ্যাপ বিটা ইউজাররা এই ফিচারটি পাননি। তবে আশা করা যায় শীঘ্রই ফিচারটি রিলিজ করা হবে।