কেন ভারতকেই পাখির চোখ করেছে Apple, সস্তায় আইফোন পাওয়ার দিন শুরু?

why apple targeting india than before

করোনা পরবর্তী সময়ে বেশকিছু প্রযুক্তি কোম্পানি ভারতে তাদের ব্যবসা বাড়ানোর চেষ্টায় আছে। এদের মধ্যে অন্যতম আইফোন নির্মাতা Apple। সংস্থাটি আগে ভারতে অন্য দেশ থেকে কেবল ডিভাইস আমদানি করতো। তবে ইদানিং কালে সে প্রথা ভেঙেছে। ইতিমধ্যে Apple, ভারতে iPhone 7, iPhone XR, iPhone SE, এবং iPhone 6S ডিভাইসগুলির উৎপাদন শুরু করেছে। শুধু তাই নয়, এদেশে স্থানীয়ভাবে iPhone 11 এবং iPhone SE (2020) ডিভাইস অ্যাসেম্বল শুরু করেছে সংস্থাটি।

এছাড়াও অ্যাপল আগামী মাসের প্রথম দিকে ভারতে ডেডিকেটেড অনলাইন স্টোর চালু করার প্রস্তুতি নিচ্ছে। এমনকি পরের বছরের মধ্যে এদেশে দুটি ফিজিক্যাল স্টোর খোলার পরিকল্পনাও করছে সংস্থাটি। কিন্তু হঠাৎ কেন ভারতকেই পাখির চোখ করেছে Apple। অনেকে মনে করছেন, আমদানি শুল্ক এড়াতেই এই ধরণের পদক্ষেপ নিচ্ছে মার্কিন মাল্টি-ন্যাশনাল টেক কোম্পানিটি। আবার কিছুজন অনুমান করছেন এগুলি আসলে মার্কিন-চীন উত্তেজনার ফলশ্রুতি।

চলতি বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে চীনের বাজারে অ্যাপলের শেয়ার ছিল ১৯.৯২%, ওই সময়ে প্রায় ৩০০ মিলিয়ন আইফোন বিক্রি হয়েছে চীনে, যা বিশ্বের অন্যান্য বাজারগুলির শেয়ারের তুলনায় অনেকটাই বেশি, এমনকি আমেরিকার থেকেও বেশি। অন্যদিকে, চতুর্থ প্রান্তিকে ভারতের স্মার্টফোন বাজারে অ্যাপেলের শেয়ার ছিল ৩.৩%।

তবে এমাসের শুরুতেই পরিস্থিতি পাল্টে যায়। কারণ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, মার্কিন কোম্পানিগুলিকে চীনের ByteDance এবং WeChat-এর সাথে সমস্ত রকম ট্রানজাকশন রুখতে পারে এমন একটি নিষেধাজ্ঞায় সম্মতি দেন। এই নিষেধাজ্ঞা জারি হলে অ্যাপলের অ্যাপ স্টোর থেকে TikTok এবং WeChat অ্যাপ্লিকেশনটি রিমুভ হতে পারে। এদিকে উইচ্যাট চীনে এতটাই জনপ্রিয় যে এর নিষেধাজ্ঞার ফলে চীনে আইফোনের বিক্রি ৩০% কমতে পারে। একটি সমীক্ষায় দেখা গেছে, এমনটা হলে প্রায় ১.২ মিলিয়ন চীনা ইউজার iOS ডিভাইসের বদলে অন্য প্ল্যাটফর্মের দিকে ঝুঁকতে পারে। ফলে বড়সড় প্রভাব পড়বে অ্যাপলের ব্যবসায়।

এই পরিস্থিতিতে অ্যাপল ভারতের ক্রমবর্ধমান স্মার্টফোন বাজারে জায়গা করে নিতে চাইছে। আমাদের অনেকেরই জীবনে একবার আইফোন ব্যবহার করার ইচ্ছে থাকে, কিন্তু বাধ সাধে এগুলির দাম। তাই অ্যাপল, এদেশে উৎপাদন বাড়ানোর পরিকল্পনা করছে, যাতে ডিভাইসগুলিতে আমদানি শুল্ক এড়ানো যায়। ফলে আগামী দিনে ভারতে বেশ কিছুটা স্বল্প দামে আইফোন বিক্রি হতে পারে, এতে অ্যাপেল সহজেই তার ব্যবসা প্রসারিত করতে পারবে।