World Emoji Day: ইমোজির ব্যবহার কবে থেকে শুরু হল, এর ইতিহাস জানুন

world-emoji-day-2021-history-significance-wish-when-to-use-everything-you-should-know
World Emoji Day আজ পালন করা হয়

World Emoji Day: কথায় আছে জীবনের প্রতিটা দিনই স্পেশাল! কত লক্ষ জনম ঘুরে তবে অবশেষে সাধের এই মানবজন্ম, সুতরাং এর দিনগুলি নিছক ক্যালেন্ডারের তারিখ নয়। বরং প্রতিটি দিনের সাথেই জড়িয়ে আছে অসংখ্য ইতিহাস ও ঘটনার স্মৃতি, বর্তমান ডিজিটাল বিশ্বে বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমের কল্যাণে যা আমাদের নখদর্পণে। এই সামাজিক মাধ্যমের সাথেই আবার ‘ইমোজি’ শব্দের অতীত-বর্তমান-ভবিষ্যৎ জড়িয়ে রয়েছে। যেমন আজ ১৭ই জুলাই, আজ নাকি এই ইমোজির দিন! আজ্ঞে হ্যাঁ, আজকের দিনটিকেই সারা বিশ্বজুড়ে ‘ওয়ার্ল্ড ইমোজি ডে’ (World Emoji Day) হিসেবে পালন করা হয়। আসুন সংক্ষেপে এ সম্পর্কে কিছু জেনে নেওয়া যাক।

World Emoji Day এর ইতিহাস

বিশ্ব ইমোজি দিবসের উদ্ভাবক জেরেমি বুর্গ (Jeremy Burge)। একইসাথে তিনি ইমোজিপিডিয়া’র (Emojipedia) প্রতিষ্ঠাতা। তার হাত ধরেই ২০১৪ সাল থেকে ১৭ই জুলাই দিনটিকে আমরা ইমোজি দিবস হিসেবে পালন করে আসছি। যদিও ইমোজির উদ্ভবের দিকে চোখ রাখলে আরেকটু অতীতের দিকে পিছিয়ে যেতে হবে।

ইমোজি একটি জাপানী শব্দ, সাধারণভাবে যা চিত্রশব্দ বা শব্দের চিত্ররূপকে বোঝায়। ১৯৯৯ সালে শিগেতাকা কুরিতা (Shigetaka Kurita) সর্বপ্রথম ইমোজি তৈরী করেন। সেই সময় তিনি জাপানের টেলিকম সংস্থা এনটিটি ডোকোমো’র(NTT Docomo) অধীনে কাজ করতেন। ২০১০ সাল নাগাদ ইমোজি জনপ্রিয়তা পায়।

উল্লেখ্য, ২০০৭ সালে আইফোন লঞ্চের সময় মূলত জাপানী ক্রেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য অ্যাপল (Apple) তাদের ডিভাইসে ইমোজি কি-বোর্ডের সংযোজন করে। মার্কিন মুলুকের অধিবাসীদের নজরে আসতেই ইমোজি খুব দ্রুত জনপ্রিয়তা অর্জন করতে শুরু করে।

Emoji-এর ব্যবহার

বর্তমানে আমাদের যোগাযোগের ক্ষেত্রে ইমোজির গুরুত্ব সর্বাত্মক। ইমোজি বাদ দিয়ে চ্যাটিং আজ নেহাতই নীরস এবং আকর্ষণহীন। মেসেজ প্রেরক এবং গ্রহণকারী যেখানে পরস্পরকে দেখতে পাচ্ছেন না সেখানে তাদের কথায় মুখভঙ্গি ফুটিয়ে তোলার ক্ষেত্রে ইমোজির শরণাপন্ন হওয়া অনিবার্য। ভার্চুয়াল জগতে বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে নিজেদের আবেগ এবং অনুভূতি ফুটিয়ে তুলতে ইমোজির কোনো বিকল্প নেই। আর সেকারণেই ইমোজির জন্য বরাদ্দ বিশেষ দিনটিকে মোটেও হেলাফেলা করলে চলে না!

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

One of the newest members of the Techgup Family. Soumo grew his liking for gadgets almost a decade back while searching for his first smartphone, and started writing about tech recently in 2020