World Environment Day : ভারতের সেরা পাঁচটি পরিবেশবান্ধব ইলেকট্রিক টু-হুইলারের বিষয়ে জেনে নিন

Revolt RV 400
Revolt RV 400

মাঝখানে সামান্য নিস্তেজ থাকার পর জ্বালানি তেল পুনরায় স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে ঝোড়ো ইনিংস খেলে যাচ্ছে। ভারতের বেশ কয়েকটি শহরে পেট্রোলের দাম ইতিমধ্যেই ১০০ ছাড়িয়ে গেছে। বাকি শহরগুলিতেও পেট্রোল এখন নব্বইয়ের ঘরে ব্যাটিং করছে। ফলে দু’চাকা বা চার চাকা গাড়ি ব্যবহারকারীদের পকেটে এখন ত্রাহি ত্রাহি অবস্থা। স্বাভাবিকভাবেই জ্বালানি তেলের ক্রমবর্ধমান দাম মানুষকে বিকল্পের সন্ধানে যেতে বাধ্য করছে। তাদেরই সিংহভাগ এখন আবার মজেছে ইলেকট্রিক টু-হুইলারে। দীর্ঘমেয়াদি সঞ্চয় এবং কম রক্ষণাবেক্ষণের খরচের দিকে তাকিয়ে এখন অনেকেই দু’চাকার ইলেকট্রিক গাড়ির অন্বেষণ করছেন।

এক সময় হাতে গোনা কয়েকটি সংস্থা থাকলেও বর্তমানে ইলেকট্রিক টু-হুইলারের বাজারে একাধিক সংস্থা পা রেখেছে। যাদের মধ্যে বেশিরভাগ কোম্পানি ভারতীয় এবং পাশাপাশি তাদের প্রোডাক্ট সম্পূর্ণভাবে মেড ইন ইন্ডিয়া। আজ বিশ্ব পরিবেশ দিবসে আমরা ভারতে উপলব্ধ এমনই সেরা পাঁচটি পরিবেশবান্ধব ইলেকট্রিক টু-হুইলারের নাম জেনে নেব।

1 – Ather 450X

Ather 450X

দাম – 1.47 লক্ষ টাকা (এক্স-শোরুম, দিল্লি)

ভারতে ইলেকট্রিক টু-হুইলারের ব্র্যান্ডগুলির মধ্যে প্রযুক্তিগত উৎকর্ষতা এবং দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের কথায় আসলেই উচ্চারিত হয় বেঙ্গালুরুর সংস্থা Ather Energy এর নাম। অল্প সময়ের মধ্যেই এই স্টার্টআপ সংস্থাটির বৈদ্যুতিন স্কুটার বাজারে আলোড়ন তুলেছে। সংস্থাটির Ather 450X এখন ভারতের অন্যতম সেরা মেড-ইন-ইন্ডিয়া ইলেকট্রিক স্কুটার।

Ather 450X স্কুটারের 6kW ইলেকট্রিক মোটরের পাওয়ার এবং টর্ক আউটপুট 8 বিএইচপি এবং 26 এনএম৷ Wrap মোডে স্কুটারটি 6.6 সেকেন্ডেই 0-60 কিমি/ঘন্টা গতি তুলতে সক্ষম। Ather 450X এর 2.9 কিলোওয়াট আওয়ার টঅলিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারি এক চার্জে 85 কিমি রাইডিং রেঞ্জ দেয়।

Ather 450X ইলেকট্রিক স্কুটারটি দুর্দান্ত ফিচারে ঠাসা। এটি 7 ইঞ্চির টাচস্ক্রিন ড্যাশবোর্ড, ম্যাপ নেভিগেশনের জন্য অ্যান্ড্রয়েড বেসড অপারেটিং সিস্টেম, ইনবিল্ট ফোর জি সিমকার্ড, স্মার্টফোনেই রাইড স্টাটিটিক্স ও অন্যান্য ডাটা দেখার জন্য ব্লুটুথ কানেক্টিভিটি এবং রিভার্স ও ফরোয়ার্ড মোডের সাথে পার্ক অ্যাসিস্ট সিস্টেমের সাথে এসেছে। এছাড়াও বৈদ্যুতিক স্কুটারটির উল্লেখযোগ্য ফিচারের মধ্যে Eco, Ride, Sport এবং Wrap রাইডিং মোড, ভয়েস অ্যাসিট্যান্ট, ওয়েলকাম লাইট, কল ও মিউজিক কন্ট্রোলার, রিজেনারেটিভ ব্রেকিং, থেফ্ট ডিটেকশন ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য।

2- Bajaj Chetak

Bajaj Chetak

দাম শুরু 1.42 লক্ষ টাকা থেকে (এক্স-শোরুম, দিল্লি)

Chetak-এর হাত ধরে Bajaj গত বছর ইলেকট্রিক মোবিলিটি সেগমেন্টে পা রেখেছিল। মেটাল বডি, টপ-নচ কোয়ালিটি, দীর্ঘ ফিচারের কারণে Chetak ইলেকট্রিক স্কুটারটি চালাতেও বেশ মজা। রেট্রো থিমের ডিজাইন Chetak-কে অন্যান্য ইলেকট্রিক টু-হুইলারের থেকে করে তুলেছে স্বতন্ত্র। DRL সহ LED হেডল্যাম্প, ইল্যুমিনিটেড সুইচগিয়ার, এবং অ্যাপ্লিকেশন নির্ভর নেভিগেশন ফিচার Chetak-এর ভ্যালুকে এক অন্য উচ্চতায় পৌঁছে দিয়েছে।

Bajaj Chetak ই-স্কুটারে 3.8 কিলোওয়াট ইলেকট্রিক মোটর দ্বারা চালিত যা 5 বিএইচপি পাওয়ার ও 16.2 এনএম টর্ক উৎপন্ন করতে সক্ষম৷ ফুল চার্জ দেওয়ার পর Chetak-কে ইকো মোডে 95 কিমি এবং স্পোর্ট মোডে 85 কিমি পর্যন্ত চালানো যাবে। এছাড়া স্কুটারটির ফিচারের মধ্যে রিভার্স রাইডিং মোড, কীলেস ইগনিশন, রিজেনারেটিভ ব্রেকিং, ফ্রন্ট ডিস্ক ব্রেক, ডিজিটাল ইন্সট্রুমেন্ট ক্লাস্টার এবং স্মার্টফোন কানেক্টিভিটি উল্লেখযোগ্য৷

3- TVS iQube

TVS iQube

দাম- 1.08 লক্ষ টাকা (এক্স-শোরুম, দিল্লি)

TVS গত বছরের জানুয়ারিতে iQube লঞ্চ করেছিল। TVS-এর প্রথম ইলেকট্রিক স্কুটার হিসেবে iQube ইতিমধ্যেই যথেষ্ট সমাদৃত হয়েছে৷ TVS iQube ই-স্কুটারে 4.4 kW হাব-মাউন্টেড মোটর রয়েছে, যা 6 বিএইচপি শক্তি উৎপন্ন করে। 4.2  সেকেন্ডেই এর গতিবেগ 0-40 কিমি/ঘন্টা তোলা যাবে। স্কুটারের লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারি খুব শক্তিশালী অ্যালুমিনিয়ামে আবৃত, ফলে এটি জল ও ধুলো প্রতিরোধী। TVS iQube 75 কিমি রাইডিং রেঞ্জ দেবে। আবার পাওয়ার মোড অন করলে এই রেঞ্জ কিছুটা কম হমে।

TVS iQube স্কুটারটি SmartXonnect ফিচার সহ এসছে যা ব্লুটুথ কানেক্টিভিটি অফার করবে। স্মার্টফোনে ডেডিকেটেড অ্যাপ্লিকেশনের সাথে কানেক্ট করার পর ইউজারেরা নেভিগেশন অ্যাসিস্ট, রিমোট ব্যাটারি চার্জ স্টেটাস, জিওফেন্সিং, ইনকামিং কল/এসএমএস এলার্ট, লাস্ট পার্ক লোকেশন, প্রভৃতি ফিচার অ্যাক্সেস করতে পারবেন।

প্রসঙ্গত, বেঙ্গালুরু ও দিল্লির পর ভারতের কুড়িটি নতুন শহরে TVS iQube ইলেকট্রিক স্কুটার চালু হতে চলেছে। যে শহরগুলিতে ইলেকট্রিক টু-হুইলারের চাহিদা বেশি সেই জায়গাগুলি TVS অগ্রাধিকার দিতে পারে। আবার স্টেশনের পরিকাঠামো কতটা উন্নত, শহর নির্বাচনের ক্ষেত্রে সেটা একটা কারণ হতে পারে। ফলে চলতি বছরে মুম্বাই চেন্নাই, পুনে হায়দরাবাদ, আমেদাবাদ, কলকাতা সহ একাধিক শহরে TVS iQube লঞ্চ হওয়ার সম্ভাবনা আছে।

4, Revolt RV 400

দাম – 1.19 লক্ষ টাকা (এক্স-শোরুম)

কম রক্ষণাবেক্ষণ খরচ, সহজ হ্যান্ডলিং, নকল এগজস্ট সাউন্ড, সোয়াইপেবল ব্যাটারি, ক্লাউড কানেক্টিভিটি RV 400 ইলেকট্রিক মোটরসাইকেলেহ জনপ্রিয়তার অন্যতম কারণ। বাইকটির টপ স্পিড 80 কিমি/ঘন্টা এবং সিঙ্গল চার্জে রাইডিং রেঞ্জ 156 কিমি।

5- Hero Electric Optima

Hero Electric Optima

দাম- 61,640 (এক্স-শোরুম, দিল্লি)

ভারতে বৈদ্যুতিক স্কুটার ব্যবসায় হিরো ইলেকট্রিককে অগ্রণী সংস্থার আখ্যা দেওয়া হয়। কিছু বেসিক ইলেকট্রিক স্কুটার লঞ্চের মাধ্যমে হিরো ইলেকট্রিক পথ চলা শুরু করেছিল। তবে বিগত কয়েকবছর ধরে হিরো ইলেকট্রিকের স্কুটারগুলি প্রিমিয়াম হয়ে ওঠার পাশাপাশি শহুরে রাস্তায় ব্রিলিয়ান্ট রাইড অফার করার জন্য পরিচিত হয়ে উঠেছে। Optima ইলেকট্রিক স্কুটারটি এখন Hero-র সর্বাধিচ বিক্রিত মডেলের মধ্যে অন্যতম। চালানো খুব সহজ বলে Hero Optima যে কোনও বয়সী ক্রেতার জন্য উপযুক্ত। স্কুটারটির সর্বোচ্চ গতিবেগ 42 কিমি/ঘন্টা এবং সিঙ্গেল চার্জে রাইডিং রেঞ্জ 82 কিমি৷ ডিজিটাল ইন্সট্রুমেন্ট ক্লাস্টার, রিজেনারেটিভ ব্রেকিং, LED হেডল্যাম্প, অ্যান্টি থেফ্ট এলার্মের মতো প্রয়োজনীয় ফিচার এতে রয়েছে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপে শুভ্রর প্রথম প্রযুক্তি বিষয়ক লেখায় হাতেখরি৷ স্নাতক স্তরের পড়াশোনার পাশাপাশি এখানেই চলতে থাকে শুভ্রর লেখালেখি৷ কলেজের অধ্যায় শেষ হওয়ার পর শুভ্র এখন টেকগাপের কনটেন্ট টিমের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য৷