Airspeeder: অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত হল উড়ন্ত বৈদ্যুতিক গাড়ির রেসিং প্রতিযোগিতা,

ফ্লাইং কারের প্রথম অফিশিয়াল রেস শুরু হবে আগামী দু'বছরের মধ্যেই

worlds-first-drag-race-of-flying-electric-cars-with-airspeeder-mk3

সম্প্রতি বিশ্বের প্রথম Flying Car-এর ড্র্যাগ রেস (drag race) সংঘটিত হল অস্ট্রেলিয়ায় (Australia)। গত মার্চেই এই ইলেকট্রিক ফ্লাইং কার রেস খুব শীঘ্রই শুরু হতে চলেছে বলে জানানো হয়েছিল। এবার সেই প্রতিযোগিতার প্রি-সেশান টেস্ট হল। Airspeeder MK3 সিরিজের দুটি নামহীন ফ্লাইং কার অংশগ্রহণ করেছিল এতে। সামনের বছরই F1 রেসের আদলে এয়ার রেস শুরু হতে চলেছে। তার আগে একবার ফ্লাইং কার দুটির সক্ষমতা পুরোদস্তুর পরখ করে নেওয়া হল।

Alauda Aeronautics নামক অস্ট্রেলিয়ান কোম্পানি, যেটি প্রধানত উচ্চগতির রেসের জন্য eVTOL (electric vertical takeoff and landing) কার তৈরীর কাজ করে থাকে, সেটি দুটি বেনামী এয়ারস্পিডার এমকে৩ মাল্টিকপ্টারের এই প্রদর্শন ভিডিও সর্বসমক্ষে এনেছে। বর্তমানে সংস্থাটি তিন বছর ধরে নিজেদের প্রথম ইলেকট্রিক ভার্টিক্যাল টেক অফ এন্ড ল্যান্ডিং বা ইভিটল (eVTOL) কার তৈরির কাজ জারি রেখেছে।

সম্প্রতি eVTOL-এর রেসিং লিগের কথা ঘোষণা করা হয়েছে, যা Alauda Aeronautics এর সদর দপ্তর অস্ট্রেলিয়ার অ্যাডিলেটে অনুষ্ঠিত হবে। প্রি-সেশন প্রতিযোগিতায় Airspeeder এর MK3 সিরিজের ফ্লাইং কার দুটি ১৫ মিটার উচ্চতায় ৩০০ মিটারের দূরত্ব অতিক্রম করে। জয়ী ফ্লাইং কারটির সর্বোচ্চ গতিবেগ ছিল প্রতি ঘন্টায় ১৫৫ কিমি। এ থেকে অনুমান করা যাচ্ছে যে আগামী দিনে রোমহর্ষক হতে চলেছে ফ্লাইং কার রেস।

Alauda Aeronautics এর প্রধান ম্যাট পিয়ারসন (Matt Pearson) বলেছেন, “এমকে৩ সিরিজের এয়ারস্পিডারের বেনামী ফ্লাইং কার দুটি দেখিয়ে দিল ভবিষ্যত রাস্তার সম্ভাব্য চিত্র। আসন্ন eVTOL ইভি রেস যে কেবল ভবিষ্যতের একটি নতুন খেলা তাই নয়, বরং বৈদ্যুতিক পরিবহণের ক্ষেত্রে এক নতুন পথের দিশারী দেখাবে এটি।”

সূত্রের খবর অনুযায়ী, ফ্লাইং কারের প্রথম অফিশিয়াল রেস শুরু হবে আগামী দু’বছরের মধ্যেই। প্রাথমিক পর্যায়ে চালকবিহীন প্রতিযোগিতা হবে এবং চালকরা ভূপৃষ্ঠে দাঁড়িয়ে ভার্চুয়াল রিয়েলিটি প্রযুক্তির মাধ্যমে কারগুলি চালনা করবে।

প্রসঙ্গত পরবর্তী পর্যায়ের প্রতিযোগিতায় Airspeeder এর EXA সিরিজের ফ্লাইটগুলি অন্তর্ভুক্ত করা হবে, যেখানে বিভিন্ন দেশের চারটে দল এতে অংশগ্রহণ করতে পারবে। তিনটি পর্যায় পর্যন্ত এই প্রতিযোগিতায় কোনো মানুষ অংশ নেবে না। কেবলমাত্র রিমোট কন্ট্রোলের মাধ্যমে ওড়ানো হবে eVTOL ফ্লাইং কারগুলি।

তবে পুরোদস্তুর (full-fledged) আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতা আগামী ২০২৩ থেকে শুরু হবে, যেখানে ১০ টি কোম্পানি অংশ নিতে পারবে। সে সময় eVTOL কারগুলিতে কেবল একজন চালক থাকবে।

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।