Xiaomi 11T, Xiaomi 11T Pro নজরকাড়া ডিজাইন ও ১০৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা সহ লঞ্চ হল, দাম ও ফিচার জানুন

Xiaomi 11T, Xiaomi 11T Pro ফোন দুটি Mi 10T, Mi 10T Pro -এর উত্তরসূরী হিসেবে লঞ্চ হয়েছে

xiaomi-11t-xiaomi-11t-pro-launched-price-120w-charging-108mp-camera-processor-specifications

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে একাধিক রিপোর্ট ফাঁস হওয়ার পর, Xiaomi অবশেষে আজ গ্লোবাল মার্কেটে Xiaomi 11T, Xiaomi 11T Pro ফোন দুটি লঞ্চ করল। Mi 10T, Mi 10T Pro -এর উত্তরসূরী হিসেবে আসা এই দুটি ফোনেই ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা ও পাঞ্চ হোল ডিসপ্লে রয়েছে। শাওমি দাবি করেছে এই ফোনগুলি ‘সিনেম্যাজিক’ অভিজ্ঞতা প্রদানের জন্য ডিজাইন করা হয়েছে। Xiaomi 11T, Xiaomi 11T Pro ফোনে একগুচ্ছ ফটো ও ভিডিও ফিচার পাওয়া যাবে। এদিকে বেস মডেলে ব্যবহার করা হয়েছে মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি প্রসেসর। ফোনটি ৮ জিবি র‌্যাম ও ৬৭ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ এসেছে। আবার প্রো মডেলে আছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসর, ১২ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম ও ১২০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট। আসুন Xiaomi 11T, Xiaomi 11T Pro এর দাম ও সম্পূর্ণ স্পেসিফিকেশন জেনে নেওয়া যাক।

Xiaomi 11T, Xiaomi 11T Pro এর দাম ও লভ্যতা

শাওমি ১১টি ফোনের দাম শুরু হয়েছে ৪৯৯ ইউরো (প্রায় ৪৩,৩৫০ টাকা) থেকে। এই মূল্য ফোনটির ৮ জিবি র‌্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজের। আবার এর ৮ জিবি র‌্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজের দাম ৫৪৯ ইউরো (প্রায় ৪৭,৭০০ টাকা)। ফোনটি সেলেস্টিয়াল ব্লু, মিটিওরাইট গ্রে ও মুনলাইট হোয়াইট কালারে এসেছে।

অন্যদিকে শাওমি ১১টি প্রো ফোনের ৮ জিবি র‌্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজের দাম রাখা হয়েছে ৬৪৯ ইউরো (প্রায় ৫৬,৩৫০ টাকা)। আবার এর ৮ জিবি র‌্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজ এবং ১২ জিবি র‌্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজের দাম যথাক্রমে ৬৯৯ ইউরো (প্রায় ৬০,৭০০ টাকা), ও ৭৪৯ ইউরো (প্রায় ৬৫,১০০ টাকা)। শাওমি ১১টি প্রো ফোনটি শাওমি ১১টি এর মতো কালার অপশনে এসেছে।

ফোনগুলি চারবছর সিকিউরিটি আপডেট পাবে। আবার ইউরোপে এদের সাথে দু বছরের ওয়ারেন্টি দেওয়া হবে।Xiaomi 11T, Xiaomi 11T Pro ভারতসহ অন্যান্য মার্কেটে কবে লঞ্চ করা হবে তা জানা যায়নি।

Xiaomi 11T, Xiaomi 11T Pro এর ডিজাইন

শাওমি ১১টি সিরিজের ডিজাইন ভিন্টেজ ফিল্ম ক্যামকোডার দ্বারা অনুপ্রাণিত বলে মনে হচ্ছে। ফোনগুলিতে পাওয়া যাবে অ্যান্টি গ্লেয়ার ফিনিশ সহ গ্লাস ব্যাক ও প্লাস্টিক ফ্রেম। ফোনগুলির পিছনে আয়তক্ষেত্রকার ক্যামেরা সেটআপ দেখা যাবে। আবার সামনে আছে কর্নি গরিলা গ্লাস ভিক্টাস প্রোটেকশন সহ পাঞ্চ হোল ডিসপ্লে।

শাওমি ১১টি সিরিজের ফোনের ডান দিকে রয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর সহ পাওয়ার কী, ভলিউম বাটন। নীচে ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট, প্রাইমারি মাইক্রোফোন, স্পিকার গ্রিল ও সিম কার্ড স্লট উপস্থিত। আবার উপরে আইআর ব্লাস্টার, আরেকটি স্পিকার গ্রিল ও সেকেন্ডারি মাইক্রোফোন আছে‌। শাওমি ১১টি ও শাওমি ১১টি এর ওজন যথাক্রমে ২০৩ গ্রাম ও ২০৪ গ্রাম।

Xiaomi 11T, Xiaomi 11T Pro এর ডিসপ্লে

শাওমি ১১টি ও শাওমি ১১টি প্রো ফোনে আছে ৬.৬৭ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস (১০৮০ x ২৪০০ পিক্সেল) AMOLED ডিসপ্লে‌। এই ডিসপ্লে ১২০ হার্টজ অ্যাডাপ্টিভ রিফ্রেশ রেট, ৪৮০ হার্টজ টাচ স্যাম্পলিং রেট ও ১ বিলিয়নের বেশি কালার সহ এসেছে।

আবার DisplayMate A+ রেটেড প্যানেলগুলির এসপেক্ট রেশিও ২০:৯, পিক ব্রাইটনেস ১০০০ নিটস। প্রো মডেলের স্ক্রিনে অতিরিক্ত ডলবি ভিশন সাপোর্ট করবে।

Xiaomi 11T, Xiaomi 11T Pro এর পারফরম্যান্স

শাওমি ১১টি ও শাওমি ১১টি প্রো অ্যান্ড্রয়েড ১১ বেসড এমআইইউআই ১২.৫ কাস্টম স্কিনে রান করবে। বেস মডেলে আছে মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ১২০০ আল্ট্রা প্রসেসর, ৮ জিবি র‌্যাম (LPDDR4x) ও ২৫৬ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ (UFS 3.1)।

আবার প্রো মডেলে ব্যবহার করা হয়েছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসর। ফোনটি ১২ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম (LPDDR5) ও ২৫৬ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ (UFS 3.1) সহ পাওয়া যাবে। ফোনগুলিতে লিকুইড কুলিং সিস্টেম বর্তমান।

Xiaomi 11T, Xiaomi 11T Pro এর ক্যামেরা

শাওমি ১১টি ও শাওমি ১১টি প্রো ফোনের সামনে ১৬ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা উপস্থিত। এর বেস মডেলের সেলফি ক্যামেরা‌ দিয়ে ৩০ এফপিএস-এ ১০৮০পি এবং প্রো মডেলে ৬০ এফপিএস-এ ১০৮০পি ভিডিও রেকর্ড করা যাবে।

আবার ফোন দুটির পিছনে রয়েছে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ। এই ক্যামেরাগুলি হল ১০৮ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ১২০ ডিগ্রি ফিল্ড অফ ভিউ সহ ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড লেন্স ও ৫ মেগাপিক্সেল টেলিম্যাক্রো সেন্সর। রিয়ার ক্যামেরায় অন-ক্লিক এআই সিনেমা, টাইম ফ্রিজ, অডিও জুম, ম্যাজিক জুম এর মতো ফিচার রয়েছে। প্রো ও স্ট্যান্ডার্ড মডেলে যথাক্রমে ৬০ এফপিএস-এ ৮কে (8K) ও ৩০ এফপিএস-এ ৪কে (4K) ভিডিও রেকর্ডিং সাপোর্ট করবে।

Xiaomi 11T, Xiaomi 11T Pro এর ব্যাটারি ও চার্জিং

শাওমি ১১টি ও শাওমি ১১টি প্রো ফোনে ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে। প্রো মডেলে ১২০ ওয়াট হাইপার চার্জ টেকনোলজি সাপোর্ট করবে। এই টেকনোলজি মাত্র ১৭ মিনিটে ২-১০০ শতাংশ পর্যন্ত চার্জ করে দেবে‌। আবার বেস মডেল ৬৭ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ এসেছে। এই ফোনটি ফুল চার্জ হতে ৩৬ মিনিট সময় নেয়।

Xiaomi 11T, Xiaomi 11T Pro এর কানেক্টিভিটি ও অন্যান্য

শাওমি ১১টি সিরিজের কানেক্টিভিটি অপশনের মধ্যে রয়েছে 5G, ডুয়েল সিম, ডুয়েল ব্যান্ড ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ, জিপিএস, এনএফসি, ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট। ফোন দুটি এক্স অ্যাক্সিস লিনিয়ার ভাইব্রেশন মোটর, হাই-রেস অডিও সার্টিফিকেশন, ডলবি অ্যাটমস সাপোর্ট সহ ডুয়েল স্টেরিও স্পিকারের সাথে এসেছে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

Passionate techie. Professional tech writer. A true cricket fan. Julai is a senior editor For Techgup and has frequently written about smartphones, apps, telecom News. You can follow him on Twitter @Julai_Mondal.