আগামী বছর আসছে USB Port বিহীন স্মার্টফোন, জানালো Xiaomi

Xiaomi assume USB port less smartphone may hit in 2022

ক্যামেরা, ডিসপ্লে এবং অন্যান্য পারফরম্যান্সের জন্য Xiaomi-র ফোনগুলি এমনিতে বেশ জনপ্রিয়। কিন্তু ডিভাইসের এই সমস্ত ফিচারের গুরুত্ব দেওয়া ছাড়াও, হালফিলে চীনা টেক জায়ান্টটি ফোনের চার্জিং প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করছে। ফলে কয়েক সপ্তাহ আগেই পর্দা উঠেছে ২০০ ওয়াট ওয়্যারড ফাস্ট চার্জিং (200W Fast Charging) এবং ১২০ ওয়াট ওয়্যারলেস ফাস্ট চার্জিং (120W Wireless Fast charging) প্রযুক্তির ওপর থেকে। কিন্তু এই প্রযুক্তিগুলি হাতে গোনা দু-একটি প্রিমিয়াম ফোনে দেখা যাবে, নাকি আগামী দিনে বাজারের বেশিরভাগ হ্যান্ডসেটেই এগুলি উপলব্ধ হবে – সেই নিয়ে অনেকের মনেই প্রশ্নের উৎপত্তি হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে আজ ১১ই জুন, Xiaomi এই দুটি প্রযুক্তি সম্পর্কে কথা বলতে গিয়ে চার্জিংর প্রযুক্তির বিকাশ সম্পর্কে কিছু প্রশ্নের উত্তর দিয়েছে।

রিপোর্ট অনুযায়ী, সংস্থার তরফে কিছু ইঞ্জিনিয়ার এই বিষয়ে আলোচনা করেছেন, যেখানে তারা আগামী বছরের প্রথমদিকে ইউএসবি চার্জিং পোর্ট ছাড়াই স্মার্টফোন চালু হওয়ার সম্ভাবনার কথা বলছেন। অর্থাৎ আশা করা যায়, ২০২২-এর গোড়ার দিকেই কিছু স্মার্টফোন ব্র্যান্ড চার্জিং পোর্ট বিহীন ডিভাইস লঞ্চ করবে। সেক্ষেত্রে যারা অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনের এই জাতীয় ফিচার সম্পর্কে অবগত নন, তাদের বলে রাখি Vivo Apex 2020 এই ধরণের প্রযুক্তিযুক্ত একটি ফোন যা ৬০ ওয়াট ওয়্যারলেস ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সরবরাহ করে।

Xiaomi-র ইঞ্জিনিয়াররা আরও বলেছেন যে উপযুক্ত অবকাঠামোর অভাবে এখনো ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তিটি তেমনভাবে প্রচলিত হয়নি। তাছাড়া কিছুজন এই প্রযুক্তির সুরক্ষা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন, যার বিপক্ষে নির্দিষ্ট কোনো যুক্তি না থাকায় এটি তেমন গ্রহণযোগ্যতাও পায়নি।

তবে অদূর ভবিষ্যতে ভারত এই বেতার (ওয়্যারলেস) প্রযুক্তির বিকাশেও অগ্রগতি করবে বলে আশা করা যায়। তদ্ব্যতীত, চীন সরকার ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তির বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়ার কারণে তৃতীয় পক্ষের চার্জিং আনুষাঙ্গিক নির্মাতারা তাদের প্রোডাক্টের গুণমান উন্নত করবে এমনটাও মনে করা হচ্ছে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

A person who enjoys creating, buying, testing, evaluating and learning about new technology.