করোনা মোকাবিলায় ভারত কে ১৫ কোটি টাকা দান শাওমির, ২০ হাজার পরিবারকেও সাহায্য

xiaomi-donates-rs-15-crore-to-fight-against-coronavirus-outbreak-in-india

করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে জন্য শাওমির ম্যানেজিং ডিরেক্টর মনু কুমার জৈন এমআই ফ্যানদের জন্য একটি খোলা চিঠি শেয়ার করলেন। এই চিঠিতে তিনি জানিয়েছেন কিভাবে শাওমি ভারতে এই মহামারীকে আঁটকানোর প্রচেষ্টা নিচ্ছে। এছাড়াও এই চিঠিতে অন্তর্ভুক্ত রয়েছে শাওমি এই দুর্দিনে কত টাকা অনুদান দিয়েছে। এছাড়াও চিঠিতে জৈন সমস্ত এমআই ফ্যানকে প্রধানমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলে অনুদান দেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন।

মনু তার চিঠির শুরুতেই জানিয়েছেন, সেলফ আইসোলেশন এবং লকডাউন কতটা জরুরি। এরপর তিনি সকল পাঠককে “জাতিকে রক্ষার জন্য একত্রিত হওয়ার” এবং সহযোগিতা করার অনুরোধ জানিয়েছেন। এই চিঠি অনুযায়ী, শাওমি করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য ১৫ কোটি টাকা অনুদান দিয়েছে। এছাড়াও প্রধানমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলে তারা ১০ কোটি টাকা আরও দান করবে। এছাড়াও বিভিন্ন রাজ্য কে ৫ কোটি টাকা দেবে।

জৈন চিঠিতে বলেছেন, “আমরা বিভিন্ন রাজ্যের বিভিন্ন হাসপাতালে লক্ষ লক্ষ মাস্ক এবং প্রতিরক্ষামূলক স্যুট দান করার লক্ষ্যে কাজ চালিয়ে যাব। এছাড়াও শাওমি Give India এর সাথে হাত মিলিয়ে এক কোটি টাকা অনুদান তোলার চেষ্টা করছে। এই তহবিলের টাকা থেকে ২০,০০০ পরিবারকে সাবান স্যানিটাইজার এবং মাস্ক ইত্যাদি দেওয়া হবে।। জৈন আরও জানিয়েছেন যে শাওমি দিনমজুর, দুর্দশাগ্রস্থ প্রাণীদের সহায়তার জন্য আরও কয়েকটি এনজিওর সাথে কাজ করছে।

১ কোটি টাকা অনুদান দিয়েছিল Oppo :

সেলফি সেন্ট্রিক স্মার্টফোন কোম্পানিটি প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় ত্রাণ তহবিল এবং উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলে এক কোটি টাকা দান করেছে। ত্রাণ তহবিলে দান করা ছাড়াও অপ্পো গ্রাহকদের সুবিধার্থে অনলাইন রিপেয়ার সার্ভিস চালু করেছে। এই পরিষেবায় সারা দেশের ব্যবহারকারীদের বেসিক এবং সফ্টওয়্যার সম্পর্কিত সমস্যাগুলি সমাধান করা হবে। এছাড়াও কোম্পানি তাদের সমস্ত প্রোডাক্টের ওয়ারেন্টি বাড়িয়ে দিয়েছে। অপ্পো-র তরফে জানানো হয়েছে, লকডাউন চলাকালীন যে প্রোডাক্টগুলির ওয়ারেন্টি শেষ হয়ে গেছে, সেইসব প্রোডাক্টের ওয়্যারেন্টি বাড়ানো হয়েছে।