প্লাস্টিকের বোতল দিয়ে তৈরী মেড ইন ইন্ডিয়া T-Shirt আনলো Xiaomi

বর্তমানে ভারতের ১ নম্বর স্মার্টফোন ব্র্যান্ড হল Xiaomi। স্মার্টফোন ছাড়াও সংস্থাটির স্মার্টটিভি, ইয়ারফোন, ল্যাপটপ, উইয়ারেবল ডিভাইস, বা আরো অন্যান্য ইলেকট্রনিক গ্যাজেট বেশ জনপ্রিয়। এবার শাওমি একটি নতুন প্রোডাক্ট বাজারে এনেছে, তবে সেটি কোনো ডিভাইস বা গ্যাজেট নয়, টি-শার্ট। হ্যাঁ, ঠিকই পড়েছেন! সম্প্রতি, Xiaomi, ভারতের বাজারে নিয়ে এসেছে Mi Eco-Active T-shirt। শাওমির এই টি-শার্টটির বিশেষত্ব হল, এটি পুনর্ব্যবহারযোগ্য উপাদান থেকে তৈরি করা হয়েছে এবং এটি ফিটনেস প্রেমীদের জন্য বাজারে আনা হয়েছে।

এই প্রসঙ্গে বলে রাখি, Xiaomi -র Mi Eco-Active টি-শার্টটি ১২টি পুনর্ব্যবহারযোগ্য PET বোতল থেকে তৈরি করা হয়েছে। সংস্থাটি জানিয়েছে, ভারত থেকে সংগ্রহ করা ভ্যাসেট এবং প্লাস্টিকের বোতলগুলির সাহায্যে টি-শার্ট তৈরি করা হয়েছে। এই প্রিমিয়াম কোয়ালিটির টি-শার্টের ফ্যাব্রিক, ব্যবহারকারীর ঘাম শোষণ করে। এছাড়া এটি স্কিন ফ্রেন্ডলি এবং বডি ওডোর ফ্রি অনুভূতি দেবে। ফিটনেস প্রেমীরা স্বচ্ছন্দে এই টি-শার্ট পরে জিম যেতে বা ওয়ার্ক আউট করতে পারবেন। দাবি করা হচ্ছে, এই টি-শার্টটি খুব তাড়াতাড়ি শুকিয়ে যাবে।

নাম শুনেই বুঝতে পারছেন এই টি-শার্ট সম্পূর্ণ পরিবেশ বান্ধব হবে। সংস্থার দাবি, এমআই ইকো-অ্যাক্টিভ টি-শার্ট তৈরির প্রক্রিয়ায় মাত্র ১০ লিটার জলের সাহায্যে এক কেজি প্লাস্টিকের সুতা পুনর্ব্যবহার করা হয়। যেখানে সাধারণ তুলোর টি-শার্ট বানাতে প্রায় ২৩,০০০ লিটার জল লাগে। অন্যদিকে এই নতুন টি-শার্ট তৈরির প্রক্রিয়ায় তুলোর টি-শার্ট তৈরির প্রক্রিয়ার চেয়ে ৭০ শতাংশ কম কার্বন নিঃসরণ হয়। এছাড়া এটির সাথে তুলসী গাছের বীজ দেওয়া হবে, যা বপন করা যাবে।

শুধু তাই নয় এই টি-শার্টগুলি সহজেই রিসাইকেল করা যাবে এবং রিইউজ অর্থাৎ পুনর্ব্যবহার করা যাবে। এই প্রসঙ্গে এমআই ইন্ডিয়ার চিফ বিজনেস অফিসার রঘু রেড্ডি বলেছেন, এটি সম্পূর্ণ মেড ইন ইন্ডিয়া প্রোডাক্ট যা পরিবেশ বান্ধব জীবনযাত্রায় সাহায্য করবে।

Xiaomi Mi Eco Active T-shirt দাম এবং লভ্যতা

আপাতত শাওমির এই টি-শার্টটির কেবল সাদা রঙের বিকল্প পাওয়া যাবে। শাওমি, গত পরশু অর্থাৎ ১১ই সেপ্টেম্বর থেকে এটিকে তার mi.com ওয়েবসাইটে ক্রাউডফান্ডিংয়ের জন্য উপলব্ধ করেছে, এবং বিশেষ দাম নির্ধারণ করেছে। এই মুহূর্তে টি-শার্টটি কিনতে দাম পড়বে ৯৯৯ টাকা।