স্ন্যাপড্রাগন ৮৭৫ প্রসেসর সহ আসবে Xiaomi M2012K11C, হতে পারে Mi 11 সিরিজের ফোন

চীনা স্মার্টফোন কোম্পানি Xiaomi একসাথে একাধিক ফ্ল্যাগশিপ ফোনের ওপর কাজ করছে। কয়েকদিন আগেই শাওমির M2011K2C মডেল নম্বরের একটি ফোনকে সার্টিফিকেশন সাইটে দেখা ছিল। অনেক রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে, এই ফোনটি সংস্থার Redmi সাব-ব্র্যান্ডের ‘K’ সিরিজের পরবর্তী ফোন (Redmi K40) হতে পারে। কিন্তু সপ্তাহ ঘুরতে না ঘুরতেই, বেঞ্চমার্ক সাইটে M2012K11C মডেল নম্বরযুক্ত আরো একটি নতুন Xiaomi ফোনকে দেখা গেছে। দাবি করা হচ্ছে ওই ফোনটি Xiaomi এর Mi 11 সিরিজের ফোন হবে, যেখানে স্ন্যাপড্রাগন ৮৭৫ প্রসেসর থাকবে।

গতকাল বেঞ্চমার্ক সাইট Geekbench এ শাওমির M2012K11C ফোনটিকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। এখানে ফোনটি সিঙ্গেল-কোর টেস্টে ১১০৫ এবং মাল্টি-কোর টেস্টে ৩৫১২ স্কোর করেছে। এই স্কোরিং প্ল্যাটফর্মটি থেকে আরো জানা গেছে, শাওমির এই নতুন ডিভাইসটিতে ৬ জিবি র‌্যাম, অ্যান্ড্রয়েড ১১ অপারেটিং সিস্টেম এবং অক্টা-কোর কোয়ালকম প্রসেসর থাকতে পারে। যদিও ফোনটিতে কোন চিপসেট থাকবে তা এখনো স্পষ্ট নয়। তবে ফোনটির সোর্স কোড দেখে অনেকে মনে করছেন, এটিতে অ্যাড্রেনো ৬৬০ জিপিইউ এবং স্ন্যাপড্রাগন ৮৭৫ এসওসি (সার্কিট অন চিপ) চিপসেট ব্যবহার করা হবে।

যদিও বেঞ্চমার্ক সাইট থেকে M2012K11C মডেল নম্বরযুক্ত ডিভাইসটির নাম জানা যায়নি। কিন্তু জল্পনা শুরু হয়েছে যে এটি শাওমির Mi 11 সিরিজের স্মার্টফোন হতে পারে। এই সিরিজ আগামী বছরের শুরুর দিকে লঞ্চ হবে বলেও অনুমান করা হচ্ছে। সম্প্রতি এক উইবো (Weibo) ব্লগার দাবি করেছেন যে, শাওমির Mi 11 ফ্ল্যাগশিপ সিরিজটিতে নতুন ও অনন্য ডিজাইন থাকবে এবং এই ডিভাইসগুলি কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৭৫ এসওসি প্রসেসরে চলবে। প্রসঙ্গত, M2012K11C মডেল নম্বরযুক্ত ফোনটির (সম্ভাব্য ‘K40’ সিরিজ) ক্ষেত্রেও দাবি করা হয়েছিল, আসন্ন ডিভাইসটিতে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৭৫ চিপসেট থাকবে।

এদিকে শোনা যাচ্ছে যে চিপসেট নির্মাতা কোয়ালকম (Qualcomm) আগামী ডিসেম্বরের পয়লা তারিখে লেটেস্ট স্ন্যাপড্রাগন ৮৭৫ এসওসি চিপসেটটির ঘোষণা করবে। সংস্থাটি ইতিমধ্যে উইবোতে লঞ্চ ইভেন্টের আমন্ত্রণ প্রকাশ করেছে বলেও জানা গিয়েছে। রিপোর্ট অনুযায়ী, আসন্ন স্ন্যাপড্রাগন ৮৭৫ চিপসেটটি একটি 5nm (৫ ন্যানোমিটার) প্রসেসে তৈরি করা হয়েছে। তদুপরি, এটিতে লেটেস্ট Acorn RISC Machine অর্থাৎ ARM, হাই-পারফরম্যান্স Cortex-X1 কোর থাকবে বলে আশা করা হচ্ছে।

আগেই বলেছি, এই নতুন ফোনটি আগামী বছরের জানুয়ারিতে বাজারে আসতে পারে এবং এটি এই বছর লঞ্চ হওয়া Mi 10 ফ্ল্যাগশিপ সিরিজের সাকসেসর বা উত্তরসূরি হতে পারে। তবে জানুয়ারিতে Samsung-এর Galaxy S21 ডিভাইসটিও লঞ্চ হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। তাই দুটি সংস্থার ফোন একই সময়ে লঞ্চ হলে বাজারে যে বেশ দৃঢ় প্রতিযোগিতা হবে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না! আপাতত, M2012K11C ফোনটির অন্য ফিচার জানা যায়নি, তবে লেটেস্ট Mi 10-এর স্পেসিফিকেশন দেখে আশা করা যায় আসন্ন ফোনটি আরো মজাদার হতে পারে।